BREAKING NEWS

২৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৮  রবিবার ১৩ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

চালককে নামিয়ে বাস ভাঙচুর, পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ, কোচবিহারে ‘তাণ্ডব’ বিজেপি কর্মীদের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: July 14, 2020 9:29 am|    Updated: July 14, 2020 9:38 am

BJP workers accussed by storm at bus stand in Cooch Behar during bandh

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিজেপির উত্তরবঙ্গ বনধ ঘিরে সকাল থেকে সবচেয়ে বেশি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে কোচবিহার জেলা। এদিন সকালে ঘুঘুমারিতে উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ সংস্থার দু-একটি বাস চালু হলেও অভিযোগ, বিজেপি কর্মীরা তা আটকে দেন। এ নিয়ে বাসস্ট্যান্ডে কার্যত ধুন্ধুমার বেঁধে যায়। পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন বিজেপি কর্মীরা। কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। সকাল সকাল এমন অশান্তির পর সেখানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

সোমবার হেমতাবাদের বিধায়ক দেবেন্দ্রনাথ রায়ের ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার হওয়ার পর থেকে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে বঙ্গ রাজনীতি। মৃত্যুতে সিবিআই তদন্তের দাবিতে আজ উত্তরবঙ্গে ১২ ঘণ্টা বনধের ডাক দিয়েছে রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব। আর সকাল ৬টা থেকেই বনধ সফল করতে রাস্তায় নেমেছে গেরুয়া শিবিরের কর্মী, সমর্থকরা।

[আরও পড়ুন: উত্তরবঙ্গে বিজেপির ডাকে চলছে বনধ, বিভিন্ন জায়গায় পথ অবরোধ, বাস ভাঙচুরের অভিযোগ]

জানা গিয়েছে, এদিন সকালে বনধ উপেক্ষা করে প্রতিদিনের মতো কোচবিহারের ঘুঘুমারিতে উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ সংস্থার বাস স্ট্যান্ড থেকে মাথাভাঙা ও বালুরঘাটের উদ্দেশে বাস ছেড়েছিল। কিন্তু বিজেপি কর্মীরা সেই বাস আটকান, চালককে বাস থেকে নামিয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। পাশাপাশি, সরকারি বাস ভাঙচুর করা হয়। অন্ত তিনটি বাস ভাঙচুর হয়েছে বলে অভিযোগ। বাসস্ট্যান্ডের সামনে রাস্তায় বসে অবরোধ করেন জেলা বিজেপি সভানেত্রী। তিনি বলেন, ”সরকার পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছে এই বনধ বানচাল করে দেওয়ার। কিন্তু আমরা সর্বাত্মকভাবে বনধ সফল করতে নেমেছি। শান্তিপূর্ণ অবস্থান চলবে।” এ নিয়ে পুলিশের সঙ্গে ধুন্ধুমার বাঁধে বিজেপি কর্মীদের। পুলিশ বাস চলাচল স্বাভাবিক রাখার চেষ্টা করে। পরে বনধ সমর্থকদের হঠিয়ে দিলেও বাস চলাচল এখনও স্বাভাবিক হয়নি। মেখলিগঞ্জ, তুফানগঞ্জে ব্যাহত বাস পরিষেবা। জেলার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে রাস্তায় নেমেছেন পুলিশ আধিকারিকরা। অশান্তির খবর শুনে কোচবিহারের  বিজেপি সাংসদ (MP) নিশীথ প্রামাণিকের প্রতিক্রিয়া, ”রাজ্যে যে অরাজকতা চলছে, তাতে মুখ্যমন্ত্রীর অবিলম্বে পদ ছেড়ে দেওয়া উচিৎ। আমরা সেই দাবি তুলছি।”

[আরও পড়ুন: ফাঁকা বাড়িতে গৃহশিক্ষিকাকে ধর্ষণের চেষ্টা, অভিযুক্ত তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্য]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement