৭  আশ্বিন  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

গভীর রাতে গ্রামে বোমাবাজি, ভোটের মুখে আতঙ্ক বীরভূমের নলহাটিতে

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: April 7, 2019 1:01 pm|    Updated: April 7, 2019 1:01 pm

Bomb recovered from two house in Nalhati just before election

ছবি: প্রতীকী

নন্দন দত্ত, বীরভূম: রাতে কারও বাড়িতে বোমা পড়ছে, আবার ভরদুপুরে তাজা বোমা মিলছে কারও বাড়ির ছাদে। ভোটের মুখে তীব্র আতঙ্ক ছড়িয়েছে বীরভূমের নলহাটির বানিওর গ্রামে। আর এই ঘটনায় একে-অপরকে দুষছে তৃণমূল কংগ্রেস ও বিজেপির স্থানীয় নেতারা।

[আরও পড়ুন: নির্বাচন যেন পৌষমাস, ভারত-ভুটান সীমান্তে বেআইনি নোটের রমরমা কারবার]

ঘটনার সূত্রপাত্র শুক্রবার গভীর রাতে। রাত প্রায় আড়াইটে নাগাদ বোমা ফাটে নলহাটির বানিওর গ্রামের বাড়ুই পাড়ায়। স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি, মনোজ মণ্ডল নামে এক ব্যবসায়ীকে লক্ষ্য করে বোমা ছোঁড়ে দুষ্কৃতীরা। তবে বোমার শব্দ শুনলেও রাতের অন্ধকারে আর বাইরে বেরনোর সাহস দেখাননি কেউ। আতঙ্কে বাড়ির দরজা বন্ধ করে জেগে ছিলেন সকলেই। যাঁকে লক্ষ্য করে বোমা ছোঁড়া হয়েছিল বলে অভিযোগ, সেই মনোজ মণ্ডলের দাবি, তিনি বিজেপি সমর্থক। ভয় দেখাতে তাঁকে লক্ষ্য করে বোমা মেরেছে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। শনিবার সকালে যখন ঘটনার তদন্তে বানিওর গ্রামে যায় পুলিশ, তখন গ্রামের দুটি বাড়ি থেকে তাজা বোমা উদ্ধার হয়। তদন্তকারীরা জানিয়েছেন, বানিওর গ্রামে শ্যামল মণ্ডল নামে একজনের বাড়ির আমবাগান থেকে দুটি তাজা বোমা পাওয়া গিয়েছে। তিনি স্থানীয় একটি প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষক। কিছুটা দূরে অনিমেষ মণ্ডল নামে আরও একজনের বাড়ি ছাদেও তাজা বোমা পড়ে থাকতে দেখেন বাড়ির সদস্যরা। ফলে আতঙ্ক আরও বেড়ে যায়। প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষক শ্যামল মণ্ডল জানিয়েছেন, তিনি প্রত্যক্ষভাবে কোনও রাজনৈতিক দল করেন না।

নলহাটির বানিওর গ্রামে ভোটের মুখে এত বোমা এল কী করে? বিজেপির যুব মোর্চার সহ-সভাপতি ধ্রুব সাহার অভিযোগ, লোকসভা ভোটে বাড়ি বাড়ি নকুলদানা পৌঁছে দেওয়ার নিদান দিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেসের বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। আতঙ্ক ছড়াতে গ্রামে বোমাবাজি করছে তাঁর দলের দুষ্কৃতীরা। আর তৃণমূল কংগ্রেসের ব্লক সভাপতি অশোক ঘোষের পালটা দাবি, গোষ্ঠী কোন্দলের কারণে বোমাবাজি করছে বিজেপির কর্মীরাই। দলকে বদনাম করতে তৃণমূলের ঘাড়ে দোষ চাপানো হচ্ছে। বানিওর গ্রামে গিয়ে বাসিন্দাদের আশ্বস্ত করে এসেছেন প্রশাসনিক আধিকারিকরা। তা সত্ত্বেও আতঙ্ক কমছে না৷

[ আরও পড়ুন: রাজকুমারের পুনরাবৃত্তি চান না কেউ, কেন্দ্রীয় বাহিনী না পেলে ভোট বয়কট]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে