BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

যাত্রী কম হলে লাভ নেই, যুক্তি দেখিয়ে গ্রিন জোনে বাস চালাতে নারাজ মালিকরা

Published by: Sayani Sen |    Posted: May 3, 2020 8:48 pm|    Updated: May 3, 2020 9:43 pm

An Images

ছবি: প্রতীকী

নব্যেন্দু হাজরা: রাজ্যের তরফে জানানো হয়েছিল সোমবার থেকে গ্রিন জোনে থাকা জেলাগুলিতে চলবে বেসরকারি বাস। বাসে ২০জন করে যাত্রীর বসার অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু কোথায় কী! বাসমালিকরা বেঁকে বসায় সোমবার থেকে বাস চলার সম্ভাবনা প্রায় নেই বললেই চলে। বাসমালিকদের যুক্তি, পুরনো ভাড়ায় কোনওভাবেই ২০ জন যাত্রী নিয়ে বাস চালানো সম্ভব নয়। সেক্ষেত্রে লোকসানের বহর অনেকটাই বেড়ে যাবে। শুধু তাই নয়, ট্যাক্সি চালানোর কথাও যে বলা হচ্ছে, তা-ও যে সম্ভব নয়, মানছেন পরিবহণ দপ্তরের কর্তারা। কারণ কলকাতা পুরোটাই রেড জোন। তবে জরুরি পরিষেবার ক্ষেত্রে কিছু ট্যাক্সি এখনও চালাচ্ছে কলকাতা পুলিশ।

নিয়ম মেনে পঞ্চাশ সিটের বাসে কুড়ি জন করে যাত্রী নেওয়ার কথা। কীভাবে বাসে সিটিং অ্যারেঞ্জমেন্ট হবে, তার গাইডলাইনও তৈরি করা হয়েছিল। কিন্তু বেঁকে বসেছেন মালিকরাই। তাঁদের দাবি, বাসে প্রতি ট্রিপে গড়ে ৫০ জন যাত্রী চাপেন। তাতে তাঁদের যা আয় হয়, কুড়ি জন যাত্রী তুলে তাঁদের সেই আয় হবে না। ক্ষতির বহর বেড়েই যাবে। তাই ভাড়া না বাড়ালে গাড়ি তাঁরা নামাবেন না। কী বক্তব্য পরিবহণ দপ্তরের? এক কর্তা জানান, মুখ্যমন্ত্রী জানিয়ে দিয়েছেন, গ্রিন জোনে বাস চালাতে পারবেন মালিকরা। এবার তাঁরা চালাবেন কি না সেটা তাঁরা বুঝবেন। বাসমালিকরা বলছেন, ভাড়া না বাড়ালে গাড়ি নামানো সম্ভবই নয়। তাছাড়া লকডাউনের কারণে এতদিন বাস বন্ধ ছিল। ফলে ড্রাইভার, কন্ডাক্টরদের কোনও আয় ছিল না। মালিকদেরও এক অবস্থা। তাই ক্ষতির বহর বাড়িয়ে মালিকরা আর বাস নামাতে পারবেন না।

[আরও পড়ুন: মতভেদ অতীত, হাতে হাত মিলিয়ে ত্রাণ বিলি বিভিন্ন রাজনৈতিক শিবিরের নেতাদের]

বর্তমানে জেলার বাসেও সর্বনিম্ন ভাড়া হল সাত টাকা। যাওয়া যাবে চার কিলোমিটার। তারপর প্রতি স্টেজে ভাড়া বাড়ে। তাই বাসমালিকদের প্রস্তাব সরকার যেমন রিকুইজিশন করে ভোটের সময় বাস নেয়, সেই রকম রিকুইজিশন করে বাস নিয়ে চালাক। পরিবহণ দপ্তরের তরফে অবশ্য বিষয়টি নিয়ে কোনও সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়নি। বাস-মিনিবাস সমন্বয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক রাহুল চট্টোপাধ্যায় বলেন, “আগের ভাড়ায় কুড়িজন যাত্রী নিয়ে বাস চালানো মুশকিল। কোনও আয়ই হবে না। তাই সোমবার থেকে বাস নামানোর কথা থাকলেও জেলার মালিকরা জানিয়ে দিয়েছেন গাড়ি নামাবেন না।’’

[আরও পড়ুন: শান্তি ফেরাতে টিকিয়াপাড়ায় পুলিশ-জনতা বৈঠক, জমায়েতের ভিডিও ভাইরাল]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement