BREAKING NEWS

১২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ছন্দে ফেরা পাহাড়ের প্রতিচ্ছবি কেকে, টয়ট্রেন-কন্যাশ্রী নিয়ে উৎসাহ

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 25, 2017 10:46 am|    Updated: December 25, 2017 10:46 am

Christmas cake depicts Kanyashree, toy train

সব্যসাচী ভট্টাচার্য, শিলিগুড়ি: পাহাড়ে বেড়াতে যাওয়ার আগে সবাই একটু থামেন শিলিগুড়িতে।  দেশের উত্তর পূর্বের প্রবেশদ্বার।  সেখানে বড়দিন নিয়ে অন্যরকম আয়োজন।

[বড়দিনে বেসামাল মহিলাদের সামলাতে রাস্তায় প্রমীলা বাহিনী]

SILIGURI_mukhyo mantrir kanyashree prokolpo anupranito hoye kanayashree cake baneyeache ekti bakery (4)

পাহাড়ে বড়দিন অন্যতম বড় উৎসব। তা মাথায় রেখে শিলিগুড়ির একটি বেকারিতে তৈরি হয়েছে টয় ট্রেন। তবে আস্ত নয়,  কেকের আদলে ছুটে বেড়াচ্ছে ট্রেন। প্রতিবন্ধকতা কাটিয়ে শিলিগুড়ি থেকে দার্জিলিং পুরোপথে টয়ট্রেন পরিষেবা পুনরায় চালু হয়েছে। পাহাড়ের স্বাভাবিক ছন্দ তুলে ধরতে টয়ট্রেনের ধাঁচে তৈরি হয়েছে বড়দিনের কেক। প্রাণচঞ্চল, শান্ত, স্বাভাবিক পাহাড়কে তুলে ধরতে এই কেক তৈরি করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট বেকারির কর্ণধার বিভূতিভূষণ পাল। একইসঙ্গে কেকে উঠে এসেছে ব্যাডমিন্টনে পিভি সিন্ধুদের বিশ্বজয়। এমনকী ২০১৮–তে রাশিয়ায় অনুষ্ঠিত হতে চলা বিশ্বকাপ ফুটবলের লোগো। সবমিলিয়ে বড়দিনের বাজারে থিম কেকের দৌড়ে শিলিগুড়িতে এখন এগুলি রীতিমতো ‘হট কেক’। পাশাপাশি বড়দিনের কেকে কন্যাশ্রীর বিশ্বজয়ের কাহিনি উঠে এসেছে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের চালু করা বিশ্ববন্দিত এই প্রকল্পকে এবার বড়দিনের কেকের মাধ্যমে তুলে ধরল শিলিগুড়ির একটি বেকারি।

SILIGURI_tennis e bharat k samman ene dewar jonyo player er photo saho tennis court cake

[বড়দিনে দিঘায় জনজোয়ার, আনন্দে মাতোয়ারা পর্যটকরা]

ক্রিসমাস ট্রি, সান্টা টুপির সঙ্গে কেক না হলে বড়দিন অসম্পূর্ণ, বক্তব্য ক্রেতা বিক্রেতা প্রত্যেকেরই। শিলিগুড়ির বিধান মার্কেটে কেকের দোকানে উপচে পড়ছে ভিড়। প্রতিবারের মতো এবারও ক্রেতাদের মন জয় করতে বিশেষ কেক বানিয়েছে বিভিন্ন সংস্থা। কন্যাশ্রী প্রকল্পের কথা প্রচার করতে কেক তৈরি করেছে শিলিগুড়ির একটি বেকারি। ওই বেকারির কর্ণধার তমাল সরকার বলেন, “কন্যাশ্রী  বিশ্বসেরা হয়েছে। আমরা কেকের মাধ্যমে সেই প্রকল্পকে সম্মান জানাতে চাইছি।” কেকটি ঘিরে বেশ সাড়াও পড়েছে। অনেকেই কন্যাশ্রী কেক দেখতে আসছেন বলে দাবি তমালবাবুর। কেকটির দাম রাখা হয়েছে ৩,৬০০ টাকা। ক্রিসমাস উপলক্ষে বিশেষ ছাড় দিয়ে তিন হাজার টাকায় বিক্রি করা হবে। আর ওই অর্থ মুখ্যমন্ত্রীর কন্যাশ্রী প্রকল্পে দান করা হবে। একইসঙ্গে ব্যাডমিন্টনে ভারতের সাফল্যকে তুলে ধরতে ব্যাডমিন্টন কোর্টের আদলে তৈরি হয়েছে কেক। সেখানে ঠাঁই পেয়েছেন পিভি সিন্ধু, কিদাম্বি শ্রীকান্তের মতো ব্যাডমিন্টন তারকারা। ২০১৮ সালে রাশিয়ায় হতে যাওয়া ফুটবল বিশ্বকাপের ম্যাসকটের আদলেও কেক তৈরি হয়েছে। খেলাধুলোর প্রতি আকর্ষণ বাড়াতে এবার এই উদ্যোগ বলে জানাচ্ছেন কেক নির্মাতারা। ভিন্ন স্বাদ এবং ঘরানার কেক দেখতে ক্রেতাদের মধ্যে দারুণ উৎসাহ তৈরি হয়েছে।

[পৌষমেলা উপলক্ষ্যে রেলে ‘অতিরিক্ত সারচার্জ’, কাঠগড়ায় একশ্রেণির টিকিট পরীক্ষক]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে