BREAKING NEWS

১০ আষাঢ়  ১৪২৮  শুক্রবার ২৫ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

নোটবন্দিতে কাজ হারানো চর্মশ্রমিকদের কলকাতায় এনে কর্মসংস্থান মমতার

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: July 18, 2019 6:28 pm|    Updated: July 18, 2019 6:28 pm

CM Mamata Banerjee inaugarate new projects in Bantola leather complex

দেবব্রত মণ্ডল, বারুইপুর: রাজ্যে ফের নয়া কর্মসংস্থান। লেদার কমপ্লেক্স চর্মনগরীকে এশিয়ার বৃহত্তম চর্মনগরীতে পরিণত করার লক্ষ নিয়ে একাধিক প্রকল্পের শিলান্যাস মুখ্যমন্ত্রীর। বললেন, শুধু কলকাতা নয়, কানপুর ও চেন্নাইয়ের ব্যবসায়ীদের একত্র করে তৈরি হবে বিরাট হাব। গোটা দেশে যখন কর্মসংস্থান গুটিয়ে যাচ্ছে তখন বাংলা প্রাণ ফিরিয়ে দিচ্ছে। কর্মসংস্থান হবে ৫ লক্ষ। লগ্নি হবে ৮০ হাজার কোটি টাকা নাম দেওয়া হল ‘কর্মদিগন্ত’। এই এলাকায় শ্রমিকদের যাতায়াতের জন্য তৈরি হবে আলাদা বাসস্টপ।

দক্ষিণ পরগনায় বানতলা চর্মনগরীতে বৃহস্পতিবার ১১টি নতুন প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, চর্মনগরী নয়া প্রকল্পগুলিতে ৮০ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ আসবে। কর্মসংস্থান হবে পাঁচ লক্ষ মানুষের। আগামীদিনে বানতলা থেকে তথ্যপ্রযুক্তি হাবটিকেও অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

[আরও পড়ুন: সরকারি প্রকল্পের ঘর দখল করে তৃণমূলের পার্টি অফিস! শোরগোল বর্ধমানে]

তৃণমূল জমানায় নয়া রূপে সেজে উঠছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার বানতলা চর্মনগরী। কলকাতা তো বটেই, বানতলায় কানপুর ও চেন্নাইয়ে বেশ কয়েকজন চর্ম ব্যবসায়ীকে জমি দিয়েছে রাজ্য সরকার। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, বানতলাকে বিশ্বের বৃহত্তম চর্মনগরী হিসেবে গড়ে তুলতে চায় রাজ্য সরকার। বাজার দরের থেকে অনেক কম দামে এখানে জমি পেয়েছেন কানপুর ও চেন্নাইয়ের ব্যবসায়ীরা। তবে কলকাতার চর্ম ব্যবসায়ীরা বানতলায় জমি কিনলে, তাদেরও সরকার আর্থিক সুযোগ-সুবিধা দেবে। আগামিদিন এই বানতলা চর্মনগরী থেকে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ব্যান্ডেড জামা, জুতো রপ্তানি করা করা হবে। এদিন স্রেফ ১১টি প্রকল্পের উদ্বোধন করাই নয়, বানতলা চর্মনগরীকে নতুন নামও দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, এবার থেকে বানতলা ‘কর্মদিগন্ত’ নামে পরিচিত হবে।

সল্টলেকের সেক্টর ফাইভ-সহ বানতলা চর্মনগরী নবদিগন্তের অধীনে। শুধু ট্যানারিই নয়, বানতলায় একটি তথ্যপ্রযুক্তি হাবও আছে। আগামিদিনে বানতলা থেকে তথ্যপ্রযুক্তি হাবটিকেও অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, গোটা দেশের যখন কর্মসংস্থান কমছে, তখন বাংলার ৪০ শতাংশ বেকারত্ব কমেছে। বানতলায় চর্মনগরীতে কমপক্ষে ৫ লক্ষ মানুষের কর্মসংস্থান হবে। এদিন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শিল্পমন্ত্রী অমিত মিত্র-সহ এলাকার জনপ্রতিনিধি ও চর্ম ব্যবসায়ীরা। উল্লেখ্য, এ রাজ্যে বাম আমলে চর্মনগরী তৈরি হয় দক্ষিণ ২৪ পরগনার বানতলায়।

[আরও পড়ুন: বিস্ময় বালক, দেশ-বিদেশের রাজধানী গড়গড়িয়ে বলে দিচ্ছে দুধের শিশু]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement