BREAKING NEWS

২৭ আষাঢ়  ১৪২৭  রবিবার ১২ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

রাজ্যে বিজেপি নেতার নেমপ্লেট লাগানো গাড়ি থেকে উদ্ধার মাদক, গ্রেপ্তার ৪

Published by: Sayani Sen |    Posted: June 29, 2020 7:16 pm|    Updated: June 29, 2020 9:39 pm

An Images

বাবুল হক, মালদহ: কালো বাতানুকূল ‘জাইলো’ গাড়ি। সামনে বিজেপির (BJP) মণ্ডল কোষাধ্যক্ষের নেমপ্লেট। লেখা রয়েছে হিন্দিতে। গাড়ির নম্বর ঝাড়খণ্ডের। গভীর রাতে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত লাগোয়া মালদহের কালিয়াচক থানার গোলাপগঞ্জ এলাকায় ঝাড়খণ্ডের বিজেপি নেতার নেমপ্লেট লাগানো গাড়ি দেখে অবাক হয়ে যায় পুলিশ। কৌতূহলবশত কালিয়াচকের বালিয়াডাঙ্গা মোড়ে গাড়িটি আটকায়। কিন্তু গাড়িতে কোনও নেতার দেখা মেলেনি। বিজেপির নেমপ্লেট লাগানো সেই গাড়ি থেকে উদ্ধার হল প্রায় আড়াই কেজি নিষিদ্ধ মাদক। মাদক পাচারের সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে ওই গাড়ির চার সওয়ারিকে গ্রেপ্তার করে গোলাপগঞ্জ ফাঁড়ির পুলিশ। রবিবার রাতের ঘটনায় অস্বস্তিতে গেরুয়া শিবির।

পুলিশ জানিয়েছে, ওই গাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে ২ কেজি ৬০০ গ্রাম আফিম। যার বাজারমূল্য কয়েক লক্ষ টাকা। এছাড়াও নগদ চার হাজার টাকা, মোবাইল এবং ধৃতদের পরিচয়পত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ। ধৃতদের নাম নাইম আনসারি, ইমতিয়াজ আনসারি, তৌফিক আনসারি এবং প্রদীপ কুমার মাহাতো। ধৃতদের বাড়ি ঝাড়খণ্ডের রাঁচির রাজাডেরা ছাততি ও আনগড়া এলাকায়। এই মাদক পাচারের ঘটনায় বিজেপির ঝাড়খণ্ডের কোনও নেতার গাড়িই ব্যবহার করা হয়েছে নাকি ওই নেতাও ওতপ্রোতভাবে জড়িত, তা তদন্ত করে দেখছে পুলিশ। জেলা পুলিশ সুপার অলোক রাজোরিয়া জানিয়েছেন, মাদক-সহ ঝাড়খণ্ডের চার দুষ্কৃতীকে গ্রেপ্তার করেছে গোলাপগঞ্জ ফাঁড়ির পুলিশ। একটি গাড়ি আটক করা হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Maldah Arrest [আরও পড়ুন: বন্ধ ঘরে ছাত্রকে ‘যৌন হেনস্তা’ শিক্ষকের, ভিডিও রেকর্ড করে থানায় গেলেন নাবালকের বাবা]

বিজেপির মালদহের জেলা সভাপতি গোবিন্দ মণ্ডল বলেন, “ঘটনাটি আমি শুনেছি। আমাকে কালিয়াচক-৩ নম্বর ব্লক সভাপতি সন্তোষ মণ্ডল বিষয়টি জানান। তারপরই রাঁচিতে দলের নেতৃত্বের সঙ্গে কথা বলি। এরকমভাবে বিজেপির মণ্ডল কমিটির কোষাধ্যক্ষের নেমপ্লেট গাড়িতে লাগানো হয় না। নিয়ম নেই। বিজেপিকে কালিমালিপ্ত করতে ওই দুষ্কৃতীরা মাদক পাচারের চেষ্টা চালিয়েছে। রাঁচি পুলিশের সঙ্গেও কথা হয়েছে। ওই রাজ্যের পুলিশ বিষয়টি ভুয়ো বলেই প্রাথমিকভাবে জানিয়েছে। গাড়িটি বিজেপির কোনও নেতার নয়।”

Car

এই ঘটনাকে হাতিয়ার করে আসরে নেমেছে তৃণমূল। মালদহের কার্যকরী সভাপতি বাবলা সরকার বলেন, “বিজেপির নেমপ্লেট লাগানো গাড়ি থেকে মাদক-সহ ৪ দুষ্কৃতী গ্রেপ্তার হয়েছে। এতেই বোঝা যাচ্ছে ওদের নেতৃত্বের গাড়ি কোন কাজে এবং কীভাবে ব্যবহার করা হচ্ছে। পুলিশ তদন্ত করলে অনেক কিছু বেরবে।” 

[আরও পড়ুন: বাংলায় শান্তি ফেরাতে সন্দেশখালি থেকে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ি ঘেরাওয়ের ডাক দিলেন অর্জুন সিং]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement