২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৪ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‘উত্তরপ্রদেশের মতো মাফিয়ারাজ চলছে বাংলায়’, তৃণমূলকে দুষতে গিয়ে বেঁফাস দিলীপ

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: October 5, 2020 10:17 am|    Updated: October 5, 2020 11:53 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: টিটাগড়ে অর্জুন সিং (Arjun Singh) ঘনিষ্ঠ দাপুটে নেতা খুনের ঘটনায় উত্তপ্ত গোটা রাজ্য। ক্ষোভে ফুঁসছে বিজেপির নেতা-কর্মীরা। এই পরিস্থিতিতে সোমবার মনীশ শুক্লা হত্যা প্রসঙ্গে বেফাঁস মন্তব্য করে বসলেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। রাজ্যকে দুষতে গিয়ে বললেন, “উত্তরপ্রদেশ ও বিহারের মতো মাফিয়ারাজ শুরু হয়েছে বাংলায়।” রাজ্য বিজেপি সভাপতির মন্তব্যে তুঙ্গে বিতর্ক।

হাসরাথ ইস্যুতে উত্তাল গোটা দেশ। যোগী সরকারের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন অধিকাংশই। নির্যাতিতাকে সুবিচার দেওয়ার দাবিতে পথে নেমেছিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। যার জেরে কটাক্ষের শিকারও হতে হয় তাঁকে। রাজ্য বিজেপির সভাপতিই বলেছিলেন, “হাসরাথ নিয়ে যথাযথ পদক্ষেপ নিচ্ছে যোগী সরকার। এহেন ঘটনা বাংলায় নিয়মিত ঘটাচ্ছে তৃণমূলের কর্মীরা। সেসবকে ধামা চাপা দিতেই পথে নেমেছেন মুখ্যমন্ত্রী।” সেই মন্তব্যের পর, বিজেপির রাজ্য সভাপতির মুখে মনীশ শুক্লা হত্যা প্রসঙ্গে বাংলার সঙ্গে বিজেপি শাসিত উত্তরপ্রদেশের তুলনা একাধিক প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছে। রাজনৈতিক সমালোচকদের মতে, দিলীপবাবুর এদিনের মন্তব্যই বুঝিয়ে দিল যোগীর উত্তরপ্রদেশ ও নীতিশ কুমারের বিহারের পরিস্থিতি। তবে তৃণমূলকে বিঁধতে গিয়ে আদতে রাজ্য বিজেপির সভাপতি এদিন দলেরই অস্বস্তি বাড়ালেন, তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

[আরও পড়ুন: সাইবার হামলার শিকার রাজ্যপাল! ভুয়ো মেল থেকে রেহাই পেতে চাইলেন মুখ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ]

উল্লেখ্য, রবিবার সন্ধেয় টিটাগড় (Titagarh) থানার সামনে বাইকে চড়ে একদল দুষ্কৃতী দলীয় কার্যালয়ে ঢুকে মণীশ শুক্লাকে লক্ষ্য করে পরপর ৭ রাউন্ড গুলি চালায়। তাতেই কার্যত ঝাঁজরা হয়ে যান অর্জুন সিং ঘনিষ্ঠ তরুণ নেতা। তাঁকে কলকাতার হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথেই মৃত্যু হয়। ঘটনার পরই শাসকদলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন অর্জুন সিং থেকে সৌমিত্র খাঁ-রা (Saumitra Khan)।

[আরও পড়ুন: এবার দলিত ইস্যুতে বিজেপিকে বিঁধলেন মমতা, রাজ্যে ধর্ষণ নিয়ে পালটা সরব গেরুয়া শিবির]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement