১ কার্তিক  ১৪২৬  শনিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১ কার্তিক  ১৪২৬  শনিবার ১৯ অক্টোবর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সুমিত বিশ্বাস, পুরুলিয়া: বুধবার ৬৯ বছরে পা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ সেই উপলক্ষে দেশজুড়ে নানাবিধ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছেন বিজেপির কার্যকর্তারা৷ সমগ্র দেশে এক সপ্তাহ ধরে স্বচ্ছতা অভিযান চালাচ্ছে গেরুয়া শিবিরের ছোট থেকে শুরু করে বড় মাপের নেতৃত্ব৷ কিন্তু এই খুশীর মধ্যেই তাল কাটলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ৷ পুরুলিয়ার একটি সভায় বক্তৃতা দিতে গিয়ে তিনি যা করলেন, তাতে অস্বস্তিতে পড়লেন জেলার নেতারা এবং লোকসভায় তাঁর সতীর্থ জ্যোতির্ময় সিং মাহাতো৷ প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে মুখ ফোসকে দিলীপ ঘোষ স্লোগান দিলেন, ‘‘নরেন্দ্র মোদি অমর রহে৷’’ দলের মুখরক্ষার্থে পরে এই বিষয়ে সাফাইও দেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি৷ বলেন, ‘‘আমার যুগ যুগ জিও বলা উচিত ছিল৷ কিন্তু আমি ভুল করে অমর রহে বলে ফেলেছি৷’’

[ আরও পড়ুন: টানা বৃষ্টিতে জলস্তর বাড়ছে ডুয়ার্সের নদীর, বিপর্যস্ত জনজীবন ]

রাজ্য বিজেপি সভাপতির মুখ থেকে এই স্লোগান শুনতেই নড়েচড়ে বসেন মঞ্চে উপস্থিত পুরুলিয়ার বিজেপি সভাপতি বিদ্যাসাগর চক্রবর্তী, পুরুলিয়ার বিজেপি সাংসদ জ্যোতির্ময় সিং মাহাতো এবং জেলা বিজেপির দুই সাধারণ সম্পাদক বিবেক রাঙ্গা ও কমলাকান্ত হাঁসদা৷ দিলীপ ঘোষের হাত টেনে ধরে ভুল ধরিয়ে দেন বিদ্যাসাগর চক্রবর্তী ও জ্যোতির্ময় সিং মাহাতো৷ এবং তা বুঝতে পেরে নিজেকে শুধরে নেন মেদিনীপুরের বিজেপি সাংসদ দিলীপ ঘোষ৷ সঙ্গে সঙ্গে সুর পালটে রাজ্য বিজেপি সভাপতি বলেন, ‘‘নরেন্দ্র মোদি যুগ যুগ জিও৷’’

[ আরও পড়ুন: হেঁশেলের ‘অধিকার’ নিয়ে দীর্ঘ দ্বন্দ্ব, ঝালদার ৪ স্কুলে বন্ধ মিড-ডে মিল ]

জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার প্রথমে পুরুলিয়ার জয়পুরে চা-চক্রে যোগ দেন দিলীপ ঘোষ৷ সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলেন৷ এরপর হুরা থানার অন্তর্গত লালপুর কলেজ থেকে লালপুর মোড় পর্যন্ত জেলা নেতৃত্বের সঙ্গে একটি মিছিলও করেন তিনি৷ কিন্তু সেই মিছিলেও ছন্দপতন হয় বলে স্থানীয় সূত্রে খবর৷ জানা গিয়েছে, মিছিলে হাঁটার সময় দিলীপ ঘোষের নিরাপত্তারক্ষীরা ধাক্কা দেন জেলা বিজেপি সভাপতি বিদ্যাসাগর চক্রবর্তীকে৷ যা নিয়ে দু’তরফের মধ্যে তখন মৃদু বচসা শুরু হয়৷ রে রে করে ওঠেন জেলার বিজেপি কর্মীরা৷ এরপর সরকারি কটেজে দিলীপ ঘোষ বিশ্রাম নিতে গেলে, তাঁর সামনেই নিরাপত্তারক্ষীদের সঙ্গে বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়েন বিদ্যাসাগর চক্রবর্তী৷ যে ঘটনায় বেশ অস্বস্তিতে পড়েন রাজ্য বিজেপি সভাপতি৷ যদিও পরে বিষয়টিকে গুরুত্ব দিতে চাননি বিদ্যাসাগর বাবু৷ পরিস্থিতি হালকা করতে তিনি বলেন, ‘‘ওনারা তো আমাদের চেনেন না, তাই একটু ধাক্কা দিয়ে ফেলেছেন৷’’

ছবি ও ভিডিও: সুনীতা সিং

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং