BREAKING NEWS

১৩  আষাঢ়  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৮ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

সুকান্ত-শুভেন্দু সফরসঙ্গী, শাহর বঙ্গ সফরে কেন ব্রাত্য দিলীপ? চর্চা শুরু দলেই

Published by: Biswadip Dey |    Posted: May 8, 2022 12:02 pm|    Updated: May 8, 2022 12:02 pm

Dilip Ghosh not included in Amit Shah West Bengal tour, questions arised। Sangbad Pratidin

স্টাফ রিপোর্টার: অমিত শাহর (Amit Shah) দু’দিনের বঙ্গ সফরে আগাগোড়াই ব্রাত্য থেকে গেলেন প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। হেলিকপ্টারে সুকান্ত মজুমদার ও শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে ঘুরলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। বিএসএফের সরকারি অনুষ্ঠানেও মঞ্চে থাকলেন সুকান্ত-শুভেন্দু। আবার শুক্রবার সন্ধ্যায় ভিক্টোরিয়ার অনুষ্ঠানে, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের বাড়িতে নৈশভোজে কিংবা রাতে নিউটাউনের হোটেলে দলের একেবারে কোর গ্রুপকে নিয়ে যে বৈঠক করলেন শাহ, সেখানেও ডাক পেলেন না দিলীপ। শুধু তাই নয়, বিজেপির পুরনো নেতৃত্ব যাঁরা দলের মুখ সেই সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়, মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্যরাও শাহর সফরে তাঁর কাছে ঘেঁষতে পারলেন না।

শাহ বুঝিয়ে দিয়ে গেলেন সুকান্ত-শুভেন্দুই আগামীদিনে নেতৃত্বের মুখ। কলকাতা বিমানবন্দরে নামার পরই কার্যত ঝাঁপিয়ে পড়ে অমিত শাহকে প্রণাম করতে দেখা গিয়েছে বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে। সুকান্তর আগেই শাহকে অভ্যর্থনা জানাতে দেখা যায় শুভেন্দুকে। কে আগে পৌঁছয় যেন সেই চেষ্টাই ছিল। শাহ সফরে সর্বত্রই রাজ্য সভাপতি ও বিরোধী দলনেতা সঙ্গী। তাহলে এবার বঙ্গ সফরে দলের বিক্ষুব্ধ শিবিরের হয়ে সওয়াল করা দলের সর্বভারতীয় সহ সভাপতিকে কি নম্বর দিলেন না অমিত শাহ? দিলীপ শিবিরের কাছে এটা পরিষ্কার। মালব‌্যকে পছন্দ নয়, সিনিয়র লিডার চাই একথা বলেছিলেন দিলীপ। সুকান্তর অভিজ্ঞতা কম বলেও মন্তব‌্য করেছিলেন। কোর গ্রুপের বৈঠকে মালব‌্য-সুকান্ত-শুভেন্দুদের রেখেই প্রাধান‌্য দিলেন শাহ। সফরে কোর কমিটির বৈঠকে তাঁকে না ডাকার বিষয়টি নিয়ে দলের সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডাকে নালিশও জানাতে পারেন দিলীপ।

[আরও পড়ুন: সমুদ্রেই শক্তিক্ষয় হতে পারে ঘূর্ণিঝড় ‘অশনি’র, বঙ্গে ৪ দিন ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা]

প্রশ্ন উঠেছে, সভাপতি থাকাকালীন যাঁর নেতৃত্বে বাংলায় ঘুরে দাঁড়িয়েছিল দল সেই সফল প্রাক্তন রাজ্য সভাপতিকে কেন কোর গ্রুপের বৈঠকে ডাকা হল না। হেলিকপ্টারে শাহর সফরসঙ্গী তিনি ছিলেন না, এ বিষয়ে প্রশ্নে অভিমানের সুর দিলীপ ঘোষের গলায়। তাঁর বক্তব্য, “আমি হেলিকপ্টারে উঠি না। সবাই এখান থেকে বিমানে যায়। আমি ট্রেনে যাই। ভোট প্রচারের জন্য পার্টি যখন আমায় হেলিকপ্টার দিয়েছিল তখন গিয়েছি। আমি মাটিতেই আছি, দেখেন না সকালে হাঁটি।” শুক্রবার সন্ধ্যায় সৌরভের বাড়িতে নৈশভোজ সেরেছিলেন অমিত শাহ। ছিলেন সুকান্ত, শুভেন্দু ছাড়াও অমিত মালব্য, স্বপন দাশগুপ্তরা।

এরপরই প্রশ্ন ওঠে শাহের পাশাপাশি এই বিজেপি নেতারাও কি আমন্ত্রিত ছিলেন? টুইটে এই প্রশ্ন তুলে কটাক্ষ করেছিলেন রাজ্য তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ। কুণাল প্রশ্ন তোলেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী যেতেই পারেন। কিন্তু অন্য বিজেপি নেতারাও কি আমন্ত্রিত ছিলেন? নাকি নেতার পিছনে ঘুরতে ঘুরতে বিনা আমন্ত্রণে ঢুকে খেতে বসে গিয়েছেন। শনিবার সকালে টুইটের পালটা দিলীপ ঘোষ বলেন, “অসামাজিক কাজে জড়িত থাকায় কোথাও আমন্ত্রণ পান না কুণালবাবু।’’ পালটা টুইটে কুণাল লেখেন, “ওওও দিলীপবাবু, সামাজিক-অসামাজিক তালজ্ঞান হারালেন? শুধু মহারাজকীয় ভোজে বাদ পড়ে? আমার প্রচুর নেমন্তন্ন থাকে। না ডাকলে যাই না। ডাকলেও সর্বত্র যেতে পারি না। আপনি কাল বাদ কেন? আর দাগি? আপনার দিল্লির দাদার কী কী মামলা ছিল, তালিকা দেব?” টুইটে কিছু ছবিও শেয়ার করেন কুণাল ঘোষ। তরজার মধ্যেই দলের বড় অংশের প্রশ্ন, যে বিক্ষুব্ধ শিবিরের কথা শুনবেন বলে মনে করা হয়েছিল সেদিকে গেলেনই না, বরং যাঁদের বিরুদ্ধে দলের বড় অংশের অভিযোগ তাঁদের সঙ্গে নিয়েই ঘুরলেন তিনি?

[আরও পড়ুন: নজরে বিজেপি বিরোধী ভোট! তৃণমূলের সংগঠন বাড়াতে অসম সফরে যাচ্ছেন অভিষেক]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে