BREAKING NEWS

১ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘আগুন জ্বালাতে আসবেন না, ছারখার হয়ে যাবেন’, শান্তনু ঠাকুরকে হুঁশিয়ারি দিলেন তৃণমূল নেতা

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: June 13, 2020 7:17 pm|    Updated: June 13, 2020 7:17 pm

An Images

জ্যোতি চক্রবর্তী,বনগাঁ: বিজেপির বিক্ষোভ অবরোধ ও হাসপাতাল কর্মীকে মারধরের প্রতিবাদে বনগাঁ শহরজুড়ে মিছিল-বিক্ষোভ করে থানায় ডেপুটেশন দিল তৃণমূল কংগ্রেস। শনিবার দুপুরে বনগাঁ-চাকদা রোড সংলগ্ন তৃণমূল পার্টি অফিস থেকে হাজার পাঁচেক কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে মতিগঞ্জ বিএস ক্যাম্পের মোড়, বাটা মোড় ঘুরে থানার সামনে এসে মিছিলটি শেষ হয়। মিছিলের নেতৃত্ব দেন বনগাঁর তৃণমূল নেতা শংকর আঢ্য। বাটার মোড়ে অবস্থান-বিক্ষোভ হয়। মিছিলকে কেন্দ্র করে ব্যাপক পুলিশি ব্যবস্থা ছিল।

এদিন শংকর আঢ্য পুলিশের বিরুদ্ধে মদত দেওয়ার অভিযোগ আনেন। তিনি বলেন, “একাংশের পুলিশ অফিসাররা বিজেপি নেতাদের মদত দিচ্ছে।” শান্তনু ঠাকুরকে উদ্দেশ্যে করে বলেন, ‘বনগাঁয় আগুন জ্বালাতে আসবেন না। তাহলে সেই আগুনে পুড়ে ছারখার হয়ে যাবেন।’ সূত্রের খবর, দিন কয়েক আগে বিজেপি কর্মী সুতনু দেবনাথকে লাঠি, লোহার রড, বন্দুকের বাট দিয়ে মারধর করে এক দল দুষ্কৃতী। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে বনগাঁ মহাকুমা হাসপাতাল থেকে কলকাতা পাঠানো হয়।

[আরও পড়ুন: বিজেপির প্রতিবাদ মিছিলে বাধা, পুলিশের সঙ্গে গেরুয়া শিবিরের খণ্ডযুদ্ধে রণক্ষেত্র দত্তপুকুর]

তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ এনে বিজেপি নেতা-কর্মীরা বনগাঁ শহরে প্রতিবাদ মিছিল করে, থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখান। পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তিও হয় বিজেপি কর্মীদের। পরের দিন দুষ্কৃতীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে বনগাঁ মহকুমার বিভিন্ন সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায় বিজেপি। বিজেপি সাংসদ শান্তনু ঠাকুর তাদের কর্মী আক্রান্ত হলে বনগাঁয় আগুন জ্বলবে বলে তৃণমূলকে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement