BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

করোনা সতর্কতা: জমায়েত এড়াতে এবার মতুয়া মেলা বন্ধের নির্দেশ দিল কলকাতা হাই কোর্ট 

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: March 19, 2020 9:01 pm|    Updated: March 19, 2020 9:01 pm

An Images

জ্যোতি চক্রবর্তী, বনগাঁ: করোনা ভাইরাসের আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়তেই সম্প্রতি ঠাকুরনগরের একাংশের মানুষেরা হাই কোর্টে মেলা বন্ধের আবেদন জানিয়েছিলেন। সেই মামলার পরিপ্রেক্ষিতে মঙ্গলবার হাই কোর্টের তরফে মেলা বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়।

নির্দেশ জারি হওয়ার পরেই গাইঘাটা থানার পক্ষ থেকে ঠাকুরনগরের ঠাকুরবাড়ি এলাকায় মাইকিং করে মেলার বন্ধের কথা প্রচার করেন। হাই কোর্টের নির্দেশকে  স্বাগত জানায় সারা ভারত মতুয়া মহাসংঘ সংঘাধিপতি মমতা ঠাকুর। শান্তনু ঠাকুরদের মতুয়া মহাসংঘের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, আদালতের নির্দেশ হাতে আসেনি। নির্দেশ হাতে আসার পর আলোচনা করে সিদ্ধান্ত জানানো হবে। অল ইন্ডিয়া মতুয়া মহাসংঘের পক্ষ থেকে মেলা বন্ধের বিষয় খোলাখুলি কিছু না বলায় ধোঁয়াশার সৃষ্টি হয়েছে৷

সূত্রের খবর, প্রতিবছর সারা ভারত মতুয়া মহাসংঘের পক্ষ থেকে মতুয়া ধর্মগুরু হরিচাঁদ ঠাকুরের জন্মতিথি মধুকৃষ্ণ ত্রয়োদশীতে গাইঘাটা ঠাকুরনগরের মতুয়া ঠাকুরবাড়িতে ওই ধর্ম মহামেলার আসর বসে। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে তো বটেই বাংলাদেশ-মায়ানমার থেকেও মতুয়া ভক্তরা মেলায় আসেন পূণ্য স্নান করতে। লক্ষ লক্ষ মতুয়া ভক্তের সমাগমে মেলা জমজমাট হয়ে ওঠে ৷

[আরও পড়ুন: ভেস্তে গেল নাশকতার ছক, বাদুড়িয়া থেকে ধৃত লস্কর ঘনিষ্ঠ কলেজ ছাত্রী ]

সম্প্রতি করোনা ভাইরাস ঠেকাতে সভা-সমিতি, মেলা বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে রাজ্য সরকার। এবছর ২২ শে মার্চ মতুয়া ধর্ম মহামেলা শুরু হওয়ার কথা। তার আগে ঠাকুরবাড়ির পরিকাঠামো নতুন করে সাজানো ও দোকানপাট তৈরির কাঠামো শুরু হয়েছিল। ঠাকুরনগরের সচেতন মানুষেরা প্রশ্ন তুলেছিলেন মেলায় লক্ষ লক্ষ মানুষ আসেন। ফলে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। পুলিশ প্রশাসনের ও সারা ভারত মতুয়া মহাসংঘের কাছে স্মারকলিপি দেয় তারা।

[আরও পড়ুন:করোনা সংক্রমণ এড়াতে বন্ধ তারাপীঠ মন্দির, অনলাইনেই হবে পুজো]

সম্প্রতি মেলা হবে কি হবে না, তা নিয়ে টানাপোড়েনের জেরে এবং মেলা আয়োজনের দায়িত্ব কারা পাবে সে বিষয়ে দুই সংঘের বিবাদ গড়ায় হাই কোর্টে। পাশাপাশি ঠাকুরনগর নাগরিক কমিটির পক্ষ থেকে মেলা বন্ধের আবেদন জানিয়ে হাই কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল। বৃহস্পতিবার হাই কোর্টের পক্ষ থেকে মতুয়া মহা ধর্মমেলা আয়োজন ‘না’ করার নির্দেশ দেওয়া হল। এই রায়কে স্বাগত জানিয়েছেন সারা ভারত মতুয়া মহাসংঘের সংঘাধিপতি মমতা ঠাকুর। তিনি বলেন, “হাই কোর্টের রায়কে স্বাগত জানাই। আমরা আগেই মেলা করব না বলে ঘোষণা করেছিলাম। মানুষের জীবনের দাম অনেক বেশি।” পাশাপাশি অল ইন্ডিয়া মতুয়া মহাসংঘের পক্ষ থেকে যুগ্ম  সংঘাধিপতি সুব্রত ঠাকুর বলেন, “হাইকোর্টের রায়ের কপি এখনো হাতে পাওয়া যায়নি৷ পাওয়ার পর আমরা আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেব।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement