২৩  শ্রাবণ  ১৪২৯  বুধবার ১০ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

কবে থেকে শুরু রাজ্যের জয়েন্ট এন্ট্রান্সের ই-কাউন্সেলিং? জেনে নিন দিনক্ষণ

Published by: Sayani Sen |    Posted: August 10, 2020 7:17 pm|    Updated: August 10, 2020 7:18 pm

E-Councelling of WBJEE to starts from next Wednesday

ছবি: প্রতীকী

দীপঙ্কর মণ্ডল: বুধবার থেকে শুরু হবে জয়েন্ট এন্ট্রান্সের ই-কাউন্সেলিং। এ রাজ্য থেকে জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষা দিয়ে যাঁরা র‍্যাঙ্ককার্ড পেয়েছেন তাঁদের কাউন্সেলিংয়ে কোনও ফি লাগবে না। তবে জেইই-মেইন প্রার্থীদের ৫০০ টাকা করে ফি দিতে হবে।

কাউন্সেলিংয়ের সময় প্রার্থীদের দশম শ্রেণীর অ্যাডমিট বা জন্মের শংসাপত্র, দশমের এবং দ্বাদশের মার্কশিট আপলোড করতে হবে। মোট তিনটি রাউন্ডে কাউন্সেলিংয়ে অংশ নিতে পারবেন ছাত্রছাত্রীরা। বাছাই করা যাবে কুড়িটি কলেজ। সরকারি ইঞ্জিনিয়ারিং এবং ফার্মেসিতে ভরতির ১০টি সংস্থা আছে। আসন সংখ্যা ২০৫৩। ইঞ্জিনিয়ারিং ও ফার্মেসিতে রয়েছে ৮৬ টি বেসরকারি কলেজ। আসন ২৮ হাজার ৪৯৩। সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে ১১টি। আসন সংখ্যা ২২৮৩। বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের সংখ্যা ৯। আসন রয়েছে ২০৬২। সব মিলিয়ে ১১৬ টি প্রতিষ্ঠানে আসন সংখ্যা ৩৪ হাজার ৮৯১।

[আরও পড়ুন: ‘তৃণমূল সার্কাসের দল, মুখ্যমন্ত্রী জোকার’, ফের বেলাগাম বিজেপি নেতা রাজু বন্দ্যোপাধ্যায়]

৭ আগস্ট প্রকাশিত হয়েছে চলতি বছরের জয়েন্ট এন্ট্রান্সের ফল। ৭৩ হাজার ১১৯ জন পরীক্ষায় বসেছিলেন। ৭২ হাজার ২৯৮ জন ছাত্রছাত্রীকে র‍্যাঙ্ককার্ড দেওয়া হয়েছে। শতকরা হিসেবে যা ৯৯%। রাজ্যের বেশ কয়েকটি কলেজে আসন সংখ্যা খালি থাকার প্রবণতা বেশ কয়েকবছর ধরে চলছে। তা আটকাতে এবছর খানিকটা আগেই ২ ফেব্রুয়ারি পরীক্ষা নেয় বোর্ড। তবে করোনার কারণে ফল প্রকাশ হতে দেরি হয়। বোর্ডের তরফ থেকে জানানো হয়েছে এবার কলেজগুলোতে মোট ৩৪৮৯১ টি আসন রয়েছে। উল্লেখ্য যে, এই সংখ্যার দ্বিগুণেরও বেশি ছাত্র-ছাত্রী এবার র‍্যাঙ্ককার্ড পেয়েছেন। প্রায় প্রতিবারই এই সংখ্যা দেখা যায়। মোটামুটিভাবে গড়ে ৯৭ থেকে ৯৯ শতাংশ ছাত্রছাত্রী র‍্যাঙ্ককার্ড পান প্রতিবার। তারপরও রাজ্যের বহু কলেজে আসন সংখ্যা ফাঁকা থেকে যায়। বাইরের রাজ্যে পড়তে চলে যান বহু ছাত্রছাত্রী। এবছর এই প্রবণতায় রাশ টানতে কিছু পদক্ষেপ করেছে বোর্ড।

এবার ছাত্রছাত্রীরা ১৭ হাজার ২৮৮টি কমন সার্ভিস সেন্টার থেকে অনলাইন কাউন্সেলিংয়ে অংশ নিতে পারবেন। কাউন্সেলিং এবং রেজিস্ট্রেশন এর জন্য কোনও টাকা নেওয়া হবেনা। এই সুযোগ বোর্ডের তরফে নিখরচায় দেওয়া হয়েছে পড়ুয়াদের। গুরুত্বপূর্ণ যে বিষয়টি বোর্ডের সিদ্ধান্তের উঠে এসেছে তা হলো, এবছর পড়ুয়াদের কমপক্ষে কুড়িটি করে ‘চয়েস’ জানাতে বলেছে বোর্ড। এর পাশাপাশি কাউন্সেলিংয়ের প্রতি পর্যায়ে পড়ুয়ারা নাম রেজিস্ট্রেশন করাতে পারবেন। বর্তমান পরিস্থিতিতে এই দুই পদক্ষেপ অত্যন্ত প্রয়োজনীয় ছিল বলে মনে করছে বোর্ড। wbjeeb.nic.in এবং wbjeeb.in এই দু’টি ওয়েবসাইটে প্রয়োজনীয় তথ্য জানানো হয়েছে।

[আরও পড়ুন: টিকিট কেটে আগাম সিট বুকিংয়ের সুবিধা, যাত্রীদের জন্য নতুন পরিষেবা চালু SBSTC’র]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে