BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

প্রাণ হারাচ্ছে প্রাণিজগৎ, পুরুলিয়ায় সচেতনতার প্রচারে হাজির অরণ্যদেব-ব্ল্যাক প্যান্থাররা!

Published by: Sulaya Singha |    Posted: September 8, 2020 6:22 pm|    Updated: September 8, 2020 7:10 pm

An Images

সুমিত বিশ্বাস, পুরুলিয়া: কমিকসের পাতায় পাতায় থাকা সুপারহিরোদের যুদ্ধজয়ের উপাখ্যানকে সামনে রেখেই জঙ্গল বাঁচিয়ে বন্যপ্রাণকে রক্ষা করার বার্তা দিচ্ছে বনদপ্তর। অরণ্যদেব, ব্যাটম্যান, স্পাইডারম্যান, ব্ল্যাক প্যান্থারের মতো সব সুপারহিরো। যাঁদের নাম অরণ্য ও বন্যপ্রাণ দ্বারাই অনুপ্রাণিত। তাই সেই জঙ্গল আর বন্যপ্রাণীদের বাঁচাতে ওই অতিমানবীয় শক্তির কাল্পনিক চরিত্রকেই হাতিয়ার করেছে বনবিভাগ। ‘সুপারহিরো’ হয়ে সাধারণ মানুষজনকে এগিয়ে আসার বার্তায় পুরুলিয়ার বনমহলজুড়ে পোস্টারিং করে ডিসপ্লে বোর্ড লাগাবে পুরুলিয়ার বনসম্প্রসারণ বিভাগ। পুরুলিয়ার এই কাজকে স্বীকৃতি দিয়ে সমগ্র রাজ্য জুড়েই জঙ্গল ও বন্যপ্রাণ রক্ষায় এই অভিনব সচেতনতার প্রচার চালানোরও সিদ্ধান্ত নিয়েছে বনদপ্তর।

চলতি মাসের গোড়াতেই এই কাজে হাত দিয়েছে পুরুলিয়ার (Purulia) ওই বিভাগ। তৈরি হয়ে গিয়েছে পোস্টারও। যেখানে ওই চার সুপারম্যানের ছবি পাশাপাশি রেখে তার তলায় নাম দিয়ে জঙ্গল বাঁচিয়ে বন্যপ্রাণ রক্ষায় আবেদন করছে। সবুজ পোস্টারে লেখা “এই সমস্ত সুপারহিরোদের নাম যে সব অরণ্য ও বন্যপ্রাণী দ্বারা অনুপ্রাণিত, তাদের বাঁচাতে আপনাকেই সুপারহিরো হয়ে এগিয়ে আসতে হবে। তবেই বাঁচবে এই পৃথিবী, রক্ষা পাবে এই সভ্যতা।” পুরুলিয়ার বনসম্প্রসারণ বিভাগের এই ভাবনাকে যেমন বাহবা জানিয়েছে দক্ষিণ পশ্চিম চক্রের মুখ্য বনপাল, তেমনই স্বয়ং বনমন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ও জঙ্গল ও বন্যপ্রাণ বাঁচাতে এই প্রচারে শীলমোহর দিয়েছেন। তাঁর কথায়, “অভিনব উদ্যোগ। জঙ্গল ও বন্যপ্রাণ বাঁচাতে সুপারহিরোর ভাবনার প্রচার শুধু শিশু-বালক কিংবা কিশোর মনই নয়, সকলের মন ছুঁয়ে যাবে। আমরা এই প্রচারকাজ সমগ্র রাজ্যজুড়েই করব।”

Super-hero

[আরও পড়ুন: ফিরতে পারে PUBG! ভারতের বাজার ধরে রাখতে বড় পদক্ষেপ দক্ষিণ কোরিয়ার সংস্থার]

আসলে কমিকসের এই কাল্পনিক চরিত্রগুলি সকলের মনেই গাঁথা। তাই মন ছুঁয়ে যাওয়া বহুল প্রচারিত বিষয়কে কোনও কঠিন তথা গুরুত্বপূর্ণ কাজে ব্যবহার করলে তা যেন অনেকটাই সহজ হয়ে যায়। সেই কারণেই এই কাজে কমিকসের পাতা থেকে অরণ্যদেব, ব্ল্যাক প্যান্থারদেরকে টেনে আনা, বলছে বনবিভাগ। পুরুলিয়ার বনসম্প্রসারণ বিভাগের ডিএফও অনুপম খাঁ বলেন, “চোরাশিকারীদের হামলায় বন্যপ্রাণদের জায়গাটা ক্রমশ ছোট হয়ে আসছে। তাই অপরাধীদের শায়েস্তা করতে সুপারহিরোরা অবতীর্ণ হয়েছেন। যাঁদের সঙ্গে জঙ্গল ও বন্যপ্রাণের নাম জড়িয়ে আছে। যেমন- অরণ্যদেবের সঙ্গে জঙ্গল বা অরণ্য। ব্যাটম্যানের ব্যাট থেকে বাদু়ড়। স্পাইডারম্যানের স্পাইডার মানে মাকড়সা। আর ব্ল্যাক প্যান্থার অর্থাৎ কালো চিতা।”

বনদপ্তরের কথায়, এই সুপারহিরোরা বিভিন্ন শ্রেণির বন্যপ্রাণের যেন প্রতিনিধিত্ব করছে। যেমন কবি নীরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তীর দেওয়া আফ্রিকার ফ্যান্টমের বাংলা নাম অরণ্যদেবের সঙ্গে সমগ্র জঙ্গল বোঝাচ্ছে। তেমনই আমেরিকান কমিকসের চরিত্রে থাকা ব্যাটম্যান বাদুড়ের মত স্তন্যপায়ী প্রাণীদের তুলে আনছে। একইভাবে নিউ ইয়র্কের কার্টুনিস্ট স্টিভ ডিটকোর স্পাইডারম্যান চরিত্র মাকড়সার মতো কীট-পতঙ্গ এবং মার্কিন কমিক বইয়ের পাতায় থাকা ব্ল্যাক প্যান্থার সুপারম্যান কালো চিতার মতো বিশালাকায় প্রাণীদের কথা মনে করিয়ে দিচ্ছে।

[আরও পড়ুন: বাগান তৈরির জায়গা নিয়ে ভাবনার দিন শেষ, গাছ দত্তক নিয়ে এখানেই লালনপালন করুন]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement