BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

করোনা দাপটের মাঝেই শুরু সীমান্ত বাণিজ্য, ৩৭ দিন পর খুলল পেট্রাপোল বন্দর

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: April 30, 2020 6:13 pm|    Updated: April 30, 2020 6:16 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ব্যুরো: ৩৭ দিন পর আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের জন্য খুলে দেওয়া হল ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তের পেট্রাপোল বন্দর। বৃহস্পতিবার মাস্ক পরেই জিরো পয়েন্টে ভারতীয় ট্রাক থেকে বাংলাদেশী ট্রাকে পণ্য ওঠানো-নামানোর কাজ করলেন শ্রমিকরা। দীর্ঘদিন পর কাজ ফিরে পাওয়ায় মুখে হাসি ফুটেছে তাঁদের। তবে এই পরিস্থিতিতে সীমান্ত খুলে দেওয়ায় সংক্রমণ বাড়ার আশঙ্কাও করছেন অনেকে। 

করোনা এদেশ ও প্রতিবেশী বাংলাদেশে থাবা বসাতেই মার্চের মাঝামাঝি সময়ে ভারত-বাংলাদেশের সংযোগকারী পেট্রোপোল স্থলবন্দর সাধারণ যাত্রীদের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়। কয়েকদিন পর সীমান্ত বাণিজ্যও বন্ধ হয়ে যায়।যার ফলে দু’পারে আটকে পড়ে বহু পণ্যবাহী ট্রাক। প্রবল সমস্যায় পড়েন সীমান্ত বাণিজ্যে যুক্ত কয়েক হাজার শ্রমিক। দু’দেশে একাধিক ট্রাক আটকে পড়ায় জটিলতার সৃষ্টি হয়। সেই কথা মাথায় রেখেই বুধবার বৈঠকে বসেন পেট্রাপোল সিঅ্যান্ডএফ স্টাফ ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক কার্তিক চক্রবর্তী ও আমদানি-রপ্তানি সমিতির সভাপতি পরিতোষ বিশ্বাস। বেনাপোল বন্দরের তরফে ছিলেন রপ্তানি সমিতির সহ-সভাপতি আমিনুল হক, সিঅ্যান্ডএফ অ্যাসোসিয়েশনের সহ-সভাপতি কামালউদ্দিন শিমুল ও সিঅ্যান্ডএফ স্টাফ এজেন্ট ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক সাজেদুর রহমান। সেই বৈঠকেই পরীক্ষামূলকভাবে সীমান্তবাণিজ্য শুরুর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

pettrapol

[আরও পড়ুন: করোনা আক্রান্ত লিলুয়া রেল হাসপাতালের কর্মী, উদ্বিগ্ন প্রশাসন]

সেই মতোই বৃহস্পতিবার সকালে দেশের বৃহত্তম স্থলবন্দর থেকে শুরু হয় পণ্য রপ্তানি। জানা গিয়েছে এদিন বিকেল পর্যন্ত কেবল একটি মাত্র ট্রাকের পণ্য রপ্তানি করা সম্ভব হয়েছে। সংগঠনের সম্পাদক কার্তিক চক্রবর্তী বলেন, “বাংলাদেশী ক্লিয়ারিং এজেন্টদের কাছে আমরা আবেদন করেছিলাম জিরো পয়েন্টে ট্রাকগুলি থেকে পণ্য ওঠানো-নামানোর কাজ শুরু করবার জন্য। সেইমতো আজ কাজ শুরু হয়েছে৷ তবে এটা পরীক্ষামূলকভাবে। পরবর্তীতে পরিস্থিতি অনুযায়ী পদক্ষেপ নেওয়া হবে। দীর্ঘদিন পর পণ্য রপ্তানি শুরু হওয়ায় খুশি রপ্তানিকারী থেকে শ্রমিকরা। এবিষয়ে নবান্ন থেকে মুখ্যসচিব বলেন, “সীমন্ত বাণিজ্যের বিষয়টি কেন্দ্র দেখে। আমরা এখনও এবিষয়ে কোনও সিদ্ধান্ত নিইনি। পাশাপাশি নবান্নের তরফে জানানো হয়েছে, প্রতিবেশি বাংলাদেশের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক ভাল। তাই বিষয়টি ভেবে দেখা হচ্ছে। তবে রাজ্য এবিষয়ে আপত্তি জানাবে না।

[আরও পড়ুন: বসিরহাটে করোনা পজিটিভ পোর্ট ট্রাস্টের কর্মী, কোয়ারেন্টাইনে স্ত্রী ও পুত্র]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement