৫ মাঘ  ১৪২৫  রবিবার ২০ জানুয়ারি ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফিরে দেখা ২০১৮ ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

নিজস্ব সংবাদদাতা, বনগাঁ: ৯ জন সদস্যকে নিয়ে বেড়াতে গিয়েছেন প্রধান। অফিসের মেন গেটে তালা, তিনদিন ধরে কাজকর্ম বন্ধ পঞ্চায়েতে। পরিষেবা না পেয়ে ক্ষুদ্ধ উত্তর ২৪ গোপালনগরের চৌবেড়িয়া ১ নম্বর পঞ্চায়েত এলাকার বাসিন্দারা। যদিও প্রধানের স্বামীর দাবি, তাঁর স্ত্রী বেড়াতে গিয়েছেন, একথা ঠিক। তবে পঞ্চায়েত অফিসে কাজে কোনও ব্যাঘাত ঘটছে না। বিষয়টি খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন বনগাঁর মহকুমা শাসক কাকলি মুখোপাধ্যায়।

[ছেলে-বউমা বাইরে, তালাবন্ধ বাড়িতে অগ্নিদগ্ধ হলেন অশীতিপর বৃদ্ধা]

গোপালনগরের চৌবেড়িয়া ১ নম্বর পঞ্চায়েতে আসনসংখ্যা ১৫টি। ১১টি আসনই শাসকদলের দখলে। বিজেপির সদস্য চারজন। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, পুরীতে বেড়াতে গিয়েছেন পঞ্চায়েত প্রধান কাকলি নন্দী। তাঁর সঙ্গে গিয়েছেন আরও ৯ সদস্য। প্রধানের অনুপস্থিতিতে পঞ্চায়েত অফিসে কাজকর্ম শিকেয় উঠেছে। সোমবার থেকে মেন গেটে তালা ঝুলছে। পাশের একটি গেট দিয়ে অবশ্য নিয়মমাফিক অফিসে আসছেন কর্মীরা। তবে কাজকর্ম কিছুই হচ্ছে না। প্রতিদিন পরিষেবা না পেয়ে ফিরে যেতে হচ্ছে গ্রামবাসীদের।  

চৌবেড়িয়া ১ নম্বর পঞ্চায়েতের প্রধান কাকলি নন্দীর স্বামীও শাসকদলের নেতা। তৃণমূল কংগ্রেসের ব্লক সভাপতি অলোক নন্দীর বক্তব্য, কয়েকদিনের জন্য পুরীতে ঘুরতে গিয়েছেন তাঁর স্ত্রী। তবে স্বাভাবিক নিয়মেই কাজকর্ম চলছে পঞ্চায়েতে। অভিযোগ ভিত্তিহীন। আর বনগাঁ দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক সুরজিৎ বিশ্বাসের সাফাই, ঠান্ডার জন্য কর্মীরা অফিসের দরজা-জানলা বন্ধ রেখেছেন। তাই অনেকেই ভাবছেন, পঞ্চায়েত অফিস বন্ধ! ঘটনাটি সত্যি নয়। এদিকে পঞ্চায়েতে কাজকর্ম নিয়ে অভিযোগের কথা জানেন বনগাঁর মহকুমা শাসক কাকলি মুখোপাধ্যায়ও। তিনি জানিয়েছেন, বিডিওকে বিষয়টি খতিয়ে দেখতে বলা হয়েছে। ঘটনাটি সত্যি হলে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

[ রুটি ব্যাংকের একশো দিন, বিরিয়ানি খেলেন স্টেশনের ভবঘুরেরা]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং