BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ঘরে ফিরেও ‘স্নেহের পরশে’র আবেদন, ৮ হাজার শ্রমিকের ফর্ম বাতিল করল প্রশাসন

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: April 27, 2020 7:27 pm|    Updated: April 27, 2020 7:27 pm

An Images

ছবি প্রতীকী

সৌরভ মাজি, বর্ধমান: লকডাউনে শ্রমিকদের সুবিধার্থে ‘স্নেহের পরশ’ প্রকল্প চালু করেছে রাজ্য সরকার। তবে ভিনরাজ্যে আটকে থাকা শ্রমিকরাই কেবল পাবেন এই প্রকল্পের সুবিধা। কিন্তু এই সুযোগকে কাজে লাগানোর চেষ্টা করেছিলেন এমন বহু শ্রমিক, যারা বাড়িতেই রয়েছেন। কিন্তু শেষরক্ষা হল না। ৮ হাজারের বেশি আবেদন বাতিল করল বর্ধমান জেলা প্রশাসন।

করোনা রুখতে আচমকাই দেশজুড়ে লকডাউন জারি হয়ে যায়। ফলত ভিনরাজ্যে আটকে পড়ে হাজার হাজার বাংলার শ্রমিক। যার ফলে প্রবল সমস্যায় পড়তে হয় তাঁদের। সেই সময় আটকে পড়া শ্রমিকদের কথা মাথায় রেখে ‘স্নেহের পরশ’ নামে কল্পের ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। ওই প্রকল্পে ভিনরাজ্যে আটকে পড়া পরিযায়ী শ্রমিকদের ১০০০ টাকা অনুদান দেওয়া হবে বলে জানানো হয়। জানিয়ে দেওয়া হয় আবেদনের পদ্ধতিও। শুরু হয় আবেদন জমা।

[আরও পড়ুন: কলকাতা, উঃ ২৪ পরগনার পর পূর্ব মেদিনীপুরে কেন্দ্রীয় দল, ঘুরে দেখল করোনা পরিস্থিতি]

কিন্তু অনলাইনে আবেদন পত্র জমা পড়ার পর মোবাইল নম্বরের অবস্থান খতিয়ে দেখে বাতিল করা হয় ৮২০০ ফর্ম। কারণ, জানা যায় এরা প্রত্যেকেই ফিরে এসেছেন বাড়িতে। তা সত্ত্বেও সরকারি অনুদান পেতে আবেদন করেছেন! জেলা শাসক বিজয় ভারতী জানান, জেলায় সোমবার পর্যন্ত ২১ হাজার ৬৯৯টি আবেদন জমা পড়েছে। কিন্তু তার মধ্যে ৮ হাজার ২০০টি বাতিল করা হয়েছে। পরবর্তীতে যাতে কোনও পরিযায়ী শ্রমিক প্রশাসনকে অন্ধকারে রেখে এই প্রকল্পের সুযোগ নেওয়ার চেষ্টা না করেও সে বিষয়েও নজর রাখা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

[আরও পড়ুন: বরাতের মূর্তি তৈরি শেষেও দেখা নেই ক্রেতার, চরম অনিশ্চয়তায় ডোকরা শিল্পীরা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement