BREAKING NEWS

২৩ আষাঢ়  ১৪২৭  বুধবার ৮ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

পুলওয়ামার শহিদ বাবলু সাঁতরার বাড়িতে রাজ্যপাল, পরিবারকে দিলেন ৫ লক্ষ টাকার চেক

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: March 3, 2020 1:40 pm|    Updated: March 3, 2020 1:40 pm

An Images

মনিরুল ইসলাম, হাওড়া: সস্ত্রীক পুলওয়ামায় শহিদ বাবলু সাঁতরার বাড়িতে গেলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়(Jagdeep Dhankhar)। দীর্ঘক্ষণ সেখানে থাকেন তাঁরা। বাবলু সাঁতরা স্ত্রী ও মায়ের হাতে তুলে দেন ৫ লক্ষ টাকার চেক। সেখান থেকে চেঙ্গাইল হাইস্কুলের উদ্দেশে রওনা হন তিনি।

dhankar-3

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ জম্মু থেকে কাশ্মীর যাওয়ার পথে পুলওয়ামার অবন্তিপুরাতে জঙ্গি হামলায় ৪৯ জন জওয়ান শহিদ হন। বাবলু তাঁদের মধ্যে অন্যতম। তিনি সিআরপিএফের ৩৫ নম্বর ব্যাটালিয়নের জওয়ান ছিলেন। ২০০০ সালে সিআরপিএফে যোগ দিয়েছিলেন বাবলু। তাঁর মৃত্যুর পরপরই অনেক নেতা-মন্ত্রীরা গিয়েছিলেন তাঁদের বাড়িতে। রাজ্য সরকারের তরফে আর্থিক সাহায্য প্রদান করা হয়েছে। এরপর এক বছর পেরিয়েছে। কিন্তু ছেলে হারানোর যন্ত্রণা এখনও টাটকা বনমালীদেবীর কাছে। তাই বাবলু সাঁতরাকে শ্রদ্ধা জানাতে মঙ্গলবার রাজ্যপাল তাঁদের বাড়ি যেতেই ফের কান্নায় ভেঙে পড়লেন বনমালীদেবী। বাবলুর ছবির সামনেই সান্ত্বনা দিয়ে বনমালীদেবীকে সামলে নিলেন রাজ্যপাল। 

dhankar-2

[আরও পড়ুন: দাবানলের গ্রাসে জলদাপাড়া জাতীয় অভয়ারণ্য, প্রাণহানির আশঙ্কা বহু জীবজন্তুর]

সূত্রের খবর, পূর্বের সূচি অনুযায়ী এদিন বেলা ১২ টা ৫০ নাগাদ হাওড়ায় বাবলু সাঁতরার বাড়িতে যান রাজ্যপাল। কথা বলেন বাবলুর মা বনমালীদেবী ও স্ত্রী মিতার সঙ্গে। তাঁদের হাতে ৫ লক্ষ টাকার চেক তুলে দেন রাজ্যপাল।

dhankar-4

ধনকড় বলেন, দেশের জন্য বাবলুর যা অবদান, তা কোনওভাবে টাকার বিনিময়ে মেটানো সম্ভব নয়। ভবিষ্যতেও সাঁতরা পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস দেন তিনি। ঘণ্টাখানেক সেখানে থাকার পর চেঙ্গাইলের একটি স্কুলের উদ্দেশে রওনা হন রাজ্যপাল। সেখানে একটি ভেন্ডিং মেশিন উদ্বোধনের পর কলকাতায় ফিরবেন তিনি।

[আরও পড়ুন: গায়ে ‘দিদিকে বলো’ টিশার্ট, আগুন নিভিয়ে রাতারাতি স্টার কুলটির কাউন্সিলর]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement