Advertisement
Advertisement
Kakdwip

দুবছর পর সুবিচার! নাবালিকা কন্যাকে ধর্ষণে ২০ বছরের জেল বাবার

মায়ের অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত বাবার বিরুদ্ধে ভারতীয় সংবিধানের পকসো আইনে মামলা হয়। গ্রেপ্তারির পর বিচারপ্রক্রিয়া শেষে সাজা ঘোষণা করল কাকদ্বীপ জেলা ও দায়রা আদালত।

Kakdwip court punishes father who convicted to harass daughter physically to 20 years of imprisonment

প্রতীকী চিত্র

Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:May 21, 2024 9:54 pm
  • Updated:May 22, 2024 12:49 pm

সুরজিৎ দেব, ডায়মন্ড হারবার: নাবালিকা কন্যাকে ধর্ষণের (Harass Daughter) অভিযোগে বাবাকে ২০ বছরের কারাদণ্ড বাবার। মঙ্গলবার সাজা শোনাল দক্ষিণ ২৪ পরগনার (South 24 Parganas) কাকদ্বীপ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজের আদালত। বিচারক সর্বাণী মল্লিক চট্টোপাধ্যায় অভিযুক্তকে দোষী সাব্যস্ত করে মঙ্গলবার ২০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানার নির্দেশ দেন। জরিমানা অনাদায়ে আরও ছ’মাসের কারাদণ্ডের নির্দেশ দেন বিচারক।

ঘটনা গত ২০২২ সালের। সে বছরের জুলাই মাসে পাথরপ্রতিমার (Pathar Pratima) বাসিন্দা সূর্যকান্ত মণ্ডলকে তাঁর স্ত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। অভিযুক্তের স্ত্রীর অভিযোগ ছিল, রাতে তিনি ও তাঁর স্বামী সূর্যকান্ত একটি ঘরে ও তাঁর ১৩ বছরের নাবালিকা কন্যা ঠাকুমার সঙ্গে অন্য ঘরে ঘুমোচ্ছিলেন। মেয়েকে ঘুম থেকে তুলে রান্নাঘরে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ (Rape) করে তাঁর স্বামী। আচমকাই ঘুম ভেঙে তিনি দেখেন, স্বামী বিছানায় নেই। ঘর থেকে বেরতেই দেখেন, রান্নাঘর থেকে স্বামী বেরোচ্ছে এবং তাঁর মেয়েটি কান্নাকাটি করছে। মেয়েকে জিজ্ঞেস করতেই মায়ের কাছে সব কিছু খুলে বলে সে। মেয়ের উপর এহেন নারকীয় ঘটনার প্রতিবাদ করলে তাঁকেও মারধর করে সূর্যকান্ত। প্রথমে লজ্জায় ও ভয়ে মুখ না খুললেও পরে তিনি পুলিশের কাছে গিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন। শুরু হয় তদন্ত।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ‘এমনি জিতে যাব…’, ঘাটালের ভোটের আগেই আত্মবিশ্বাসী দেব]

কাকদ্বীপ (Kakdwip) অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজের বিশেষ পকসো (POCSO Act) আদালতের সরকারি আইনজীবী হৈমবতী সিনহা বর্মা জানান, অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত বাবার বিরুদ্ধে ভারতীয় সংবিধানের পকসো আইনে মামলা হয়। গ্রেপ্তার করা হয় অভিযুক্তকে। এতদিন ধরে চলছিল বিচারপ্রক্রিয়া। মঙ্গলবার বিচারক সর্বাণী মল্লিক চট্টোপাধ্যায় অভিযুক্তকে দোষী সাব্যস্ত করেন এবং ২০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানার নির্দেশ দেন। জরিমানা অনাদায়ে আরও ছমাসের কারাদণ্ডের (Jail) নির্দেশ দেন বিচারক।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ‘রাম-রহিম, কেষ্ট-বিষ্টু কাউকে ছাড়ি না’, সন্দেশখালি ইস্যুতে বসিরহাটে দাঁড়িয়ে বললেন মমতা]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ