BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কাজের মাঝে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে শ্রমিকের মৃত্যু,আর্থিক সাহায্যের দাবিতে কারখানায় বিক্ষোভ

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: September 18, 2019 2:40 pm|    Updated: September 18, 2019 2:40 pm

An Images

আকাশনীল ভট্টাচার্য, বারাকপুর: বিশ্বকর্মা পুজোর আগের রাতে মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় একেবারে ম্লান হয়ে গেল উৎসবের রেশ। উত্তর ২৪ পরগনার বেলঘরিয়ায় হিন্দ সেরামিক শিল্পতালুক। কামারহাটি ২৪ নং ওয়ার্ডের অন্তর্গত এই এলাকা। মঙ্গলবার রাতে সেখানেই কাজ করতে গিয়ে দুর্ঘটনায় এক শ্রমিকের মৃত্যু হল। আর তাঁর পরিবারকে আর্থিক সাহায্যের দাবি তুলে আজ দিনভর কারখানার গেট আটকে বিক্ষোভ দেখালেন তাঁর সহকর্মীরা। তবে কারখানার তরফে এখনও সাহায্য করা নিয়ে কোনও আশ্বাস দেওয়া হয়নি বলে খবর।

[আরও পড়ুন: রোগীদের ভুল ইঞ্জেকশন দেওয়ার অভিযোগ, উত্তেজনা ধুবুলিয়া স্বাস্থ্যকেন্দ্রে]

বেলঘরিয়ায় নীলগঞ্জ রোডের উপর হিন্দ সেরামিক শিল্পতালুক। সেখানে প্রায় সাড়ে তিনশো ছোট ছোট কারখানা। সাধারণত এমব্রয়ডারির কাজ হয়। এছাড়া অন্যান্য হাতের কাজও হয়ে থাকে এই ছোট কারখানাগুলিতে। এমনই একটি কারখানায় কাজ করতেন নৈহাটির বাসিন্দা বছর পঁয়ত্রিশের রাজা সিংহ। মঙ্গলবার রাতে এমব্রয়ডারির কাজ করতে করতে হঠাৎই মেশিনে হাত লেগে যায় তাঁর। বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন তিনি। সহকর্মীরা তাঁকে তড়ঘড়ি উদ্ধার করে নিকটবর্তী সাগর দত্ত মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যান। চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।
এমন এক আকস্মিক ঘটনায় রাতেই কারখানা চত্বরে চাঞ্চল্য তৈরি হয়। কারখানার অন্যান্য শ্রমিকরা দাবি করেন, কাজ করাকালীনই যেহেতু মেশিনে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে তাঁর মৃত্যু হয়েছে, তাই এর দায় নিতে হবে কারখানা কর্তৃপক্ষকেই। মৃত রাজা সিংহের পরিবারকে আর্থিক সাহায্য দিতে হবে। আজ সকাল থেকে এই দাবিতেই কারখানার গেট আটকে রেখে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন শ্রমিকরা। যার জেরে শিল্পতালুকের অন্যতম বড় উৎসব বিশ্বকর্মা পুজোর আনন্দে ভাঁটা পড়ে যায়। পুজো ভুলে বিক্ষোভের জেরে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে হিন্দ সেরামিক শিল্পতালুক। সূত্রের খবর, এখনও কারখানা কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে আর্থিক সাহায্যের কোনও আশ্বাস পাওয়া যায়নি। যতক্ষণ না সেই আশ্বাস মেলে, ততক্ষণ তাঁরা আন্দোলন জারি রাখবেন বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন।

[আরও পড়ুন: বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন চা বিক্রেতাকে গুলি করে খুন, চাঞ্চল্য মুর্শিদাবাদে]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement