Advertisement
Advertisement
Lok sabha Election 2024

মমতার পর কেজরিওয়ালের পাশে অভিষেকও, ‘নাড্ডা জেলে থাকবেন না কেন?’, তুললেন প্রশ্ন

কালনায় কর্মীদের সঙ্গে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে নির্বাচনী বন্ড নিয়েও প্রশ্ন তোলেন অভিষেক।

Lok sabha Election 2024: Abhishek Banerjee supports jailed Arvind Kejriwal

নিজস্ব চিত্র।

Published by: Subhankar Patra
  • Posted:April 18, 2024 7:50 pm
  • Updated:April 18, 2024 7:50 pm

অভিষেক চৌধুরী, কালনা: ভোটের মুখে দিল্লির মুখ্য়মন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের গ্রেপ্তারি নিয়ে এবার গর্জে উঠলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার কালনায় দলীয় কর্মীদের সঙ্গে সাংগঠনিক বৈঠক থেকে বেরিয়ে কেজরি ইস্যুতে মুখ খুললেন অভিষেক। আবগারি দুর্নীতি মামলায় জেলে থাকা দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীর পাশে দাঁড়িয়ে তিনি প্রশ্ন তোলেন, ”যে আবগারি মামলায় কেজরিওয়াল জেলে, সেই একই মামলায় ৫৫ কোটি টাকা বিজেপির তহবিলে গিয়েছে ইলেক্টোরাল বন্ড মারফত। তাহলে সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা জেলে থাকবেন না কেন?”

আর কয়েক ঘণ্টা অপেক্ষা। তার পরেই শুরু এবারে লোকসভার প্রথম দফার (Lok Sabha Election 2024) নির্বাচন দেশের ১০২টি আসনের মধ্যে রাজ্যের তিনটি লোকসভা আসনে নির্বাচন।  তার আগে বৃহস্পতিবার কালনায় কর্মিসভা করেন অভিষেক। বৈঠক করে বেরিয়ে যাওয়ার সময় সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, “যে আবগারি দুর্নীতির নিয়ে কথা হচ্ছে তার ১০০ কোটির মধ্যে ৫৫ কোটি টাকা ইলেক্টোরাল বন্ডের মাধ্যমে গিয়েছে বিজেপির তহবিলে। অরবিন্দ কেজরিওয়াল জেলে থাকলে ইডির উচিত জেপি নাড্ডারকে গ্রেপ্তার করা।  জেপি নাড্ডা জেলে থাকবেন না কেন?”

Advertisement

[আরও পডুন: বড়সড় দুর্নীতির অভিযোগ, মালদ্বীপে ভোটের মুখে পর্দাফাঁস ভারত বিরোধী মুইজ্জুর!]

এর পর তাঁকে প্রশ্ন করা হয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (PM Narendra Modi) বলছেন, নির্বাচনী বন্ড ছিল বলেই কোন দলকে, কে বা কারা কত চাঁদা দিয়েছে, বোঝা সম্ভব হয়েছে। এবিষয়ে তিনি বলেন,” সে তো চেক জমা দিলেও বোঝা যেত। নির্বাচনী বন্ডের কী দরকার ছিল?”

Advertisement

[আরও পড়ুন: উত্তরে প্রকৃতির দুই রূপ, হাঁসফাঁস গরমে পুড়ছে সমতল, তুষারের চাদরে ঢেকেছে সিকিম]

প্রায় ১ মাস ধরে কেজরিওয়াল জেলবন্দি রয়েছেন। আবগারি দুর্নীতি মামলায় ইডি (ED) গ্রেপ্তার করেছে তাঁকে। কিছু ব্য়বসায়ীকে সুবিধা পাইয়ে দেওয়ার জন্য মোটা অঙ্কের টাকা পেয়েছে কেজরিওয়ালের দল, এমনই অভিযোগ ইডির। অন্যদিকে, কিছুদিন আগে প্রকাশিত নির্বাচনী বন্ডের হিসাব অনুযায়ী, অরবিন্দ ফার্মা নামের একটি সংস্থার তরফে বিজেপি-র তহবিলে ৫৫ কোটির বেশি চাঁদা গিয়েছে। সেই প্রসঙ্গ টেনেই আপ সুপ্রিমোর পাশে দাঁড়ালেন অভিষেক। পাশাপাশি প্রশ্ন তুললেন বিজেপি নেতাদের বিরুদ্ধে আইনি শৈথিল্য নিয়েও। 

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ