Advertisement
Advertisement
Lok Sabha Election 2024

ভোটের আগেই মেদিনীপুরে অ্যাকশনে পুলিশ! মাঝরাতে দরজা ভেঙে গ্রেপ্তার BJP নেতা

কেশিয়ারিতে ভোটপ্রচারে আসা দুই বিজেপি নেতাকে হেনস্তার অভিযোগ উঠেছে।

Lok Sabha Election 2024: BJP leader arrested at Kharagpur
Published by: Paramita Paul
  • Posted:May 22, 2024 11:36 am
  • Updated:May 22, 2024 12:25 pm

অংশুপ্রতিম পাল, খড়গপুর: ভোট(Lok Sabha Election 2024) আবহে মেদিনীপুরজুড়ে একের পর এক বিজেপি নেতার বাড়িতে পুলিশি অভিযান। কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে তো কাউকে হেনস্তার অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে। খড়গপুর বিজেপির মণ্ডল সভাপতিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আবার কেশিয়ারিতে ভোটপ্রচারে আসা দুই বিজেপি নেতাকে হেনস্তার অভিযোগ উঠেছে। আবার ভোররাতে ঘাটালের বিজেপি প্রার্থীর আপ্তসহায়কের বাড়িতে হানা দেয় তারা। সবমিলিয়ে পশ্চিম মেদিনীপুরজুড়ে পুলিশি নজরে বিজেপি নেতারা।

খড়গপুর টাউন থানার পুলিশ বিজেপির খড়গপুর শহর মধ্য মণ্ডলের সভাপতি ডি তারকেশ্বর রাও। বুধবার ভোররাতে বাড়ি থেকে গ্ৰেপ্তার করেছে পুলিশ। অভিযোগ, দরজা ভেঙে বাড়িতে ঢোকে তারা। দলের এক কর্মীকে মারধরের অভিযোগ রয়েছে তারকেশ্বরের বিরুদ্ধে। তবে ধৃতের পরিবারের দাবি, সমস্ত অভিযোগ মিথ্যা। পুলিশ জোর করে ফাঁসিয়েছে। জানা গিয়েছে, ২১ এপ্রিল খড়গপুরের ১৮ নম্বর ওয়ার্ডে বিজেপি দপ্তরে বসে মদ্যপান চলছিল। দলীয় এক কর্মী এর প্রতিবাদ করেন। তখনই তাঁকে মারধর করা হয়। বাঁচাতে তাঁর স্ত্রী এগিয়ে এলে তাঁকেও হেনস্তা করা হয়। অভিযোগ, তারকেশ্বর রাও বিষয়টিতে ইন্ধন জুগিয়েছিলেন। তাঁর বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ রয়েছে। এই ঘটনার ভোটের দিন তিনেক আগে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হল। এর প্রতিবাদে খড়গপুর টাউন থানা ঘেরাও করে প্রতিবাদ দেখাচ্ছে বিজেপি কর্মীরা।

Advertisement

[আরও পড়ুন: নিউটাউনে ‘খুন’ বাংলাদেশের সাংসদ, ৮ দিন নিখোঁজ থাকার পর উদ্ধার দেহ]

অন্যদিকে অসমের হাইলাকান্দি পুরসভা এলাকা থেকে দুই বিজেপি নেতা এসেছিলেন কেশিয়ারিতে। সেখানে তাঁরা প্রচার করছিলেন। তাঁদের পুলিশি হেনস্তা করা হয়েছে বলেও খবর। আরেক বিজেপি নেতা সৌমেন মিশ্রর বাড়িতেও হানা দেয় পুলিশ। তবে তিনি না থাকায় তাঁর স্ত্রীর দরজা খোলেননি।

Advertisement

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার রাত থেকে অ্যাকশনে নেমেছে পুলিশ। প্রথমে কোলাঘাটে শুভেন্দুর ভাড়াবাড়ি কাম অফিসে তল্লাশি চালায় তারা। এর পর বিজেপি প্রার্থী হিরণের আপ্ত সহায়কের তালবাগিচার বাড়িতে হানা দেয় ঘাটাল থানার পুলিশ। তার পর একযোগে স্থানীয় তিন বিজেপি নেতার বাড়িতে হানা দেয় তারা।

[আরও পড়ুন: চোখ রাঙাচ্ছে ‘রেমাল’, ষষ্ঠ দফা ভোটে ঝড় সামলাতে কী পদক্ষেপ নির্বাচন কমিশনের?]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ