Advertisement
Advertisement
Fire

মহেশতলায় গেঞ্জি কারখানায় ভয়াবহ আগুন, ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা

দমকলের ৪ টি ইঞ্জিন যুদ্ধকালীন তৎপরতায় আগুন নেভানোর কাজ করছে।

Massive fire breaks out at a cloth factory at Mollar Gate, Maheshtala | Sangbad Pratidin
Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:May 23, 2022 12:06 pm
  • Updated:May 23, 2022 1:14 pm

সুরজিৎ দেব, ডায়মন্ড হারবার: সাতসকালে দক্ষিণ ২৪ পরগনার মহেশতলায় (Maheshtala) অগ্নিকাণ্ড। একটি গেঞ্জির কারখানায় বিধ্বংসী আগুন (Fire) লেগে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ল। দমকলের চারটি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার কাজ শুরু করে। মোল্লার গেটের কাছে এই ঘটনায় আশপাশের বাসিন্দারা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। দমকল কর্মীরা কারখানার ভিতরে ঢুকে আগুন নেভানোর কাজে ঝাঁপিয়ে পড়েন।

Advertisement

মহেশতলার মোল্লার গেট খালপাড় এলাকার একটি গেঞ্জি কারখানার গুদাম ঘরে সকাল ৯ টা নাগাদ ভয়াবহ আগুন লেগে যায়। খবর শুনে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় দমকলের চারটি ইঞ্জিন (Fire tenders)। যুদ্ধকালীন তৎপরতায় আগুন নেভানোর কাজ করছে। পুলিশও পৌঁছয় ঘটনাস্থলে রয়েছে। দমকল কর্মীদের দাবি, শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত যন্ত্র (AC) থেকে এই আগুন লেগেছে। তবে দমকলের প্রাথমিক লক্ষ্য, আপাতত আগুন নিয়ন্ত্রণে এনে ক্ষয়ক্ষতি বুঝে দেখা।

Advertisement

[আরও পড়ুন: নবান্নে মন্ত্রিসভার বৈঠক, রয়েছে একাধিক জরুরি আলোচনা, তলব করা হল শুভেন্দু অধিকারীকে]

সূত্রের খবর, এখনও পর্যন্ত সম্পূর্ণরূপে আগুন নিয়ন্ত্রণের না এলেও যে বিভীষিকা তৈরি হয়েছিল, তা অনেকটাই কমেছে। কারখানার ভিতরে কোনও কর্মী না থাকায় প্রাণহানি হয়নি। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ এখনও জানা যায়নি। তবে প্রচুর ক্ষতির আশঙ্কা করছে কারখানা কর্তৃপক্ষ। মোল্লার গেট এলাকায় এমন অগ্নিকাণ্ডের জেরে বাসিন্দারা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। তবে দমকল কর্মীরা তাঁদের আশ্বস্ত করেছেন। অগ্নিকাণ্ডের জেরে আপাতত বন্ধ রাখা হয়েছে কারখানাটি। এখনও এ বিষয়ে কর্তৃপক্ষের মুখে কুলুপ। আগুন লাগার কারণ খতিয়ে দেখবে দমকল।

[আরও পড়ুন: অজয় দেবগনের স্টাইলে দু’টি গাড়ির মাঝে দাঁড়িয়ে কেরামতি, তারপরই বিপাকে যুবক]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ