BREAKING NEWS

৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বুধবার ২৫ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে ছাই পরপর ৬টি কারখানা, দীপাবলির মুখে মাথায় হাত ব্যবসায়ীদের

Published by: Sayani Sen |    Posted: November 9, 2020 9:53 am|    Updated: November 9, 2020 10:00 am

An Images

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আচমকা আগুনে (Fire) কার্যত জতুগৃহের রূপ নিল হাওড়ার ডোমজুড়ের ভাসকুর বেলতলা এলাকা। পরপর পুড়ে ছাই ছ’টি কারখানা। ভস্মীভূত প্লাস্টিক, জামাকাপড়, চানাচুর এবং পাইপ তৈরির কারখানা। অগ্নিকাণ্ডে কয়েক লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলেই অনুমান। দীপাবলির মুখে বড়সড় ক্ষতির মুখে ব্যবসায়ীরা।

ঘড়ির কাঁটায় তখন সোমবার ভোর সাড়ে চারটে হবে। হালকা শীতের আমেজ গায়ে জড়িয়ে তখনও ঘুমোচ্ছিলেন প্রায় সকলে। আচমকাই ডোমজুড়ের (Domjur) ভাসকুর বেলতলা এলাকায় প্রথমে পাইপ তৈরির কারখানায় আগুন লেগে যায়। সেখানে রাতেও কাজ হচ্ছিল। তারই মাঝে অগ্নিকাণ্ডে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন কর্মীরা। মুহূর্তের মধ্যেই আগুন ছড়িয়ে পড়ে। স্থানীয় বাসিন্দারা জড়ো হয়ে যান। জল ঢেলে আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন। তবে আগুন আয়ত্তে আসেনি। দমকলকে খবর দেওয়া হয়। একে একে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় দমকলের ৬ টি ইঞ্জিন। তবে ততক্ষণে প্লাস্টিক, জামাকাপড়, চানাচুর এবং পাইপ তৈরি-সহ পাশের ছ’টি কারখানায় আগুন ছড়িয়ে পড়েছে। প্রায় ঘণ্টাখানেকের চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে।   

[আরও পড়ুন: হুগলি জেলা কমিটি ঘোষণার পরই তৃণমূলের অন্দরে তীব্র অসন্তোষ, দলত্যাগের হুমকি বিধায়কের]

দমকল কর্মীদের প্রাথমিক অনুমান, শর্ট সার্কিটের ফলে এই অগ্নিকাণ্ড। দাহ্য পদার্থ মজুত থাকায় আগুন পাশের কারখানাগুলিতে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। তবে ওই কারখানাগুলিতে অগ্নি নির্বাপণ ব্যবস্থা কতটা আঁটসাঁট ছিল তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ছ’টি কারখানা ভস্মীভূত হয়ে যাওয়ায় বেশ কয়েক লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। দীপাবলির আগেই বিপুল ক্ষতিতে মাথায় হাত ব্যবসায়ীদের।

[আরও পড়ুন: রাজ্যে দৈনিক আক্রান্তের তুলনায় সুস্থতার হার অনেক বেশি, চিন্তা বাড়াচ্ছে কলকাতার কোভিড গ্রাফ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement