২৭ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  শনিবার ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজ্যে আরও খানিকটা বাড়ল শীতের আমেজ। বুধবার একলাফে নামল দু’ডিগ্রি তাপমাত্রা। কলকাতাতেও তাপমাত্রা স্বাভাবিকের তুলনায় কমল। ফলে সাত-সকালে হালকা ঠান্ডার পরিবেশ শহরজুড়ে।

দিন কয়েক ধরে ভোরের দিকে খানিকটা ঠান্ডা ভাব থাকলেও বেলা গড়াতেই উধাও হয়ে যাচ্ছিল হিমেল আমেজ। শহরবাসী প্রমাদ গুনছিলেন কবে দেখা মিলবে শীতের। হাওয়া অফিস জানিয়েছিল, সপ্তাহের শেষে তাপমাত্রা কিছুটা হলেও কমবে। পারদ নামবে কলকাতা এবং দুই চব্বিশ পরগনায়। তবে বুধবার সকালেই সেই শীতল আমেজের স্বাদ পেলেন কলকাতাবাসী। এদিন শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সর্বনিম্ন ১৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম। কলকাতার পাশাপাশি তাপমাত্রা কমেছে পশ্চিমের জেলাগুলিতেও। পুরুলিয়া, পশ্চিম বর্ধমান, ঝাড়গ্রাম-সহ বিভিন্ন জেলাগুলিতে এদিন তাপমাত্রা ১৪ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে রয়েছে। রাজ্যে ঢুকেছে উত্তর-পশ্চিম ঠান্ডা বাতাস। আর তার জেরেই কমছে তাপমাত্রা বলে খবর।

[আরও পড়ুন: চাই পুত্রসন্তান, শিশু বদলের গল্প ফেঁদে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে দোষারোপ পরিবারের]

প্রত্যেক বছর নভেম্বরের তৃতীয় সপ্তাহে তাপমাত্রা ২০ ডিগ্রির কাছাকাছি থাকলেও এবার কিন্তু তেমন লক্ষণ দেখা যাচ্ছিল না। তবে বুধবার কলকাতায় সাময়িক হলেও খানিকটা শীতের আমেজ অনুভূত হল। সপ্তাহের শেষে তাপমাত্রা আরও নিম্নমুখী হবে বলেই খবর। আবহাওয়া দপ্তরের এক শীর্ষ আধিকারিক জানিয়েছিলেন, আগামী শনিবার নাগাদ তাপমাত্রার পারদ নামবে। তাঁর কথায়, “কলকাতা বা দুই চব্বিশ পরগনার নিরিখে এই তাপমাত্রাকে শীত বা ঠান্ডা হিসেবে আখ্যা দেওয়া কতটা সমীচীন, তা নিয়ে সংশয় রয়েছে।”

মঙ্গলবার দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৯.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সর্বোচ্চ ২৮.৬। সর্বোচ্চ আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ ছিল ৯৬% এবং সর্বনিম্ন ৪৬%। সারা সপ্তাহ আকাশ পরিষ্কার থাকার সম্ভাবনা। তবে শুক্রবার থেকে সকালের দিকে কুয়াশা হতে পারে বলেই জানিয়েছেন আবহবিদরা।

[আরও পড়ুন: ডেঙ্গুর বলি আরও ১ শিশু, লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং