BREAKING NEWS

০২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বন্যা পরিস্থিতির মাঝেই উত্তরের জেলাগুলিতে আরও ভারী বর্ষণের পূর্বাভাস

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: July 17, 2020 10:58 am|    Updated: July 17, 2020 10:58 am

MET predicts heavy rainfall in North Bengal's five district

ফাইল ছবি

নব্যেন্দু হাজরা: একেই বন্যা পরিস্থিতি, উপরন্তু আরও ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে উত্তরবঙ্গের (North Bengal) পাঁচ জেলায়। হাওয়া অফিস সূত্রে খবর, মৌসুমী অক্ষরেখার টানে প্রচুর জলীয় বাষ্প ঢুকবে রাজ্যে। যার প্রভাবে ফের উত্তরবঙ্গ-সহ উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলিতে প্রবল বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা জারি থাকছে।

আবহাওয়া দপ্তর (Weather Report) সূত্রে খবর, শুক্র ও শনিবার বিক্ষিপ্তভাবে দু’-এক পশলা ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে। দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার এবং কোচবিহার- এই পাঁচ জেলায় বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির সম্ভাবনা এই ২ দিন। শনিবার রাত থেকেই বৃষ্টি আরও বাড়বে। রবিবার দিনভর ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকছে সংশ্লিষ্ট এই পাঁচ জেলায়। সোমবারও আবহাওয়ার উন্নতির আশা দেখছে না হাওয়া অফিস। প্রবল বর্ষণের সম্ভাবনা উত্তরবঙ্গে। উত্তরের ওই পাঁচ জেলার কোথাও কোথাও ২০০ মিলি মিটারের বেশি বৃষ্টিপাতের আশঙ্কা রয়েছে। ভারী বৃষ্টি হবে মালদা, উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুরেও। এই তিন জেলায় বৃষ্টির সঙ্গে বজ্রবিদ্যুতেরও পূর্বাভাস রয়েছে।

[আরও পড়ুন: থানায় বিজেপি কর্মীদের মাংস-ভাত কাণ্ডে এবার বদলি জলপাইগুড়ির পুলিশ সুপার]

আগামী সপ্তাহের গোড়ায় উত্তরবঙ্গ-সংলগ্ন দক্ষিণের জেলাগুলিতে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। বজ্রগর্ভ মেঘ থেকে বিক্ষিপ্ত হালকা বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলায়। রবিবার থেকে বৃষ্টি বাড়বে। মূলত উত্তরবঙ্গ লাগোয়া বীরভূম মুর্শিদাবাদে দু-এক পশলা ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলায় আংশিক মেঘলা আকাশ থাকার সঙ্গে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টির সম্ভাবনাও রয়েছে।

কলকাতায় আংশিক মেঘলা আকাশ। দু-এক পশলা বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা। বাতাসে জলীয় বাষ্প বেশি থাকায় আদ্রতাজনিত অস্বস্তি বাড়বে। সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৭.৬ ডিগ্রি। গতকাল সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩.১ ডিগ্রি। বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ সর্বোচ্চ ৯০ শতাংশ। মৌসুমী অক্ষরেখা সক্রিয়। অক্ষরেখা জামশেদপুর, দিঘা হয়ে বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত। এর সঙ্গে রয়েছে মধ্যপ্রদেশ-সংলগ্ন এলাকায় ঘূর্ণাবর্তের সম্ভাবনা।

[আরও পড়ুন: দীর্ঘ ৫৭ বছর রোগী দেখে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে নাম তুললেন ‘এক টাকার ডাক্তার’]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে