BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ফের ধেয়ে আসছে কালবৈশাখী, শনিবার পর্যন্ত রাজ্যে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: April 22, 2020 9:39 am|    Updated: April 22, 2020 9:39 am

An Images

নব্যেন্দু হাজরা: হাওয়া অফিস আগেই পূর্বাভাস দিয়েছিল। জানিয়েছিল আগামী কয়েক দিন বৃষ্টিতে ভিজবে রাজ্য। পূর্বাভাসকে সত্যি করে সোমবার থেকেই শুরু হয়েছে বৃষ্টিপাত। মঙ্গলবারও তার হেরফের হয়নি! সন্ধে নামতেই বৃষ্টি। সঙ্গে ছিল বজ্রবিদ্যুৎ-সহ ঝোড়ো হাওয়ার দাপট। নিম্নচাপ অক্ষরেখার জেরে প্রচুর জলীয়বাষ্প ঢুকছে রাজ্যে। যার জেরে বজ্রগর্ভ মেঘ থেকে ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। আগামী শনিবার পর্যন্ত রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় বিক্ষিপ্ত ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনার কথা জানাল আবহাওয়া দপ্তর।

সোমবার থেকেই ঝড়-বৃষ্টির জেরে কলকাতার তাপমাত্রা প্রায় স্বাভাবিকের নিচে নেমে গিয়েছে। বুধবার সকালেও আকাশের মুখ ভার। সকালের একচিলতে রোদ দেখা দিলেও যদিও আবার মেঘের ভীড় আকাশে। বুধবার সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে ৪ ডিগ্রি নিচে। উল্লেখ্য, মঙ্গলবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২১.৭ ডিগ্রি। গতকাল সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৬.৬ ডিগ্রি। যা স্বাভাবিকের তুলনায় ৯ ডিগ্রি কম। বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ ৬৫ থেকে ৯৫ শতাংশ। হাওয়া অফিসের রিপোর্ট বলছে, গত ২৪ ঘন্টায় বৃষ্টি হয়েছে ৪.৫ মিলিমিটার।

[আরও পড়ুন: সংকটের মাঝে আশার আলো, সু্স্থ সন্তানের জন্ম দিলেন করোনা আক্রান্ত বধূ]

বুধবারও দক্ষিণবঙ্গের বেশ কিছু জেলায় কালবৈশাখীর সম্ভাবনা রয়েছে। ৫০ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে ঝড় এবং সঙ্গে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে হাওয়া অফিস। ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা বেশি রয়েছে নদীয়া, হাওড়া, হুগলি, কলকাতা এবং দুই ২৪ পরগনায়। ঝড়-বৃষ্টির কোপ থেকে বাদ পড়েনি উত্তরের জেলাগুলিও। দক্ষিণবঙ্গের পাশাপাশি উত্তরবঙ্গেও ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার গতিবেগে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ ঝড়-বৃষ্টির পূর্বাভাস দিল হাওয়া অফিস।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার অর্থাৎ আগামীকাল উত্তরবঙ্গ এবং সিকিমে ঝড়-বৃষ্টির পরিমাণ বাড়তে পারে। দক্ষিণবঙ্গের কিছু জেলায় বিক্ষিপ্তভাবে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনাও রয়েছে। তবে আগামীকাল ঝড়-বৃষ্টির মাত্রা কিছুটা দমলেও শুক্রবার কিন্তু ফের রাজ্যজুড়ে প্রবল ঝড়-বৃষ্টি বাড়ার কথা জানিয়েছে হাওয়া অফিস। উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে, বিশেষ করে শিলিগুড়ি-দার্জিলিংয়ে শিলাবৃষ্টি এবং কালবৈশাখীর সম্ভাবনা রয়েছে। গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের জেলাগুলিতেও বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টি সঙ্গে কালবৈশাখীর সম্ভাবনা। এই ঝড়-বৃষ্টি চলবে আগামী শনিবার পর্যন্ত। ঘূর্ণাবর্ত ও নিম্নচাপ অক্ষরেখার প্রভাবে পূর্ব ও উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলিতে আগামী ৪-৫ দিন ব্যাপক ঝড়-বৃষ্টি ও শিলা বৃষ্টি হতে পারে। অসম, মেঘালয়, মণিপুর, মিজোরাম, ত্রিপুরা এবং অরুণাচল প্রদেশেও ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা প্রবল।

[আরও পড়ুন: লকডাউনে খাদ্যাভাব মেটাতে উদ্যোগ, ‘অন্নদাত্রী’ অ্যাপে ধান কেনাবেচা করবে রাজ্য সরকার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement