৫ ফাল্গুন  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

নব্যেন্দু হাজরা: বিদায়ের পথে শীত। প্রায় প্রতিদিনই একটু একটু করে বাড়ছে তাপমাত্রা। তারই মাঝে ফের রাজ্যে বৃষ্টির পূর্বাভাস। তবে দক্ষিণবঙ্গ নয়, এবার বৃষ্টিতে ভিজতে পারে উত্তরের জেলাগুলি। আগামী সপ্তাহে তাই শীত পোশাকের পাশাপাশি ছাতাও সঙ্গে নিয়ে বাড়ি থেকে বেরোতে হবে উত্তরবঙ্গবাসীকে।

আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস অনুযায়ী, গত সপ্তাহ থেকেই বাড়তে শুরু করেছে তাপমাত্রার পারদ। শনিবার ২ ডিগ্রি বেড়ে শহরের তাপমাত্রা ১৭.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শুক্রবার কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৯.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ ৩৭ থেকে ৯৬ শতাংশ। আর নতুন করে তাপমাত্রা কমার কোনও সম্ভাবনা নেই। হাওয়া অফিস সূত্রে খবর, উত্তুরে হাওয়া থাকায় আপাতত রাতে এবং ভোরের দিকে হালকা শীতের আমেজ বজায় থাকবে। বেলা যত বাড়ছে, গরম তত বাড়বে। দিনের তাপমাত্রা বাড়ছে ঠিকই। তবে আগামী ৪৮ ঘণ্টায় রাতের তাপমাত্রার খুব বেশি হেরফের হবে না। দক্ষিণবঙ্গে আপাতত বৃষ্টির কোনও সম্ভাবনা নেই।

[আরও পড়ুন: কন্যাশ্রীর সার্টিফিকেটের বিনিময়ে কাটমানি চাওয়ার অভিযোগ, কাঠগড়ায় তৃণমূল নেতা]

তবে উত্তরবঙ্গের জন্য রয়েছে দুঃসংবাদ। কারণ, শীত বিদায়ের সময়েও হালকা বৃষ্টিতে ভিজতে পারে উত্তরবঙ্গ। আবহাওয়াবিদদের দাবি, নতুন করে তৈরি হওয়া পশ্চিমি ঝঞ্ঝার জেরে আগামী সপ্তাহে বৃষ্টিতে ভিজতে পারে উত্তরের জেলাগুলি। বিশেষত মঙ্গলবার দার্জিলিং, কালিম্পংয়ে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। বুধবার পর্যন্ত বৃষ্টি চলবে সিকিমেও। অরুণাচল প্রদেশ-সহ উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলিতেও বৃষ্টির সম্ভাবনা এড়ানো যাচ্ছে না। বুধবার বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিতে ভিজতে পারে ওই রাজ্যগুলি।

তবে শীতবিলাসীদের একটাই প্রশ্ন, এবার কি পাকাপাকিভাবে শীত বিদায় নেওয়ার সময় চলে এসেছে? শীতের পোশাক আলমারিতে গুছিয়ে রাখতে হবে? যদিও এ বিষয়ে এখনও পর্যন্ত আবহাওয়া দপ্তর নিশ্চিতভাবে কিছুই জানায়নি। আপাতত হালকা শীতের আমেজকে পুঁজি করেই দিন কাটছে শীতবিলাসীদের।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং