BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

জইশের মতো নিষিদ্ধ হোক বিজেপি, ফিরহাদ হাকিমের মন্তব্য ঘিরে বিতর্ক

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: April 20, 2019 9:26 pm|    Updated: April 20, 2019 9:26 pm

An Images

নন্দন দত্ত, সিউড়ি:  বীরভূমের তৃণমূল প্রার্থী শতাব্দী রায়ের সমর্থনে সাঁইথিয়ার জনসভা থেকে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন রাজ্যের মন্ত্রী  ফিরহাদ হাকিম। সভা থেকে বিজেপিকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করার দাবি তোলেন তিনি। তাঁর কথায়, ‘জইশ-ই-মহম্মদকে যখন নিষিদ্ধ করা হয়েছে, তখন সাধ্বী প্রজ্ঞাকে প্রার্থী করার অপরাধে বিজেপিকেও নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হোক।’ সেইসঙ্গে প্রধানমন্ত্রীকে ‘গব্বর সিং’-এর সঙ্গে তুলনাও করেছেন ফিরহাদ৷ তাঁর এই মন্তব্য ঘিরে ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে বিতর্ক৷

                                         [আরও পড়ুন: দিনের পর দিন বন্ধ স্কুল, মিড-ডে মিল না পেয়ে হতাশ পড়ুয়ারা]

ভোপালের বিজেপি প্রার্থী সাধ্বী প্রজ্ঞাকে নিয়ে বিতর্কের মুখে পড়তে হয়েছে বিজেপিকে। এবার সাধ্বী প্রজ্ঞার নাম নিয়ে বিজেপিকে বিঁধলেন রাজ্যের পুর-নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। বীরভূমের দলীয় প্রার্থী শতাব্দী রায়ের সমর্থনে শনিবার সাঁইথিয়ার নির্মীয়মাণ বাসস্ট্যান্ড চত্বরে জনসভা করেন তিনি৷ সভায় উপস্থিত ছিলেন জেলা সভাধিপতি বিকাশ রায়চৌধুরী, অভিজিৎ রানা সিংহ-সহ জেলা তৃণমূলের নেতা, কর্মীরা। সেখান থেকেই  বিজেপিকে তোপ দেগেছেন ফিরহাদ৷ সভার শুরু থেকেই বিজেপির প্রতি তীব্র আক্রমণাত্মক ছিলেন তিনি৷ 

বিজেপিকে কটাক্ষ করে ফিরহাদ বলেন, ‘শুধু নির্বাচনের সময়ই নয়, সারা বছর আমাদের সঙ্গে থাকতে হবে। মাঝেমধ্যে দু-একটা বিষ দাঁত জন্মাবে। সে শরীরে বিষ পুরোপুরি বসিয়েও দেবে। সাম্প্রদায়িকতার ফ্লু ছড়িয়ে এলাকাকে বিষাক্ত করে তুলবে। তাই সাবধান থাকতে হবে সকলকে।’ পাশাপাশি,  মোদিকে ‘গব্বর সিং’ ও বিজেপির এ রাজ্যের পর্যবেক্ষক কৈলাশ বিজয়বর্গীকে ‘চম্বলের ডাকাত’ বলেও কটাক্ষ করেন তিনি।      

[আরও পড়ুন: একই বেডে ৩ জোড়া মা-শিশু! ঠাসাঠাসিতে সদ্যোজাতের মৃত্যু সরকারি হাসপাতালে]

এরপরই  বিজেপিকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করার দাবিতে সরব হন ফিরহাদ হাকিম। পুলওয়ামা কাণ্ড প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বিজেপি নিজেদের অপদার্থতার জন্য কাশ্মীরে ৪২ জন সৈনিককে মেরেছে। মালেগাঁওতে নিজে সন্ত্রাস করে বোমা বিস্ফোরণ করিয়েছিলেন বর্তমানে বিজেপি প্রার্থী সাধ্বী প্রজ্ঞা। জইশ-ই-মহম্মদকে যখন নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তাহলে মালেগাঁও বিস্ফোরণে অভিযুক্ত সাধ্বী প্রজ্ঞাকে প্রার্থী করার অপরাধে বিজেপিকে কেন নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হবে না?’ এদিনের সভায় ফিরহাদ হাকিমের বক্তব্য ঘিরে সমালোচনা শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলে। 

[আরও পড়ুন: ভিলেন জুতোর ফিতে, মুখ্যমন্ত্রীর পাশে হাঁটতে গিয়ে হোঁচট মহুয়ার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement