BREAKING NEWS

০৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৪ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘দিদির সঙ্গে আছি’, সব জল্পনায় জল ঢেলে ফেসবুকে অকপট জিতেন্দ্র তিওয়ারি

Published by: Paramita Paul |    Posted: December 24, 2020 6:48 pm|    Updated: December 24, 2020 6:48 pm

MLA Jitendra Tiwari is in TMC claims on Facebook | Sangbad Pratidin

চন্দ্রশেখর চট্টোপাধ্যায়, আসানসোল: দলবদল নিয়ে চলতে থাকা জল্পনায় জল ঢাললেন পাণ্ডবেশ্বরের বিধায়ক জিতেন্দ্র তিওয়ারি (Jitendra Tiwari) জানিয়ে দিলেন, “আমি দিদির অনুগত সৈনিক। দলের সঙ্গে ছিলাম, আছি আর থাকব।” বৃহ্স্পতিবার ফেসবুকে পোস্ট করে সমস্ত জল্পনায় জল ঢাললেন তিনি।

বুধবার তাঁর ফেসবুক পোস্ট ঘিরে জল্পনা ছড়িয়েছিল। লিখেছিলেন, “রাজনীতিতে পূর্ণচ্ছেদ হয় না।” যদিও কেন এমন লিখেছিলেন, তা সেদিন খোলসা করেননি তিনি। ফলে তাঁর দলবদল নিয়ে নতুন করে গুঞ্জন তৈরি হয়। কিন্তু এদিন সেই সমস্ত জল্পনায় জল ঢেলে দিলেন জিতেন্দ্র।

[আরও পড়ুন : হিন্দুরা চার্চে যাবেন না, বড়দিনের আগে ধর্মাচরণ নিয়ে বিতর্কিত পোস্টার বজরং দলের]

এদিন কী লেখেন ফেসবুকে? নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে বিধায়ক ইংরেজিতে লেখেন, “আই ওয়াস উইথ দিদি, আই এম উইথ দিদি, এন্ড আই উইল বি উইথ দিদি। অ্যান্ড দোস হু আর মেকিং কনফিউশান উইল বি এগেন ডিসএপোয়নটেড।” যার বাংলা তর্জমা করলে দাঁড়ায়, “আমি দিদির সঙ্গে ছিলাম, দিদির সঙ্গে আছি, দিদির সঙ্গে থাকব। আর যাঁরা বিভ্রান্ত করছেন আবার তাঁরা হতাশ হবেন।” অর্থাৎ দলবদল নিয়ে জল্পনায় তিনি একেবারে ইতি টানলেন বলেই দাবি রাজনৈতিক মহলের।

অমিত শাহের বঙ্গসফরেই পাণ্ডবেশ্বরের বিধায়ক বিজেপির পতাকা হাতে নিচ্ছেন বলে জল্পনা তৈরি হয়েছিল। সেই সময় তিনি দলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন। কিন্তু একের পর এক বৈঠকে সেই ক্ষোভ প্রশমিত হয়। এবং দলের কাছে ক্ষমা চেয়ে ফের কাজ শুরু করেন জিতেন্দ্র তিওয়ারি। উলটো দিকে জিতেন্দ্র তিওয়ারিকে দলে নেওয়ার বিষয় প্রকাশ্যেই আপত্তি জানান সাংসদ বাবুল সু্প্রিয়, রাজ্যের বিজেপি নেত্রী অগ্নিমিত্রা পল, সায়ন্তন বসু-সহ একাধিক নেতা। এ নিয়ে রাজ্যের নেতা-নেত্রীদের শোকজ করেছে বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব।

[আরও পড়ুন : বিশ্বভারতীর অনুষ্ঠানে কেন গরহাজির মুখ্যমন্ত্রী? বিজেপির প্রশ্নের জবাব দিল তৃণমূল]

উল্লেখ্য, এদিন দলীয় কর্মসূচিতে আসানসোলে এসেছিলেন অগ্নিমিত্রা পল। তাঁকে শো-কজের বিষয় জিজ্ঞেস করা হলে তিনি সাবধানী উত্তর দেন। বলেন, “এটা দলের অভ্যন্তরীন ব্যাপার। আমি একজন সাধারণ কার্যকর্তা। ভারতীয় জনতা পার্টির শীর্ষ নেতৃত্ব আমার অভিভাবক। তাঁরা যেটা ভাল মনে করেছেন সেটা করেছেন। সেটা মাথা পেতে নেব।” তাহলে কী জিতেন্দ্র তিওয়ারির জন্য আগামী দরজা খুলে দেওয়া হল? এ বিষয়টিও তিনি শীর্ষ নেতৃত্বের উপরে চাপিয়ে দেন। বলেন, “দলের শীর্ষ নেতৃত্ব ঠিক করবেন কারা আসবেন। কারা যাবেন।”

দেখুন ভিডিও:

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে