BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‘৯ মাস পর বিধানসভা ভোট’, অনুব্রতর গড়ে প্রচারের দায়িত্ব পেয়েই দামামা বাজিয়ে দিলেন মুকুল

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: June 15, 2020 6:18 pm|    Updated: June 15, 2020 6:20 pm

An Images

নন্দন দত্ত, সিউড়ি: লকডাউনের ভারতে নয়া প্রকল্প ‘আত্মনির্ভর ভারত’এর প্রচারে এসে রীতিমত ভোটের প্রচার শুরু করলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায় (Mukul Roy)। তাঁর মতে, আগামী ন’মাস পরে রাজ্যে বিধানসভা ভোট। ফেব্রুয়ারি মাস থেকে নির্বাচনী প্রক্রিয়া শুরু হয়ে যাবে। তাই তার প্রস্তুতি হিসেবে সোমবার সিউড়ি থেকেই প্রচারের সুর বেঁধে দিলেন মুকুল রায়। এদিনই দলের তরফে তাঁকে বীরভূমে অনুব্রত মণ্ডলের গড়ে প্রচারের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

গত কয়েকদিন ধরেই আলোচনার কেন্দ্রে বিজেপি নেতা মুকুল রায়। একদিকে, কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় তাঁর প্রত্যাবর্তনের গুঞ্জন। অন্যদিকে ফের পুরনো দল তৃণমূলে ‘ঘর ওয়াপসি’ নিয়ে ফিসফাস। সব প্রশ্নেরই এদিন উত্তর দেন বিজেপির অন্যতম নির্ভরযোগ্য নেতা। মুকুল রায়ের মতে, তাঁর দিল্লি-কলকাতা সফরকে নিয়ে কেউ কেউ অপপ্রচার করে সংবাদমাধ্যমের প্রচার বাড়াতে চাইছেন। একইসঙ্গে দলের মধ্যে বিভ্রান্তি ছড়াতে চাইছেন। কিন্তু তিনি দলের একজন কর্মী। মন্ত্রিসভা গঠন করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি যা ভাববেন, সেটাই হবে। তাঁর কথায়, ”দল যা নির্দেশ দেবে, সৈনিকের মতো তা পালন করব।”

[আরও পড়ুন: উচ্চশিক্ষায় করোনা কাঁটা, বাড়িতে বসে অবসাদ ডুবছে পড়ুয়ারা]

মুখ্যমন্ত্রী দাবি করেছেন, পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য রাজ্যে তিনি ২৫ কোটি টাকা খরচ করেছেন। এ প্রসঙ্গে মুকুল রায় জানান, ”রেলের ভাড়া সমেত পরিযায়ীদের জন্য ৮৫ শতাংশ খরচ বহন করেছে কেন্দ্রীয় সরকার।” রবিবার অনুব্রত মণ্ডল বিজেপির বিরুদ্ধে বাড়ি বাড়ি প্রচারের কৌশলের কথা বলেছিলেন। এর পালটা হিসাবে মুকুল রায়ের কটাক্ষ, চালের মান বাংলায় খারাপ। সে কথা জানিয়েছেন অমিত শাহ থেকে দিলীপ ঘোষ। তবে তাঁর মতে, তাঁদের দল ব্যক্তিনির্ভর নয়। তাই ভোটের কৌশল কারও উপর নির্ভর করে না। আগামী বিধানসভা নিয়ে মুকুল রায়ের দাবি, আগামী ভোট হবে ‘রাজ্যে গণতন্ত্র থাকবে না কী থাকবে না’, সেই প্রশ্নের ভিত্তিতে।  মনে করা হচ্ছে, বীরভূমে তৃণমূলের শক্ত জমি কাড়তে মুকুল রায়কে নামিয়ে রাজনৈতিক লড়াই আরও জোরদার করে তুলল গেরুয়া শিবির।

[আরও পড়ুন: জঙ্গলে অজানা জন্তুর পায়ের ছাপ, বাঘের আতঙ্কে কাঁটা শালবনী]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement