১ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৮  রবিবার ১৬ মে ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

Coronavirus: কড়া নিয়মবিধির মাঝে রাজ্যে আরও কয়েকটি পরিষেবায় ছাড়, নয়া বিজ্ঞপ্তি নবান্নের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: May 1, 2021 6:57 pm|    Updated: May 1, 2021 8:03 pm

Nabanna allows more service during strict restriction while combating Coronavirus | Sangbad Pratidin

ফাইল ছবি।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনার (Coronavirus) দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কা সামলাতে ভোট শেষ হতে না হতেই কড়া নিয়ম জারি হয়েছে রাজ্যে। বাজার, দোকান, জনগণের গতিবিধি নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে নবান্ন (Nabanna) থেকে বিশেষ বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানানো হয়েছে নয়া নিয়মের কথা। বন্ধ হয়েছে শপিংমল, সিনেমাহল, রেস্তরাঁ, পার্লার, সুইমিং পুল, জিম। ওষুধের দোকান ও অত্যাবশ্যকীয় পরিষেবায় ছাড় ছিলএ। তবে শনিবার বিকেলে আরও একদফা বিজ্ঞপ্তি জারি করে আরও কয়েকটি পরিষেবায় ছাড় (Relaxation) দেওয়ার ঘোষণা করল নবান্ন। তাতে বলা হয়েছে –

  • খোলা থাকবে টেলিকম, বৈদ্যুতিন সরঞ্জামের দোকান।
  • সবজি, মাংস, মিষ্টি ও দুধের দোকান খোলা, দুধ সরবরাহে কোনও বাধা নেই।
  • পরিবহণ সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্যকেন্দ্র খোলা থাকবে।

এছাড়া বিয়েবাড়ি কিংবা কোনও অনুষ্ঠান বাড়িতে ৫০ জন অতিথি সমাগমে ছাড় দেওয়া হয়েছে। শুক্রবারের বিজ্ঞপ্তিতে এসব অনুষ্ঠান সম্পূর্ণ বন্ধ করে দেওয়ার কথা জানানো হয়েছিল। শনিবার মুখ্যসচিব আরেকটি বিজ্ঞপ্তি দিয়ে নতুন করে জানিয়েছেন।  এসব নিয়ম ভাঙলে আইনি পদক্ষেপের কথাও বলা হয়েছে নির্দেশিকায়। তখনই আন্দাজ করা গিয়েছিল, করোনার দ্বিতীয় ধাক্কা সামলাতে কার্যত আংশিক লকডাউনের পথেই হাঁটছে রাজ্য। পরবর্তীতে আরও একাধিক ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারির আশঙ্কা করা হচ্ছে। 

[আরও পড়ুন:  অক্সিজেন পাইপলাইনে বরফ জমে বিপত্তি, সমস্যায় বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালের রোগীরা]

তবে শনিবার দুধ, মাছ, মাংস, মিষ্টির দোকান খোলা রাখার সিদ্ধান্তে আরও স্বস্তিতে রাজ্যবাসী। এর আগে সকালে তিনঘণ্টা এবং বিকেলে ২ ঘণ্টা বাজারহাট খোলার কথা জানিয়েছিল নবান্ন। এই বাঁধাধরা সময়ে সব কাজ হওয়া নিয়ে কিংবা প্রয়োজনের সময় দুধ,মাছ, মাংসের মতো হেঁশেলের দৈনিক সামগ্রী পাওয়া নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছিল জনগণের। শনিবারের বিজ্ঞপ্তিতে খানিকটা হলেও তা কাটল। দিনে পাঁচ ঘণ্টা বাজার খোলা ছাড়াও অন্য়ান্য সময়েও দুধ, মিষ্টি মিলবে এবার থেকে। 

[আরও পড়ুন:  করোন আক্রান্ত ১৫৭০ রেলকর্মী, হাওড়া-শিয়ালদহে বাতিল ৮০ জোড়া লোকাল]

রাজ্যজুড়ে করোনা সংক্রমণ রুখতে কড়া বিধিনিষেধ জারি হলেও শনিবার জেলাগুলিতে তা মেনে চলার চিত্র বিশেষ চোখে পড়েনি। বনগাঁয় ১০টার পরও একঘণ্টা খোলা ছিল বাজারহাট। ছিল ভিড়ও। তবে পুলিশের নজরদারি তেমন চোখে পড়েনি। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement