BREAKING NEWS

৫ মাঘ  ১৪২৮  বুধবার ১৯ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

ছ’মাসের মধ্যেই সবুজ জ্বালানি সরবরাহ হবে রাজ্যে

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: October 4, 2016 11:15 am|    Updated: October 4, 2016 11:15 am

National Green Tribunal commands to supply CBM in WestBengal

স্টাফ রিপোর্টার: ছয় মাসের মধ্যে কলকাতায় কোল বেল্ট মিথেন গ্যস(সিবিএম) বা সবুজ জ্বালানি পৌঁছে দেওয়ার নির্দেশ দিল জাতীয় পরিবেশ আদালত৷ দীর্ঘদিন ধরে কমপ্রেসড ন্যাচারাল গ্যাস(সিএনজি) বা সবুজ জ্বালানি থেকে বঞ্চিত হচ্ছিল কলকাতা৷ মুম্বই, দিল্লি, ইন্দোরের মতো ছোটবড় ৪০টি শহরে ইতিমধ্যেই সবুজ জ্বালানি পৌঁছে দিয়েছে কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম মন্ত্রক৷ কিন্তু এ রাজ্যে ২০০৭ সালে কাজ শুরু হওয়ার কথা থাকলেও জ্বালানি পৌঁছে দেওয়ার কাজ এগোয়নি৷ এবার ছয় মাসের মধ্যে সিএনজি-র বদলে সিবিএম পৌঁছে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে জাতীয় পরিবেশ আদালতের পূর্বাঞ্চলীয় বেঞ্চ৷

২০০৭ সালে দেশের মানুষকে সিএনজি বা সবুজ জ্বালানি পৌঁছে দিতে একযোগে ৫টি প্রকল্প হাতে নেয় কেন্দ্রীয় সরকার৷ প্রকল্পের আওতায় পূর্ব ভারতে উত্তরপ্রদেশের জগদীশপুর থেকে এ রাজ্যের হলদিয়া পর্যন্ত সিএনজি পাইপলাইন সম্প্রসারিত হওয়ার কথা ছিল৷ বাকি চারটি প্রকল্পের কাজ শেষ হয়ে গেলেও এরাজ্যে সিএনজি সম্প্রসারণ প্রকল্পের কাজ শেষ হয়নি৷ ২০১১ সালে এবিষয়ে গেল, এইচপিসিএল ও গ্রেটার ক্যালকাটা গ্যাস সাপ্লাই কর্পোরেশনের সঙ্গে একটি মউ স্বাক্ষর হয়৷ কিন্তু সেই মউ-এর মেয়াদ অন্তত তিনবার উত্তীর্ণ হয়ে গেলেও এক চুলও কাজ এগোয়নি৷ এরপরই  এবিষয়ে পরিবেশ আদালতে মামলা করেন পরিবেশ কর্মী সুভাষ দত্ত৷ মামলায় কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম মন্ত্রক আদালতে জানায়, কলকাতা ও পূর্বাঞ্চলে সবুজ জ্বালানির চাহিদা নেই৷ যদিও এই বক্তব্যের সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন সুভাষবাবু৷ এরপর মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়, সিএনজি-র পরিবর্তে গুজরাত থেকে এলএনজি বা দুর্গাপুর থেকে সিবিএম সরবরাহ করা যেতে পারে৷ এজন্য একটি সম্ভাব্য সময়সীমা দেয় মন্ত্রক৷

সোমবার মামলায় আদালত নির্দেশ দেয় ছয় মাসের মধ্যে সিবিএম পৌঁছে দিতে৷ ট্যাঙ্কারের মাধ্যমে সবুজ জ্বালানি পৌঁছে দিতে হবে কলকাতায়৷ এ ব্যপারে পরিকাঠামো তৈরির কাজও শেষ করতে হবে ওই সময়ের মধ্যে৷

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে