BREAKING NEWS

২ কার্তিক  ১৪২৮  বুধবার ২০ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

সমাজবিরোধীদের রুখতে ডায়মন্ড হারবার জেলা পুলিশের নয়া অ্যাপ, উদ্বোধন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: October 9, 2021 9:47 pm|    Updated: October 10, 2021 9:32 am

New App Launched by Diamond Harbour Police | Sangbad Pratidin

সুরজিৎ দেব, ডায়মন্ড হারবার: শুধু পুজোর ক’টা দিন নয়, বছরের ৩৬৫ দিনই সমাজবিরোধীদের শায়েস্তা করতে শারদীয়ায় ডায়মন্ডহারবার পুলিশ জেলায় চালু হল ‘আস্থা এসওএস অ্যাপ।” শনিবার দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার বিষ্ণুপুরের সম্প্রীতি কনফারেন্স হলে  ডায়মন্ড হারবার পুলিশ জেলার পক্ষ থেকে ২০২১-এর দুর্গাপুজোর গাইড ম্যাপ ও টেলিফোন ডিরেক্টরী প্রকাশের সঙ্গে এই বিশেষ অ্যাপেরও উদ্বোধন করেন ডায়মন্ড হারবারের সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। অ্যাপটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘আস্থা এসওএস অ্যাপ।’ এদিনের অনুষ্ঠানে পরিবহণ দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী তথা বিষ্ণুপুর কেন্দ্রের বিধায়ক দিলীপ মন্ডল-সহ ডায়মন্ড হারবার (Diamond Harbour) লোকসভার অধীন বিধানসভা কেন্দ্রগুলির বিধায়করাও উপস্থিত ছিলেন। ডায়মন্ড হারবার পুলিশ জেলার পুলিশ সুপার অভিজিত বন্দ্যোপাধ্যায় ও জেলা পুলিশের উচ্চপদস্থ আধিকারিকরাও অনুষ্ঠানে অংশ নেন।

সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, “একমাত্র ডায়মন্ড হারবার পুলিশ জেলাই এই ধরনের অ্যাপ তৈরি করে দেখিয়েছে। এটা আমাদের অত্যন্ত গর্বের। এজন্য তাঁদের অনেক ধন্যবাদ।” সাংসদ জানান, “এই অ্যাপ শুধুমাত্র পুজোর দিনগুলোর জন্য নয়, সারা বছরের জন্যই এই অ্যাপ। ৩৬৫ দিন পুলিশ জেলার কোথাও কোনও অপ্রীতিকর পরিস্থিতি তৈরি হলে বা কোনও বিপজ্জনক ঘটনার সম্মুখীন যদি কেউ হন এই অ্যাপের মাধ্যমে এসওএস বাটন টিপলেই সরাসরি মেসেজ পৌঁছে যাবে ক্যুইক রেসপন্স টিমের কাছে। জিপিএস সিস্টেমের মাধ্যমে সঙ্গে সঙ্গে সেই বিপদগ্রস্তের কাছে পৌঁছে যাবেন তাঁরা। অর্থাৎ ডায়মন্ড হারবারে এই ‘আস্থা’ অ্যাপ তৈরি হওয়া মানেই সমাজবিরোধিরা শায়েস্তা।”

[আরও পড়ুন: সপ্তমীর দিন পাহাড় সমস্যা নিয়ে ত্রিপাক্ষিক বৈঠক কেন্দ্রের, ডাক পেলেন না গুরুং, বিনয় তামাং]

প্রত্যেক সাধারণ মানুষকে শারদীয়ার শুভেচ্ছা জানালেন ডায়মন্ড হারবারের সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, “ চতুর্থীর শুভক্ষণে আমি আপনাদের সঙ্গে মিলিত হয়ে আপ্লুত। ডায়মন্ডহারবারের সঙ্গে আমার আত্মিক সম্পর্ক কেউ কোনওদিনই ছিন্ন করতে পারবে না। পুজোর দিনগুলো আপনাদের সকলের ভালো কাটুক। মা-দুর্গা আপনাদের সকলকে ভালো রাখুন, সকলে আপনারা সুস্থ থাকুন। গোটা রাজ্যের মানুষ সারাটা বছর এই পুজোর দিনগুলোর জন্য অপেক্ষায় থাকেন। তাই শান্তি, সম্প্রীতি, সৌভ্রাতৃত্ব, ভক্তি, ভালোবাসায় কল্লোলিত হয়ে উঠুক আপনাদের পুজো। জাতি-ধর্ম-দলমত নির্বিশেষে সকলে মিলে পুজোর আনন্দ উপভোগ করুন।”

এ প্রসঙ্গে সাংসদ করোনার বিপদের কথাও মানুষকে স্মরণ করিয়ে দেন। তিনি বলেন, “পুজোয় আনন্দ করুন। কিন্তু অবশ্যই কোভিড প্রোটোকল এবং প্রশাসনের যাবতীয় নির্দেশ মেনে চলুন। আপনার আনন্দ যেন অন্যের নিরানন্দের কারণ না হয়, সে ব্যাপারে সকলে সতর্ক থাকুন। পঞ্চায়েত, পুরসভা সর্বত্র টিকাকরণ চলছে। কিন্তু আপনাদেরও দায়িত্বশীল হতে হবে সকলকেই। পুজোর দিনগুলোতে মাস্ক পরে, শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে চলতে হবে সকলকেই। ব্যবহার করতে হবে স্যানিটাইজার। অযথা কোথাও বেশি ভিড় করবেন না কেউ। অশুভশক্তির বিনাশ হয়ে শুভশক্তির উদয় হোক।” তাঁর সাংসদ এলাকায় উন্নয়নমূলক কাজ প্রসঙ্গে জানান, “উন্নয়নমূলক কাজ যেমন চলছে, চলবে। বাইপাস রাস্তা হবে। চারটি ব্লক ডোঙারিয়া জলপ্রকল্পের আওতায় নিয়ে আসা হয়েছে। এবার ওই ব্লকগুলির প্রতিটি বাড়িতেই জল পৌঁছাবে। কোনও চিন্তার প্রয়োজন নেই। উন্নয়নের কাজ করে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আমরা তাঁর সৈনিক হিসেবে রয়েছি। কাজ করে যাবো আপনাদের জন্যই।’

[আরও পড়ুন: বর্ধমান স্টেশন থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে মহিলাকে ‘গণধর্ষণ’, গ্রেপ্তার ২ অভিযুক্ত]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement