Advertisement
Advertisement

Breaking News

রবীন্দ্রনাথের মুখে মাস্ক!

সচেতনতা প্রচারে মাস্ক কবিগুরুর মুখে! ফেসবুক পোস্টে পালটে গেল বিখ্যাত কবিতায় ছত্রও

রবীন্দ্রনাথকে নিয়ে এ ধরনের পোস্ট পছন্দ করেননি অনেকেই।

Now picture of Rabindranath Tagore appears in social media
Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:April 24, 2020 10:32 am
  • Updated:April 24, 2020 10:32 am

ভাস্কর মুখোপাধ্যায়, বোলপুর: করোনা সচেতনতায় মাস্কের প্রয়োজনীয়তা নিয়ে প্রচার কম চলছে না। এবার সেই প্রচারের মুখ স্বয়ং রবীন্দ্রনাথ! সৌজন্যে শান্তিনিকেতনের এক সোশ্যাল মিডিয়া গ্রুপ। সফটওয়্যারের কারিকুরিতে কবিগুরুর প্রতিকৃতির মুখে বসানো হয়েছে মাস্ক। সেই মুখোশ পরিহিত রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে চলছে সচেতনতা প্রচার। সেইসঙ্গে ‘নির্ঝরের স্বপ্নভঙ্গ’ কবিতার কয়েক ছত্র পরিবর্তন করে আজকের দিনের সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ কিছু শব্দ বসানো হয়েছে। তা খানিকটা এরকম – “আজি হতে শতবর্ষ পরে/কে তুমি হাঁচিছো বসি/আমার সম্মুখে/মাস্ক নাহি পরে।”

বিশ্বজুড়ে মারণ করোনা ভাইরাসের দাপট ছড়িয়ে পড়তেই স্বাস্থ্যবিধিতে আবশ্যিক হিসেবে ঢুকে পড়েছে মাস্কের ব্যবহার। সেই মাস্ক বিধির প্রচারে স্বয়ং কবিগুরুর প্রতিকৃতি এভাবে ব্যবহার করা নিয়ে বিতর্ক দানা বেঁধেছে। শুধু রবীন্দ্রনাথই নন, বিশ্ববিখ্যাত চিত্রশিল্পী পাবলো পিকাসো, ভিনসেন্ট ভ্যান গগ-সহ প্রথিতযশাদের মাস্ক পরা ছবিও এভাবে পোস্ট করা হয়েছে।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ফের রাজ্যে মিলল করোনা আক্রান্তের খোঁজ, এবার শ্মশানকর্মীর শরীরে ভাইরাস সংক্রমণ]

করোনা রুখতে লকডাউনে মাস্ক পরা থেকে শুরু করে সোশ্যাল ডিসট্যান্সিংয়ের প্রচারে নানা পদ্ধতিই চোখে পড়ছে। তবে তার অঙ্গ হিসেবে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ছবি ও লেখাকে ব্যবহারের নজির এই প্রথম। শান্তিনিকেতনের একটি সোশ্যাল মিডিয়া গ্রুপে দেখা গেল, বিশ্বকবির এক বিখ্যাত ছবির মুখে N95 মাস্ক বাঁধা। সেইসঙ্গে ‘নির্ঝরের স্বপ্নভঙ্গ’ কবিতার কয়েক ছত্রে বসেছে নতুন নতুন শব্দ। কবিগুরুর স্বকণ্ঠে যে কবিতা এখনও বাঙালির রবিকোষের অমূল্য সম্পদ, সেই কবিতার এহেন বিকৃতি নিয়ে সরব বিদগ্ধরা।

Advertisement

ওই সোশ্যাল মিডিয়া গ্রুপের অ্যাডমিন দেবরাজ গোস্বামী বলছেন, “আমরা দেখছি একশ বছর পরপর মহামারি ফিরে আসছে। তাই রবীন্দ্রনাথের কবিতার মধ্যে দিয়ে তা বোঝাতে চেয়েছি। আর এখন এই দমবন্ধ পরিবেশে একটু হাস্যরস তৈরির চেষ্টা করেছি।” কিন্তু এমন ‘হাস্যরস’ মোটেই পছ্ন্দ হয়নি শান্তিনিকেতনের প্রবীণ আশ্রমিক সুপ্রিয় ঠাকুরের। তাঁর কথায়, “আমি দেখেছি পোস্টটি। আমার পছন্দ নয়। রবীন্দ্রনাথকে নিয়ে এ ধরনের কাজ না করাই ভাল।” বিশ্বভারতীর আরেক প্রবীণ প্রাক্তনী অশোক মুখোপাধ্যায় বলছেন, “মাস্ক পরার মেসেজ দিতে চাইলে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর কেন? এই ধরনের পোস্ট দেখতে খারাপ লাগে।” তবে সমীর মুখোপাধ্যায়ের মতো প্রাক্তনীদের মত ভিন্ন। তাঁরা মনে করছেন, ভারতবাসীর জীবনে আজও সমান প্রাসঙ্গিক রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। তাই সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর ছবি, কবিতা করোনা সচেতনতা ব্যবহার হলে, তা ভালই।

[আরও পড়ুন: লকডাউনের সুযোগে মদ মজুত করে চড়া দামে বিক্রি, গ্রেপ্তার বিজেপি যুবনেতা]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ