৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

পেটের দায়ে সুন্দরবনের জঙ্গলে যাওয়াই কাল, বাঘের হানায় প্রাণ গেল ২ মৎস্যজীবীর

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: September 4, 2020 10:32 am|    Updated: September 4, 2020 10:32 am

An Images

দেবব্রত মণ্ডল, ডায়মন্ড হারবার: পেটের টানে কাঁকড়া ধরতে যাওয়াই কাল হল। ফের বাঘের আক্রমণে প্রাণ গেল মৎস্যজীবীর। সঙ্গে থাকা মৎস্যজীবীরাই তাঁর দেহ উদ্ধার করে নিয়ে আসে।

সুন্দরবনের জঙ্গলে কাঁকড়া ধরতে গিয়েই বাঘের আক্রমণে ফের মৃত্যু হল আরও এক মৎস্যজীবীর। জানা গিয়েছে, নিহত মৎস্যজীবীর নাম মুন্না গাজী। বাড়ি উত্তর ২৪ পরগনার পারঘুমটি এলাকায়। মুন্নাই উপার্জনের আশায় গতকাল দক্ষিণ ২৪ পরগনার সজনেখালির ৪ নম্বর জঙ্গলে গিয়েছিল কাঁকড়া ধরতে। উদ্দেশ্য ছিল, কাঁকড়া ধরে এনে বিক্রি করে কিছু উপার্জন করা। কিন্তু তা আর হল না! ভাগ্যের ফেরে দক্ষিণরায়ের কবলে পড়ে প্রাণ হারালেন ওই মৎস্যজীবী।

শুক্রবার ভোরে বাঘের আক্রমণে নিহত হন মুন্না গাজী নামে উত্তর ২৪ পরগনার ওই মৎস্যজীবী। পরে অন্যান্য সঙ্গীরা দেখতে পেলে তাঁকে বাঘের কবল থেকে উদ্ধার করে নিয়ে আসে। কিন্তু শেষ রক্ষা আর হয়নি। ঘটনাস্থলেই তাঁর মৃত্যু হয় বলে জানা দিয়েছে।

[আরও পড়ুন: উজ্জ্বল মহানায়কের স্মৃতি, ৯৪তম জন্মদিনে বর্ধমান শহরে বসল উত্তম কুমারের পূর্ণাঙ্গ মূর্তি]

প্রসঙ্গত, এই প্রথম নয়। প্রায়শই পেটের টানে জঙ্গলে গিয়ে প্রাণ দিতে হয় সুন্দরবনের মৎস্যজীবীদের। কিন্তু তা সত্ত্বেও উপার্জনের আশায় জীবনের ঝুঁকি নিতে পিছপা হননা তাঁরা। কটা টাকা এলে বাড়িতে হাড়ি চড়বে যে! দু’বেলা দু’মুঠো অন্ন তো জুটবে। আর পরিবারে মুখে হাসি ফোটাতেই জঙ্গলের গভীরে গিয়ে এভাবে বাঘের আক্রমণে প্রাণ দিতে হয় তাঁদের।

উল্লেখ্য, গতকাল অর্থাৎ বৃহস্পতিবার বাঘের আক্রমণে আরও এক মৎস্যজীবী নিহত হওয়ার খবর মেলে। তাঁর নাম বাবুলাল রপ্তান। সুন্দরবনে পরপর যেভাবে বাঘের আক্রমণে নিহত হচ্ছে মৎস্যজীবীরা, তা রীতিমতো উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে তাঁদের কাছে।

[আরও পড়ুন: প্রবল জলোচ্ছ্বাসে দিঘায় তলিয়ে গেল ৫টি ডাম্পার, বরাতজোরে বাঁচলেন চালকরা!]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement