BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

জ্বলন্ত পাটকাঠি ছোঁয়াতেই গর্তের মুখে জ্বলছে আগুন! শোরগোল বনগাঁয়, রহস্যটা কী?

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: September 12, 2020 3:47 pm|    Updated: September 12, 2020 5:06 pm

An Images

জ্যোতি চক্রবর্তী, বনগাঁ: মাটির নিচে কি জ্বলন্ত উনুন? নইলে কীভাবেই বা মাটি খোঁড়া গর্তের ভিতরের জল টগবগ করে ফুটবে? আর জ্বলন্ত পাটকাঠি গর্তের মুখে ছোঁয়ালেই বা কোন জাদুতে জ্বলে উঠছে আগুন? এসব প্রশ্নের উত্তর খোঁজার আগে ঘটনা দেখেই ভয়ে ঘামছেন বনগাঁর (Bongaon) কল্যাণপুরের বাসিন্দারা। প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়েছেন তাঁরা। গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান থেকে বিডিও, এসডিও’র কানে পৌঁছেছে খবর। বিপদের আশঙ্কায় ঘটনাস্থলটি আপাতত ঘিরে দেওয়া হয়েছে।

উত্তর ২৪ পরগনা গোপালনগর থানার গঙ্গানন্দপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার কল্যাণপুর গ্রাম। বাসিন্দা নারায়ণচন্দ্র মণ্ডলের বাড়িতে একটি নলকূপ খননের কাজ শুরু করতেই তীব্র গতিতে মাটির নিচ থেকে জল বের হতে থাকে। নলকূপটি নিয়ে গিয়ে অন্যত্র বসানো হয়। কিন্তু পুরনো নলকূপের গর্ত থেকে জল টগবগ করে ফোটার আওয়াজ শুনতে পান বাড়ির লোকেরা। খবর দেওয়া হয় স্থানীয় গঙ্গানন্দপুর গ্রাম পঞ্চায়েতে। পঞ্চায়েত প্রধান জাফর আলি মণ্ডল ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন, নিজে সরেজমিনে দেখেন বিষয়টি। দেখা যায়, গর্তের জল টগবগ করে ফুটেই চলেছে। একটি পাটকাঠিতে আগুন ধরিয়ে গর্তের মুখের কাছে নিয়ে গেলে সেখানে জ্বলে উঠছে আগুন। এসব দেখে পঞ্চায়েত প্রধান বিডিও, এসডিও এবং পুলিশ প্রশাসনকে ঘটনার কথা জানান। আতঙ্কিত গ্রামবাসীদের আশ্বস্ত করে ঘটনাস্থল ঘিরে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়।

[আরও পড়ুন: পরকীয়ায় বাধা দেওয়ায় স্ত্রীকে খাদে ফেলে খুনের পর দুর্ঘটনার গল্প! কী পরিণতি হল অভিযুক্তের?

বিষয়টি নিয়ে গঙ্গানন্দপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান জাফর আলি মন্ডল জানান, ”নলকূপের পুরনো গর্ত থেকে জল ফুটছে, সেটা আমরা দেখতে পেয়েছি এবং পাটকাঠির আগায় আগুন দিয়ে গর্তের মুখে ধরলেই আগুন জ্বলছে। কী কারণে এই ঘটনা ঘটছে, আমরা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি।” গ্রামবাসী সুদীপ ভট্টাচার্য বলছেন, ”আমরা আতঙ্কিত এই ভেবে যে যদি এই আগুন ছড়িয়ে পড়ে, তাহলে বিপদ ঘটতে পারে। তাই প্রশাসনের কাছে আরজি, দ্রুত এর ব্যবস্থা করুন।”

[আরও পড়ুন: অবিশ্বাস্য!‌ দু’‌দশক পুরুষ সঙ্গীর সঙ্গে যৌন মিলন ছাড়াই সাতটি ডিম পাড়ল পাইথন!]

কিন্তু কোন রহস্যে এভাবে মাটি খুঁড়তেই এত তাপ বেরিয়ে আসছে? বিষয়টি জানতে ‘সংবাদ প্রতিদিন’এর তরফে যোগাযোগ করা হয়েছিল বিজ্ঞান ও যুক্তিবাদী মঞ্চের রাজ্য সম্পাদক প্রদীপ সরকারের সঙ্গে। তিনি ঘটনাটি পুরোটা শুনে বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যাই দিয়েছেন। তাঁর কথায়, ”ভূগর্ভে প্রচুর গ্যাস সঞ্চিত থাকে। নলকূপের জন্য মাটি খোঁড়ার ফলে সেই গ্যাস বেরচ্ছে এবং সেই তাপেই ওখানকার জল ফুটছে। হতে পারে, এটা মিথেন (Methane) গ্যাস, তাই পাটকাঠির আগুনে সহজেই জ্বলে উঠছে। এটা প্রাকৃতিক ঘটনা, কোনও অলৌকিকত্ব নেই। তবে সতর্ক হওয়া দরকার। কারণ, খুব বেশি পরিমাণে গ্যাস বেরতে থাকলে, তা স্থানীয় বাসিন্দাদের বিপদের কারণ হতে পারে। এ বিষয়ে প্রশাসনকেই ব্যবস্থা নিতে হবে।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement