BREAKING NEWS

২৩ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  শনিবার ৬ জুন ২০২০ 

Advertisement

সচেতনতার বদলে ছেলেধরা আতঙ্ক উসকে পোস্টার, বিতর্কে বুদবুদের এক গ্রাম পঞ্চায়েত

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: September 22, 2019 6:56 pm|    Updated: September 22, 2019 7:18 pm

An Images

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, দুর্গাপুর: সতর্কবার্তা, আশ্বাসবাণীর বদলে উলটে আতঙ্কিত হওয়ার পরামর্শ! বুদবুদ থানার কোটা গ্রাম পঞ্চায়েতের জনস্বার্থে প্রচারিত একটি পোস্টার জনগণকে আরও ভীত করে তুলছে। জেলাজুড়ে মানুষজনকে ছেলেধরা আতঙ্কমুক্ত করার পরিবর্তে তা আরও গ্রাস করছে পঞ্চায়েতের এই সচেতনতামূলক প্রচার। দুর্গাপুরে সরকারিভাবে প্রচারিত এই পোস্টারকে ঘিরেই দেখা দিয়েছে বিতর্ক। পুলিশের পক্ষ থেকে পঞ্চায়েতকে শীঘ্রই তা সরিয়ে ফেলার নির্দেশ দেওয়া হল।

[ আরও পড়ুন: অন্ডালের খোলামুখ খনিতে ধস ও আগুন, আতঙ্কে এলাকাবাসী]

পূর্ব ও পশ্চিম বর্ধমান জেলাজুড়ে গত একমাস ধরে ছেলেধরা গুজব একেবারে সন্ত্রস্ত করে তুলেছে জেলাবাসীকে। আসানসোল থেকে দুর্গাপুর – এই এক আতঙ্কে কাবু শিল্পশহর। প্রতিদিনিই ছেলেধরা গুজবের শিকার হচ্ছেন কেউ না কেউ। অধিকাংশই মানসিক ভারসম্যহীন কিংবা ভবঘুরে। এখনও পর্যন্ত জেলার কোন থানাতেই নিখোঁজ বা পাচার সংক্রান্ত কোনেও অভিযোগে হয়নি। তবু গুজবে কান দিয়েই গণপ্রহারের
মতো ঘটনাও ঘটছে। পুলিশের পক্ষ থেকে প্রতিটি থানাকে গুজবের বিরুদ্ধে প্রচার করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তাও চলছে।
কিন্তু সচেতনতার বার্তায় তাল কেটে গেল আউশগ্রাম ২ ব্লকের বুদবুদ থানা এলাকার কোটা গ্রাম পঞ্চায়েত সরকারি প্রচারে। ছেলেধরা গুজবের বিরুদ্ধে সচেতন করতে গিয়েই বিতর্ক বাড়িয়ে তুলল একটি পোস্টার। সতর্কতার বদলে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে এই পোস্টার, এমনই অভিযোগ তুললেন কোটা গ্রামের বাসিন্দা কিষাণ কর্মকার।
কী লেখা এই পোস্টারে? লেখা – “আপনার অরক্ষিত বাচ্চাটির আশেপাশে ঘুরছে না তো কোনোপাচারকারী? আপনি সতর্ক আছেন তো?” প্রায় দিন পনেরো ধরেই এই পোস্টার ‘শোভা’ বাড়াচ্ছে কোটা পঞায়েতের গায়েই পঞ্চায়েতেরই একটি দেওয়ালে। পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন বিভাগের গ্রাম পঞ্চায়েতের বিভিন্ন কর্মসূচির একটির তত্ত্বাবধানে এই সচেতনতামূলক পোস্টার দেওয়া হয়েছে। পোস্টারে শিশু পাচারকারীর অস্তিত্ব স্বীকার করেই মানুষকে সাবধান হতে বলা হয়েছে। অযথা মানুষকে আতঙ্কিত না করার জন্য যেখানে পুলিশ ও প্রশাসন তৎপর, সেখানেই পঞ্চায়েতের পক্ষ থেকে এহেন প্রচারে অবাক স্থানীয়রাও।

[ আরও পড়ুন: ভুলে ভরা পরিচয়পত্র সংশোধনে সমস্যা, NRC আতঙ্কে আত্মঘাতী যুবক]

রবিবার সংবাদ প্রতিদিনের প্রতিনিধির থেকে এমন খবর পেয়ে, পোস্টার দেখে আসানসোল-দুর্গাপুর পুলিশের আধিকারিকরা বুদবুদ থানার মাধ্যমে পঞ্চায়েতকে এই পোস্টার সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দেয়। এই পোস্টার সম্পর্কে কোটা পঞ্চায়েতের উপপ্রধান শেখ আলাউদ্দিনের সাফাই, “কে লিখেছে দেখছি। আমাকে পুলিশের তরফে জানানো হল। আমরা ওই পোস্টার মুছে দেব।” কিন্তু পোস্টার মুছে ফেলার আগেই আতঙ্ক যা ছড়ানোর ছড়িয়েই পড়েছে বলে মনে করছেন কোটা গ্রামের বাসিন্দারা।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement