BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

পুলিশের মদতে রাম মন্দিরের ভূমিপুজোর হোর্ডিং ছেঁড়ার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে, উত্তপ্ত খড়গপুর

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: August 4, 2020 9:30 pm|    Updated: August 4, 2020 9:32 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাম মন্দিরের (Ram Temple) ভূমিপুজোর হোর্ডিং ছেঁড়াকে কেন্দ্র করে এবার উত্তপ্ত হয়ে উঠল পশ্চিম মেদিনীপুরের খড়গপুর (Kharagpur)। বিজেপির অভিযোগ, পুলিশের মদতে তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা পরিকল্পনামাফিক এই কাণ্ড ঘটিয়েছে। বিষয়টি স্বীকার না করলেও এপ্রসঙ্গে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের কথায়, বিনা অনুমতিতে ব্যানার টাঙিয়েছিল বিজেপি!

৫ আগস্ট অর্থাৎ আগামীকাল রাম মন্দিরের ভূমিপুজো। তার আগেই রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে ভূমিপুজো উপলক্ষে পোস্টার, হোর্ডিং টাঙানো হয়েছে বিজেপির তরফে। খড়গপুরের মালঞ্চ এলাকাতেও বেশ কয়েকটি হোর্ডিং লাগানো হয়েছিল গেরুয়া শিবিরের তরফে। অভিযোগ, সোমবার গভীর রাতে এলাকার ২ যুবককে সেই হোর্ডিংগুলি ছিঁড়তে দেখেন বিজেপি কর্মীরা। স্বাভাবিকভাবেই বাধা দেন তাঁরা। এতেই বাধে বিপত্তি। অশান্তি মেটার পর গোটা ঘটনার পিছনে পুলিশের ইন্ধন আছে এই অভিযোগ তুলে খড়গপুর টাউন থানার বাইরে বিক্ষোভ দেখান বিজেপির নেতা-কর্মীরা। পালটা বিক্ষোভে শামিল হয় তৃণমূলও। ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এলাকা।

[আরও পড়ুন: তীব্র বিস্ফোরণ, নিমেষে গোটা বাড়ি পরিণত হল ধ্বংসস্তূপে! আতঙ্কে কাঁটা গ্রামবাসীরা]

পরিস্থিতি আয়ত্তে আনতে ময়দানে নামেন খড়গপুর টাউন থানার আইসি। দীর্ঘক্ষণ পর শান্ত হয় এলাকা। এপ্রসঙ্গে এক বিজেপি নেতা বলেন, “পুরসভার বিজ্ঞাপন বিভাগের মাধ্যমে ওই হোর্ডিংগুলো লাগানো হয়েছিল। পুলিশশ গুণ্ডা দিয়ে সেগুলি ছিঁড়েছে।” যদিও কোনও বৈধ অনুমতি ছাড়াই ওই হোর্ডিং লাগানো হয়েছিল বলে দাবি তৃণমূলের।

[আরও পড়ুন: টানা বৃষ্টির জের, মাইথন ও পাঞ্চেত থেকে ২৩ হাজার কিউসেক জল ছাড়ল ডিভিসি]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement