BREAKING NEWS

১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৬ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বিধানসভায় ২০০টি আসনে জিততে হবে, বাঁকুড়ার সভা থেকে লক্ষ্য বেঁধে দিলেন অমিত শাহ

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: November 5, 2020 6:41 pm|    Updated: November 5, 2020 7:03 pm

An Images

রবীন্দ্রভবনের সভায় বক্তব্য রাখছেন অমিত শাহ

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায় ও টিটুন মল্লিক: বাঁকুড়ার রবীন্দ্রভবনের সভা থেকে ২০২১ সালের লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করে দিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। পরিষ্কার জানিয়ে দিলেন, আগামী বছর হতে চলা বিধানসভা নির্বাচনে ২০০টি আসনে জিততে হবে বিজেপিকে। তাহলেই সোনার বাংলা গড়তে আর কোনও অসুবিধা হবে না গেরুয়া শিবিরের।

আজ বাঁকুড়া (Bankura) শহরের রবীন্দ্রভবনে বঙ্গ বিজেপির নেতা-কর্মীদের সামনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে ২০২১ সালে বিজেপি বাংলার ক্ষমতায় আসছে বলে দাবি করেন অমিত শাহ (Amit Shah)। সূত্রের খবর, এপ্রসঙ্গে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘বঙ্গ বিজেপির নেতা-কর্মীদের উৎসাহ দেখে আমি আনন্দিত। দুর্নীতিগ্রস্ত তৃণমূল সরকারকে রাজ্য থেকে নির্মূল করতে তাঁরা বদ্ধপরিকর। এই রাজ্যে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে বিজেপিকে সরকারে আনতে সবাই খুব পরিশ্রম করছেন। যা দেখে আমি নিশ্চিত এখানে ক্ষমতায় আসা সময়ের অপেক্ষামাত্র।’

[আরও পড়ুন: গ্রামীণ শিল্পীদের পাশে মুখ্যমন্ত্রী, ডিসেম্বরেই রাজ্যে শুরু হতে পারে শীতকালীন মেলা]

তবে এরপর পাশাপাশি তিনি মনে করিয়ে দেন পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতায় আসতে গেলে পুরনো ও নতুন সবাইকে একসঙ্গে নিয়েই কাজ করতে হবে। তাঁর কথায়, মতানৈক্য সব জায়গাতেই থাকে। কিন্তু, সেই সবের ঊর্দ্ধে উঠে সবাইকে নিয়ে কাজ করতে হবে। তাহলে ড, শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের রাজ্যে ক্ষমতায় আসতে বিজেপির কোনও অসুবিধা হবে না। বাংলার মানুষের স্বার্থেই সবাইকে একসঙ্গে পথ চলতে হবে।

এর আগে পশ্চিমবঙ্গে সফরে এসে রাজ্যে রাষ্ট্রপতি শাসন জারির পক্ষে দাবি জানিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। কিন্তু, আজ এই বিষয়ে তিনি কিছুটা সুর নরম করেছেন বলে সূত্রের খবর। এপ্রসঙ্গে অমিত শাহ পরিস্থিতি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেছেন বলেই জানা গিয়েছে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বুধবার রাতে দমদম বিমানবন্দরে নামার পরেই অমিত শাহের সঙ্গে দেখা করেছিলেন নিহত বিজেপি কর্মী মদন ঘোড়ুইয়ের পরিবারের সদস্যরা। তাঁর মৃত্যুর পর ২২ দিন কেটে গেলেও মৃতদেহের ময়নাতদন্ত হয়নি বলে জানিয়েছিলেন। তাঁর দেহ পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়নি বলেও অভিযোগ করেছিলেন। তাতেই কাজ হল। বৃহস্পতিবার ২৩ দিন পর ওই বিজেপি কর্মীর মৃতদেহ তুলে দেওয়া হল তাঁর পরিবারের হাতে।

[আরও পড়ুন: ‘মমতা সরকারের মৃত্যু ঘণ্টা বেজে গিয়েছে’, বাঁকুড়া থেকে হুঙ্কার অমিত শাহের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement