১৪ মাঘ  ১৪২৮  শুক্রবার ২৮ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

রাজ্যে এবার থাবা বসাল ‘রবার আটা’, আতঙ্কে কালিম্পংয়ের বাসিন্দারা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: March 6, 2018 6:11 pm|    Updated: September 14, 2019 11:36 am

‘Rubber flour’ from PDS creates chaos in Kalimpong villages

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্লাস্টিক ডিম, প্লাস্টিক দুধ, প্লাস্টিক চালের আতঙ্ক ছড়িয়েছিল এই রাজ্য। এবার শিরোনামে উঠে এল রবার আটা। অর্থাৎ খাওয়ার আটা অদ্ভুতভাবে পরিণত হয়েছে রবারে। যার জেরে অসুস্থ হয়ে পড়ছেন কালিম্পংয়ে বেশ কিছু পরিবার।

সম্প্রতি কালিম্পংয়ের রেলি, সেওকভির, সামালবং, লোলের মতো বেশ কয়েকটি পঞ্চায়েত এলাকার বাসিন্দারা অভিযোগ তোলেন, তাঁরা যে আটা বাজার থেকে কিনছেন তা সাধারণ আটার মতো দেখতে হলেও সেই আটা দিয়ে রুটি করা যাচ্ছে না। মাখার পর সেই পাত্রে রবারের মতো লেগে যাচ্ছে আটা। শুধু তাই নয়, আগুনে বসানো মাত্র পপকর্নের মতো ফেটে যাচ্ছে রুটি। আর অস্বাভাবিক পোড়া গন্ধ বের হচ্ছে। সেওকভিরের বাসিন্দা নর বাহাদুর লামা জানান, আটার মধ্যে জল ঢালতেই একটা পোড়া দুর্গন্ধ নাকে আসছে। আর এক কেজি আটা মাখার পর ২৫০ গ্রামে পরিণত হচ্ছে। এই আটার রুটি খেয়ে অনেকেই অসুস্থ হয়ে পড়েছেন বলে অভিযোগ তাঁর। এমনকী এই আটা ছাগল ও মুরগিও খেতে চাইছে না বলে জানান তিনি। আর যে জীবজন্তুরা খেয়েছে, তাদের মৃত্যু হয়েছে।

[‘আমরাও সিপিএমের বিরুদ্ধে লড়াই করেছি, কিন্তু মূর্তি ভাঙিনি’]

রেশন দোকানে এ ধরনের আটা বিক্রি হওয়ায় অভিযোগ জানান গ্রামবাসীরা। তবে এমন অভিযোগ সম্পূর্ণ অস্বীকার করেছেন বিক্রেতারা। ফলে সমস্যায় পড়েছেন সাধারণ মানুষ। পাহাড়ি এলাকায় আটা ছাড়া স্থানীয়দের দৈনন্দিন জীবন একপ্রকার অচল। অথচ টাকা দিয়ে রবার আটা কিনে খেলেই অসুস্থ হয়ে পড়ছেন পরিবারের লোকজন। কিন্তু কোথাও গিয়ে বিচার মিলছে না। ফলে নিজেরাই প্রতিবাদে নামেন তাঁরা। যদিও এখনও পর্যন্ত আটার ফরেনসিট পরীক্ষা হয়নি বলেই জানা গিয়েছে। এই সব অঞ্চলে উত্তরপ্রদেশে, হরিয়ানা, পাঞ্জাব থেকেই সাধারণত আটা আসে। কিন্তু রবার আটা দেশের কোন রাজ্য থেকে এখানে পৌঁছেছে তা এখনও পরিষ্কার নয়। রেশন দোকানগুলির তরফে এ নিয়ে কোনও পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি এখনও পর্যন্ত। উন্নত মানের আটাও আর জেলায় পৌঁছচ্ছে না। ফলে ক্ষুদ্ধ গ্রামবাসীরা।

[বিয়ের দিনে পাত্রীর অস্বাভাবিক মৃত্যু, মর্মান্তিক পরিণতিতে হতবাক পরিবার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে