২৯ কার্তিক  ১৪২৬  শনিবার ১৬ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৯ কার্তিক  ১৪২৬  শনিবার ১৬ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

দিব্যেন্দু মজুমদার, হুগলি: গরুর দুধে সোনা আছে। বিজেপি রাজ্য সভাপতির এই মন্তব্য ঘিরে আপাতত বঙ্গ রাজনীতি সরগরম। কৌতুক, কটাক্ষ, হাসির রোল যেন থামছেই না। এবার দিলীপ ঘোষের এই মন্তব্যকে হাতিয়ার করে একেবারে রাস্তায় নামল হুগলির তৃণমূল নেতৃত্ব। তাদের কর্মসূচি অনুযায়ী, বেকার ছেলেমেয়েরা প্রকাশ্য রাস্তায় গরুর দুধ দুইয়ে বিক্রি করলেন। শুক্রবার গোটা কর্মকাণ্ডে নেতৃত্ব দিলেন শ্রীরামপুর শহর তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি সন্তোষ কুমার সিং।
এদিনের কর্মসূচিতে শতাধিক কলেজ পড়ুয়াও অংশ নেন। বর্তমানে দেশে যখন বেকারত্ব ভয়াবহ আকার নিয়েছে, তখন দিলীপবাবুর মন্তব্যে বেকার ছেলেমেয়েদের উদ্বুদ্ধ করেছে বলেই শ্লেষের সুরে বলছে তৃণমূল নেতৃত্ব। তাই শুক্রবার এলাকার মানুষ ও কলেজ পড়ুয়ারা শ্রীরামপুর স্টেশনের কাছে গরু এনে তার দুধ দুইয়ে রীতিমতো বিক্রিও করলেন। আর বিক্রি হলও নেহাত মন্দ নয়। ব্যঙ্গ করে ফ্লেক্স বোর্ডে লেখা হয়েছে – ‘স্বর্ণযোজনায় ৪০ টাকা লিটার দুধ দিন, ৪০ হাজার টাকা ভরি সোনা নিন।’ পড়ুয়াদের গলাতেও কটাক্ষের সুর, ‘রাজনৈতিক নেতারা যদি এরকমভাবে আমাদের রোজগারের উপায় বাতলে দেন, তবে কৃতজ্ঞ থাকব। সরকারি চাকরির চেষ্টা না করে সোনার দুধের ব্যবসা করব।’

[আরও পড়ুন: শেষ মুহূ্র্তে ট্রেন ঘোষণা হওয়ায় হুড়োহুড়ি, ওভারব্রিজে পদপিষ্ট হয়ে জখম ১৫]

শুক্রবার দুপুরে হঠাৎই সন্তোষ কুমার সিংয়ের নেতৃত্বে প্রায় শ’ দেড়েক কলেজের ছাত্রছাত্রী চারটে গরু নিয়ে শ্রীরামপুর স্টেশনের কাছে টিকিট কাউন্টারের সামনে হাজির হন। হঠাৎই এলাকার মানুষ ও পড়ুয়ারা গরু নিয়ে হাজির হতেই পথ চলতি মানুষ ও নিত্যযাত্রীরা রীতিমতো ভিড় জমান। প্ল্যাকার্ড হাতে এলাকাবাসী স্লোগান তোলেন – ‘আমরা শিক্ষিত বেকার, আমাদের অর্থের বড়ই প্রয়োজন। দিলীপবাবু বলেছেন, গরুর দুধে সোনা আছে। তাই আমরা বেকার ছেলেরা তাই সোনার দরে গরুর দুধ বিক্রি করে বেকারের তকমা ঘোচাতে চাই।’ এর জন্য পড়ুয়ারা দিলীপবাবুকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেছেন, ‘আপনি যে রোজগারের পথ আমাদের দেখিয়েছেন, তার জন্য আমরা চিরকৃতজ্ঞ থাকব।’

HGL-cowmilk-1

শ্রীরামপুর টাউন তৃণমূলের সভাপতি সন্তোষ কুমার সিং বলেন,’কেন্দ্রীয় সরকার যখন একের পর এক মানুষের চাকরি কেড়ে নিচ্ছে, কলকারখানা বন্ধ করে দিচ্ছে, তখন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপবাবু নতুন করে আশার আলো দেখিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের বেকার যুবক-যুবতীদের।’
তবে এখানেও ধনতেরাসের মত বিশেষ ছাড় ঘোষণা করা হয়েছে। সন্তোষ সিংয়ের বক্তব্য, সোনার ভরি ৪০ হাজার টাকা। তারা বছরের শেষে ৪০ হাজার নয় গ্রাহকদের ভরির হিসেবের সাথে সামঞ্জস্য রেখে প্রতি লিটারে ১৫ হাজার টাকা বিশেষ ছাড় ঘোষণা করেছেন সোনার দুধে। অর্থাৎ এক লিটার সোনার দুধ কিনতে খরচ পড়বে ২৫ হাজার টাকা। পথচলতি মানুষ ও নিত্যযাত্রীদের মধ্যে কেউ কেউ আবার টিপ্পনি কেটে বললেন, ‘এবার তাহলে স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের দুর্দিন আসতে চলেছে। মেয়ের বিয়ের গয়নার জন্য এবার থেকে বাবা মায়েরা সোনার জন্য গয়লার কাছে যাবেন। তবে স্বর্ণ ব্যবসয়ীরা কি ছেড়ে কথা বলবেন?’ নিত্যযাত্রীদের কেউ কেউ শ্লেষ করে বললেন, ‘মার্কেট ধরে রাখার জন্য এবার স্বর্ণ ব্যবসায়ীরাও সমস্ত গরুর লিজ নেওয়ার জন্য ঝাঁপিয়ে পড়বেন। সেক্ষেত্রে সোনা ও সোনার দুধ দু’য়েরই বাজার দর ধরা ছোঁয়ার বাইরে চলে যাবে।’ কটাক্ষ যাইই হোক, গরুর দুধে সোনার উপস্থিতি নিয়ে দিলীপ-বচন যে বেশ ভাইরাল, তাতে সন্দেহ নেই।

[আরও পড়ুন: দুর্ঘটনায় পা ভাঙল শাবকের, প্রতিশোধ নিতে গাড়ি ভাঙচুর ক্ষিপ্ত মা হাতির]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং