২২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  সোমবার ৯ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের শুটআউটের ঘটনা ঘটল রাজ্যে। এবার ঘটনাস্থল কল্যাণী এক্সপ্রেস ওয়ের কুতুবপুর। অভিযোগ, ছিনতাইয়ে বাধা পেয়ে এক বেসরকারি সংস্থার কর্মীকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় দুষ্কৃতীরা। গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই ব্যক্তি। অভিযুক্তের খোঁজে তদন্ত শুরু করেছে ভাটপাড়া থানার পুলিশ।

জানা গিয়েছে, রবিবার রাত ১১ টা নাগাদ কল্যাণী এক্সপ্রেস ওয়ে ধরে বাড়ি ফিরছিলেন বিভূতি ঘোষ নামে ওই ব্যক্তি। আচমকা তাঁর পথ আটকায় কয়েকজন দুষ্কৃতী। অভিযোগ, প্রথমে বিভূতিবাবুর গলায় থাকা সোনার চেন ছিনতাইয়ের চেষ্টা করে দুষ্কৃতীরা। এরপরই বিভূতিবাবুর মোটর বাইকটি ছিনতাইয়ের চেষ্টা করে অভিযুক্তরা। অভিযুক্তদের বাধা দেওয়ার চেষ্টা করেন ওই ব্যক্তি। এরপরই বিভূতিবাবুকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় দুষ্কৃতীরা। রক্তাক্ত অবস্থায় বাইক থেকে রাস্তায় লুটিয়ে পড়েন বিভূতিবাবু। এরপর রাস্তার পাশের ঝোপে বিভূতিবাবুকে ফেলে রেখে চম্পট দেয় আততায়ীরা।

[আরও পড়ুন: বেশি দামে সবজি বিক্রি করলে কড়া ব্যবস্থা, হুগলিতে অভিযানে গিয়ে হুঁশিয়ারি EB কর্তাদের]

বেশ কিছুক্ষণ পর স্থানীয়দের নজরে পড়তেই ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন বিভূতিবাবু। ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ভাটপাড়া থানার পুলিশ। কিন্তু কারা এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত সে বিষয়ে এখনও কোনও তথ্য পায়নি পুলিশ। বিভূতিবাবু একটু সুস্থ হতেই তাঁর থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতেই অভিযুক্তদের হদিশ পাওয়া সম্ভব হবে বলে মনে করছেন তদন্তকারীরা। তবে আদতেই কি ছিনতাইয়ে বাধা পাওয়ার কারণেই খুন? নাকি এই ঘটনার পিছনে অন্য কোনও রহস্য রয়েছে, তা জানতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: দুষ্কৃতীদের টাগের্ট ‘বাংলার রূপকার’, বিধানচন্দ্র রায়ের মূর্তি ভাঙচুরে উত্তপ্ত দুর্গাপুর]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং