BREAKING NEWS

১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  শনিবার ২৮ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ইছাপুরে শুটআউট, দুষ্কৃতীদের গুলিতে জখম বিদায়ী তৃণমূল কাউন্সিলর

Published by: Sayani Sen |    Posted: July 5, 2020 9:00 am|    Updated: July 5, 2020 5:59 pm

An Images

ব্রতদীপ ভট্টাচার্য, বারাকপুর: দুষ্কৃতীদের ছোঁড়া গুলিতে গুরুতর জখম উত্তর বারাকপুরের (Barrackpore) ২ নম্বর ওয়ার্ডের বিদায়ী তৃণমূল কাউন্সিলর। শনিবার সন্ধেয় তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় দুষ্কৃতীরা। তাঁর বাঁ পায়ে গুলি লাগে। গুরুতর জখম অবস্থায় প্রথমে বারাকপুর বিএন বোস হাসপাতালে ভরতি করা হয়। যদিও পরে তাঁকে কলকাতার বেসরকারি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। কে বা কারা এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত, তা এখনও স্পষ্ট নয়। পুলিশ ঘটনার তদন্তে নেমেছে। 

শনিবার ব্যক্তিগত কাজে বেরিয়েছিলেন চম্পা দাস নামে ওই কাউন্সিলর। সন্ধের পর ইছাপুর মায়াপল্লিতে এলাকায় নিজের বাড়ি ফিরছিলেন। অভিযোগ, সে সময় বাড়ির একবারে সামনেই দুই দুষ্কৃতী বাইকে চেপে আসে। কিছু বোঝার আগেই তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। তাঁর বাঁ পায়ে গুলি লাগে। রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে বসে পড়েন ওই কাউন্সিলর। পরিস্থিতি বেগতিক বুঝে বাইক নিয়ে চম্পট দেয় দুষ্কৃতীরা। তাঁর চিৎকার চেঁচামেচিতে প্রতিবেশীরা বাড়ি থেকে বেরিয়ে পড়েন। দেখেন, রক্তাক্ত অবস্থায় বসে রয়েছেন চম্পা দাস। তড়িঘড়ি তাঁকে উদ্ধার করা হয়। প্রথমে বারাকপুর বিএন বোস হাসপাতালে ভরতি করা হয় তাঁকে। তবে পরে তাঁকে কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। 

[আরও পড়ুন: করোনা রোগীর চিকিৎসায় ‘গাফিলতি’ বেসরকারি হাসপাতালের, নয়া গাইডলাইন প্রকাশ রাজ্যের]

চম্পা দাস গত পুর নির্বাচনে উত্তর বারাকপুরের ২ নম্বর ওয়ার্ড থেকে নির্দলে দাঁড়িয়েছিলেন। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায়  জিতেও যান। পরে তৃণমূলে যোগ দেন।  চম্পা দাসের উপর কে বা কারা হামলা চালাল, তা এখনও বুঝতে পারছেন না কাউন্সিলরের পরিবার ও অনুগামীরা। স্থানীয়দের মতে, চম্পা দাসের স্বামী গোপাল দাস ওই এলাকার কুখ্যাত সমাজবিরোধী ছিল। কয়েক বছর আগে বাইক দুর্ঘটনায় মারা গিয়েছে সে। তাই কোনও পুরনো শত্রুতার জেরে এই ঘটনা ঘটে থাকতে পারে বলে অনেকে আশঙ্কা করছেন। যদিও পুলিশ পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখছে। 

[আরও পড়ুন: সুনির্দিষ্ট অভিযোগেই ধৃত ‘আরামবাগ টিভি’র সম্পাদক, বিতর্কের জবাব পুলিশ সুপারের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement