BREAKING NEWS

১৭ জ্যৈষ্ঠ  ১৪৩০  বৃহস্পতিবার ১ জুন ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

‘ভাল বন্ধু নৈহাটির বিধায়ক’, ভোটে জিতে জল্পনা উসকে দিলেন অর্জুন সিং

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: May 24, 2019 2:12 pm|    Updated: May 24, 2019 2:42 pm

shops vandalised by bjp workers in barrakpore area.

আকাশনীল ভট্টাচার্য, বারাকপুর: নির্বাচনের ফল প্রকাশিত হওয়ার পরেও উত্তপ্ত  বারাকপুর লোকসভা এলাকা। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে ভাঙচুর করা হয় কাঁকিনাড়া স্টেশন চত্বর সংলগ্ন একাধিক দোকানে। ব্যাপক বোমাবাজি চলে টিটাগড় লাইন বস্তি সংলগ্ন এলাকায়। ঘটনাস্থলে যান সদ্য নির্বাচিত বারাকপুরের ভাবী সাংসদ অর্জুন সিং। এরপর একটি সংবাদমাধ্যমে বিস্ফোরক দাবি করেন অর্জুন সিং।আর তাঁর এই মন্তব্য ঘিরেই শুরু হয়েছে জল্পনা। 

আরও পড়ুন: ‘এবার সুচিত্রা সেনের আত্মার কী হবে?’ মুনমুনের হারের পরই নেটদুনিয়ায় হাসির রোল

ভাটপাড়া বিধানসভার উপনির্বাচনের দিন থেকেই উত্তপ্ত বারাকপুর। পরিস্থিতি এতটুকুও বদলায়নি লোকসভা নির্বাচনে ফল ঘোষণার দিনেও। বারাকপুরে অর্জুন সিং জয়ী হওয়ার পরই বৃহস্পতিবার উত্তপ্ত হয়ে ওঠে কাঁকিনাড়া ও টিটাগড় চত্বর। ওদিকে ভাটপাড়া বিধানসভা উপনির্বাচনেও বিজেপির পক্ষেই রায় গিয়েছে৷ জিতেছেন অর্জুনের ছেলে পবন সিং৷ ফল ঘোষণার পর বৃহস্পতিবার গভীর রাতে কাঁকিনাড়া এলাকায় বেশ কিছু দোকানে ভাঙচুর চালায় দুষ্কৃতীরা। আগুন জ্বালিয়ে দেওয়া হয় দোকানগুলিতে। মুহূর্তে রণক্ষেত্র হয়ে ওঠে এলাকা। ঘটনাস্থলে যায় জগদ্দল থানার পুলিশ ও আধাসেনা। খবর ছড়িয়ে পড়তেই ঘটনাস্থলে যান বারাকপুরের ভাবী সাংসদ অর্জুন সিং। স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলেন এমনকী গোটা ঘটনার জন্য তৃণমূলকে দায়ী করেন তিনি।  এর কিছুক্ষণের মধ্যে টিটাগড় লাইন বস্তি এলাকায় ব্যাপক বোমাবাজি হয়। সেখানেও যান অর্জুন সিং। এক্ষেত্রেও শাসকদলের বিরুদ্ধেই আঙুল তোলেন তিনি। 

আরও পড়ুন:ভোটের ফল প্রকাশের পরই দিকে দিকে আক্রান্ত শাসকদল, কাঠগড়ায় বিজেপি

এর ঠিক পরের দিন, শুক্রবার শাসকদলের এক বিধায়কের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের কথা ঘোষণা করেন অর্জুন। তিনি জানান, নৈহাটি বিধানসভাতেও বিপুল সংখ্যক ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন তিনি। আর এই জয়ের জন্য পরোক্ষভাবে নৈহাটির বিধায়ক পার্থ ভৌমিকের উল্লেখযোগ্য ভূমিকার কথা স্বীকার করে নেন তিনি। সেই সঙ্গে আরও ৬০ জন তৃণমূল বিধায়কের সঙ্গে যোগাযোগ রয়েছে বলেও দাবি করেন তিনি। আর এই বিষয়টি প্রকাশ্যে আসতেই শুরু হয়েছে জল্পনা। প্রশ্ন উঠছে, তাহলে কি তৃণমূলের অন্তর্ঘাতেই লাভের গুড় জুটল অর্জুনের ভাগ্যে? দু’বারের সাংসদ দীনেশ ত্রিবেদীর হারের পর্যালোচনা করলেই অবশ্য প্রকৃত সত্যিটা বোঝা যাবে৷ তবে এই মুহূর্তে জনাদেশ নিয়ে দিল্লির পথে পাড়ি দিচ্ছেন অর্জুন সিং৷ 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে