BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

চোপড়া কাণ্ড: কিশোরী ‘খুনে’ যুক্তদের গ্রেপ্তারের দাবিতে ধরনা, মঞ্চ থেকে ধৃত বিজেপি নেতা

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: July 22, 2020 3:24 pm|    Updated: July 22, 2020 3:50 pm

An Images

ফাইল ছবি।

শংকরকুমার রায়, রায়গঞ্জ: বুধবার দুপুরে চোপড়ার কিশোরী ‘খুনে’র ঘটনায় উত্তপ্ত হয়ে উঠল উকিলপাড়া। রীতিমতো হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়ে পুলিশ ও বিজেপি কর্মীরা। সেখান থেকেই বিজেপি নেতা রাজু বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Raju Banerjee) গ্রেপ্তার করা হয়। পুলিশি ‘অত্যাচার’ থেকে রেহাই পাননি মহিলা কর্মীরাও।

চোপড়া (Chopra) কাণ্ডে নিহত কিশোরীর মৃত্যুর তদন্ত ও অভিযুক্তদের শাস্তির দাবিতে বেশ মঙ্গলবার থেকেই ধরনায় বসেছে বিজেপি। উকিলপাড়ায় কার্যালয়ের বাইরের অস্থায়ী মঞ্চে বুধবারও চলছিল ধরনা। দুপুরে সেখানে যান রাজু বন্দ্যোপাধ্যায়। এরপরই আচমকা সেখানে হাজির হয় বিশাল পুলিশ বাহিনী। কার্যালয়ের ভিতরে ঢুকে রীতিমতো ‘হামলা’ চালায় মহিলা পুলিশ কর্মীরা। শৌচাগারের ভিতর থেকেও জোরপূর্বক টেনে আনা হয় মহিলা বিজেপি কর্মীদের। এরপরই ধরনামঞ্চের পাশ থেকে গ্রেপ্তার করা হয় রাজু বন্দ্যোপাধ্যায়কে। কার্যত টেনে হিঁচড়ে তাঁকে গাড়িতে তোলে পুলিশ। সেখানেই পুলিশের সঙ্গে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়ে বিজেপি কর্মীরা। উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এলাকা।

raju-banerjee-2

[আরও পড়ুন: খিদের জ্বালায় কাঁঠাল খেতে যাওয়াই কাল, নাগরাকাটার চা-বাগানে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু হাতির]

ঘটনার সূত্রপাত সোমবার ভোরে। ওই দিন চোপড়ার চোচড়াগঞ্জ এলাকা থেকে উদ্ধার হয়েছিল এক বিজেপি নেতার বোনের দেহ। কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে নাম জড়িয়েছিল যে যুবকের পরের দিন সকালে মেলে তাঁর দেহ। এরপরই গ্রেপ্তার করা হয় কিশোরীর পরিবারকে। কিন্তু ঘটনার পর বেশ কয়েকদিন পেরিয়ে গেলেও কিশোরী খুনের ঘটনায় কাউকে গ্রেপ্তার করেনি পুলিশ। তাই অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের দাবিতেই ধরনায় বসেছিল বিজেপি।

[আরও পড়ুন: অন্ডালে রাস্তার ফাটল দিয়ে বেরচ্ছে ধোঁয়া, হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ল দোতলা বাড়ি]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement