BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

রাজ্য ও কেন্দ্রের যুগ্ম প্রচেষ্টা, লকডাউনে আটকে পড়া বিদেশিদের দিল্লি নিয়ে গেল বিশেষ বাস

Published by: Bishakha Pal |    Posted: April 15, 2020 6:31 pm|    Updated: April 15, 2020 7:24 pm

An Images

শুভদীপ রায়নন্দী, শিলিগুড়ি: করোনার জেরে লকডাউনের ফলে দীর্ঘ এক মাস ধরে আটকে থাকা বিদেশি পর্যটকদের রাজ্য সরকারের সহযোগিতায় বাড়ি ফেরত পাঠানোর ব্যবস্থা করল স্বরাষ্ট্র এবং বিদেশ মন্ত্রক। পাহাড়, তরাই এবং ডুয়ার্সে তাঁরা পাহাড়ি জনজাতির উপর গবেষণা করতে এসেছিলেন। বুধবার দুপুরে দার্জিলিং, কালিম্পং-সহ উত্তর-পূর্ব ভারতের একাধিক জায়গায় আটকে থাকা পর্যটকদের দার্জিলিংয়ে একত্রিত করে সড়কপথে বিশেষ বাসে পুলিশি নিরাপত্তায় দিল্লিতে পাঠানো হয় বলে দার্জিলিং জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে।

এই কয়েক দিন যাবৎ তাঁদের দার্জিলিংয়ের একটি হোটেলে রাখার ব্যবস্থা করেছিল জেলা প্রশাসন। এদিন সকালে দিল্লির দূতাবাস থেকে হরিয়ানা নম্বরের ওই বাসটি দার্জিলিং পৌঁছয়। মোট ১৬ জন বিদেশি পর্যটককে নিয়ে ওই বাসটি রওনা দেয়। ১৬ জনের মধ্যে ১১ জনই পাহাড়ি জনজাতির উপর গবেষণা করতে এসেছিলেন। প্রায় চার থেকে ছ’মাস ধরে তাঁরা পাহাড়ের বিভিন্ন প্রান্তের জনজাতির উপর গবেষণা করছিলেন। বাকি পাঁচজন সাধারণ পর্যটক বলে জানা গিয়েছে। অন্যদিকে, এদিন সকালে পর্যটকদের নিতে ওই বাসটি দার্জিলিং শহরে পৌঁছলে এক যুবক সেটির ভিডিও করে করোনার আতঙ্ক সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়ায়। ভুয়ো আতঙ্ক ছড়ানোর খবর জানা মাত্রই ওই যুবককে গ্রেপ্তার করে দার্জিলিং সদর থানার পুলিশ। তার বিরুদ্ধে সাইবার ক্রাইম ধারা এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় গুজব ছড়ানোর অভিযোগে মামলা রুজু করা হয়েছে।

[ আরও পড়ুন: করোনা আক্রান্ত উত্তর বারাকপুরের বৃদ্ধা, কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হল ছেলেকে ]

দার্জিলিংয়ের পুলিশ সুপার অমরনাথ কে বলেন, “মূলত পর্যটকদের মধ্যে সাহিত্যিক, গবেষক, লেখকরা রয়েছেন। পাহাড়ের জনজাতির উপর গবেষণা করতে বেশ কয়েক মাস ধরে তাঁরা ছড়িয়ে ছিটিয়ে ছিলেন। কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকার তাঁদের বাড়ি ফেরত পাঠানোর ব্যবস্থা করেছে।” জেলাশাসক দীপপ্রিয়া পি বলেন, “প্রত্যেকের শারীরিক পরীক্ষা হয়েছে। তাঁরা সবাই সুস্থ আছেন।” দার্জিলিং সদর থানার আইসি তীর্থসারথি নাথ বলেন, “এক যুবক ওই পর্যটকদের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে করোনা নিয়ে গুজব ছড়ায়। তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সব খতিয়ে দেখা হচ্ছে। আতঙ্কের কোনও কারণ নেই।”

জানা গিয়েছে, পর্যটকদের মধ্যে সাতজন পুরুষ এবং ন’জন মহিলা গবেষক রয়েছেন। পর্যটকদের মধ্যে ছ’জন স্পেন এবং বেলজিয়াম, চারজন ফ্রান্স, দু’জন সুইডেন এবং চারজন পর্তুগাল, ইতালি, ক্রোয়েশিয়া এবং অস্ট্রেলিয়ার বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে। প্রত্যেকে ২০ মার্চ থেকে উত্তরে বিভিন্ন জেলায় লকডাউনের ফলে আটকে পড়েছিলেন। জেলা প্রশাসন সূত্রে খবর, এর আগে দু’দফায় ২০ জন পর্যটককে একইভাবে বিদেশি পর্যটকদের দিল্লিতে সংশ্লিষ্ট দেশের দূতাবাসে পাঠানো হয়েছিল। এই পর্যটকরা দিল্লিতে পৌঁছনোর পর সেখান থেকে তাঁদের বিশেষ চার্টার্ড বিমানে নিজেদের দেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করেছে স্বরাষ্ট্র এবং বিদেশ মন্ত্রক।

[ আরও পড়ুন: ফের রাতের আঁধারে গোপনে দেহ দাহের চেষ্টা পুলিশের, ক্ষোভে ফুঁসছে স্থানীয়রা ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement