BREAKING NEWS

১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ক্লাস না ক্লাবঘর! স্কুলেই টিকটকে মত্ত পড়ুয়ারা, ভাইরাল ভিডিও

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: August 1, 2019 3:53 pm|    Updated: August 1, 2019 11:52 pm

Students make Tiktak video in Classroom at Alipurduar School

রাজকুমার, আলিপুরদুয়ার:  এবার ক্লাসরুমে বসেই টিকটক ভিডিও বানিয়ে ফেলল পড়ুয়ারা!  সেই ভিডিও আবার সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোডও করেছে তারা। ভিডিওটি ভাইরাল হতেও সময় লাগেনি।  শোরগোল পড়ে গিয়েছে আলিপুরদুয়ারে। ঘটনাটি সলসলাবাড়ি মডেল হাইস্কুলে। অভিভাবক ও প্রাক্তনীদের বিক্ষোভের মুখে পড়ে অভিযুক্ত পড়ুয়াদের অভিভাবকদের সঙ্গে বৈঠক বসার আশ্বাস দিয়েছেন প্রধান শিক্ষক।

[ আরও পড়ুন: ছাত্রীদের শ্লীলতাহানির অভিযোগ ঘিরে ধুন্ধুমার কাণ্ড মালদহের স্কুলে, জনতা-পুলিশ খণ্ডযুদ্ধ]

আর কয়েকদিন পরেই স্বাধীনতার দিবস। জোরকদমে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মহড়া চলছে আলিপুরদুয়ারের সলসলাবাড়ি মডেল হাইস্কুলে। অভিযোগ, স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানের মহড়ার ফাঁকে ক্লাসরুমে বসে টিকটক ভিডিও ফেলেছে একদল পড়ুয়ারা। ভিডিটিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন অভিভাবক ও স্কুলের প্রাক্তনীরা। তাঁদের দাবি, ওই টিকটক ভিডিওয় খোদ স্কুল পরিচালন সমিতির সভাপতির মেয়েকেও দেখা গিয়েছে। তাই সব জেনেও পড়ুয়াদের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নিচ্ছে না স্কুল কর্তৃপক্ষ। অভিযুক্ত পড়ুয়াদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবিতে বুধবার সলসলাবাড়ি মডেল হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষকের সঙ্গে দেখাও করেন প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রীদের একাংশ। তাঁদের দাবি, প্রধান শিক্ষক অভিযুক্ত পড়ুয়াদের অভিভাবকদের সঙ্গে বৈঠক করার প্রতিশ্রুতি দেন। কিন্তু, অভিভাবকরা যখন স্কুলে যান, তখন তাঁদের বলা হয়, সাতদিন পর বৈঠক হবে। আর তাতে পরিস্থিতি আরও উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। স্কুলের সামনে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন অভিভাবক ও প্রাক্তনীরা।

স্কুলের প্রধান শিক্ষক সজলকান্তি মিত্রের বক্তব্য, ‘স্কুলে ইউনিট টেস্ট চলছে। সাতদিন পর পরীক্ষা শেষ হলে অভিভাবকদের সঙ্গে বৈঠক করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ আর স্কুলের পরিচালন সমিতির সভাপতি বিমলচন্দ্র রায় বলেন, ‘স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানের জন্য নাচ শেখাচ্ছিলেন দিদিমণিরা। তাঁদের অনুপস্থিতিতে এমন ভিডিও তৈরি করেছে পড়ুয়ারা। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’ কিন্তু স্কুলে তো পড়ুয়াদের মোবাইল ফোন ব্যবহার নিষিদ্ধ। তাহলে তারা টিকটক ভিডিও তৈরি করল কী করে? সদুত্তর দিতে পারেনি স্কুল কর্তৃপক্ষ।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে