১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বৈঠকে গলল বরফ, গণইস্তফার পরও কাজে ফিরলেন বাঁকুড়া মেডিক্যালের ‘বিদ্রোহী’ চিকিৎসকরা

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: June 5, 2020 6:29 pm|    Updated: June 5, 2020 6:29 pm

Suspended house staffs in Bankura Medical College back to work from today

টিটুন মল্লিক, বাঁকুড়া: করোনা পরিস্থিতিতে কাজে গাফিলতির অভিযোগে বরখাস্ত হওয়া বাঁকুড়া মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ৩১ জন হাউস স্টাফ পুনরায় কাজে যোগ দিচ্ছেন। শুক্রবারই কলেজ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠকে তাঁরা জানিয়েছেন, ফের কাজে যোগ দিতে ইচ্ছুক। অধ্যক্ষ পার্থপ্রতিম প্রধানের কাছে ৩১ জনই কাজে যোগ দেওয়ার জন্য লিখিত আবেদন জানিয়েছেন। সেই আবেদন হাতে পাওয়ার পর কলেজ কর্তৃপক্ষ তাঁদের কাজে যোগ দেওয়ার জন্য অনুমতি দিয়েছে। এই খবর জানিয়েছেন বাঁকুড়া সম্মিলনি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে অধ্যক্ষ পার্থপ্রতিম প্রধানের।

কাজে গাফিলতির অভিযোগে বুধবার এবং বৃহস্পতিবার দু’দফায় ৩৫ জন হাউস স্টাফকে বরখাস্ত করা হয়েছিল এই মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। তাঁরা নিজেরাও গণইস্তফা দিয়েছিলেন। নিজেদের বিভাগ অনুযায়ী কাজ না দেওয়া এবং লাগাতার করোনা চিকিৎসা করানোর অভিযোগ তুলে তাঁরা কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধেই আঙুল তুলেছিলেন। করোনা সংক্রমণ ছড়ানোর এই কঠিন পরিস্থিতিতে চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে এই কড়া পদক্ষেপে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছিল।

[আরও পড়ুন: উপার্জনের আশায় সজনে গাছে ওঠাই কাল! তড়িদাহত হয়ে মৃত্যু মুর্শিদাবাদের যুবকের]

এই পরিস্থিতিতে মেডিক্যাল কলেজের তরফে সিনিয়র রেসিডেন্ট চিকিৎসক চেয়ে দরখাস্ত করা হয়েছিল রাজ্যের স্বাস্থ্য দপ্তরে। তার পরিপ্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার কলেজ কাউন্সিলের তরফে জরুরি ভিত্তিতে একটি বৈঠকও হয়। কলেজ কাউন্সিলের তরফে একটি লিখিত আবেদন পাঠিয়েও দেওয়া হয় স্বাস্থ্য ভবনে।

[আরও পড়ুন: দেব সহায়, নেপাল থেকে দেশে ফিরলেন দুই অন্তঃসত্ত্বা-সহ ৩৪ জন পরিযায়ী শ্রমিক]

প্রতি বছরের মতো এবছরও ইন্টার্নশিপ শেষ হওয়ার পর এপ্রিল মাসে ৪৮ জনকে হাউস স্টাফ হিসাবে নিয়োগ করা হয় এই। এরা প্রত্যেকেই এই বাঁকুড়া সম্মিলনি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পড়ুয়া। এবং গত একবছর ধরে এই মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালেই ইনটার্নশিপ শেষ করেছে এই শিক্ষানবিশ চিকিৎসকরা। ফের কাজে যোগ দেওয়ার জন্য কলেজ কর্তৃপক্ষের কাছে কেন আবেদন করলেন বরখাস্ত হওয়া হাউস স্টাফরা? এই প্রশ্নের অবশ্য কোনও সদুত্তর পাওয়া যায়নি তাঁদের কাছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে