BREAKING NEWS

১৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  শুক্রবার ২৯ মে ২০২০ 

Advertisement

আসানসোলের জনসভায় ফ্যাশন-রূপচর্চার টিপস মুনমুন সেনের

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: April 17, 2019 9:15 am|    Updated: April 17, 2019 5:47 pm

An Images

চন্দ্রশেখর চট্টোপাধ্যায়, আসানসোল: তাঁর স্টাইল স্টেটমেন্ট এখনও দর্শকদের উদ্বেলিত করে। কারণ, তিনি সুচিত্রা কন্যা মুনমুন সেন ওরফে শ্রীমতী দেববর্মা। আর এই প্রখর দাবদাহেও প্রচারে নিজের স্টাইলিশ ভাবমূর্তি ধরে রেখেছেন তিনি। প্রচারে বেরিয়ে রং-বেরঙয়ের শিফন শাড়িতেই স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন মুনমুন সেন। দিনের বেলা প্রচারে তাঁর পোশাক এক, রাতে অন্যরকম। এই বিষয়ে মুনমুন সেন নিজেই জানালেন, স্টাইল সম্পর্কে তাঁর ধ্যান-ধারণা কনভেনশনাল নয়। তিনি বলেন “আমার সবচেয়ে প্রিয় শাড়ি টাঙ্গাইল। টাঙ্গাইলের উপর কোনও শাড়ি হয় না। বাংলার এত ভাল স্টাইল স্টেটমেন্ট আর কিছু হতেই পারে না। তবে শিফন গরমের দিনে খুবই আরামদায়ক৷ শিফনের শাড়িতে ঘাম হওয়ার সম্ভাবনা নেই৷ আবার চট করে কুঁচকেও যায় না” তাঁর মতে, হালকা ও স্বচ্ছ ফেব্রিক করা এই শাড়িতে একটা ‘ফ্লোয়ি লুক’ আছে৷ যা সব শারীরিক গড়নেই মানিয়ে যায়৷

[আরও পড়ুন: মাঝরাতে ইভটিজারদের পাকড়াও করে চরম শিক্ষা, সাহসিকতা দেখাল কন্যাশ্রীরা]

খনি অঞ্চলের গরমটাই আলাদা। গরমও তীব্র। সেইসঙ্গে আর্দ্রতাও মাঝে মাঝেই বেড়ে যায়। রয়েছে কয়লার ধুলো। সেইসব উপেক্ষা করেই মার্চ মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকেই আসানসোলেই রয়েছেন তূণমূলের এই তারকা প্রার্থী। এই গরমেও দুবেলা করে প্রচারে বের হচ্ছেন তিনি। প্রথম দিন তাঁকে দেখা গিয়েছিল গাঢ় নীলচে সবুজ সিল্কের শাড়ি আর থ্রি কোয়ার্টার হাতা ব্লাউজে। পরদিন শ্রীমতিকে দেখা গিয়েছিল হালকা পেস্তা রঙের সুতির শাড়ি এবং ম্যাচিং স্লিভলেস ব্লাউজে। এমনকী দু’দিন সিন্থেটিক শাড়িও পড়েছিলেন। তারপর থেকে শিফনের শাড়িতেই দেখা মিলছে তাঁর। একদিন দেখা গিয়েছিল লিনেনে। মুনমুন সেন জানিয়েছেন, আসানসোলের গরমের জন্য তিনি স্টাইল পরিবর্তন করেছেন। প্রথমদিকে চুল খোলা রাখছিলেন এখন টানটান করে চুল বাঁধছেন।

[আরও পড়ুন: মাতৃবিয়োগের ব্যথাতেও দলের কাজে নিষ্ঠা, অশৌচ নিয়ে প্রচারে অনুব্রত]

কুলটির রাধাননগর গ্রামে গিয়ে রাখঢাক না করেই মহিলাদের হাসতে হাসতে বলেন, এই গরমে এত ঘাম হচ্ছে কিন্তু মুখ মুছতে পারছি না। কারণ মুখ মুছলেই ওই ছবি পরদিন কাগজে চলে আসবে। তাই গাড়িতে ওঠার পর মুখ মুছে আবার মেকআপ ঠিক করে নিচ্ছি। পরে বলেন, “লোকে আমাকে স্টাইলিশ বলে। কিন্তু আমি ব্র্যান্ডেড জিনিস প্রায় ব্যবহারই করি না। আমার কাছে রাস্তার ছোট জিনিসও ভীষণ স্টাইলিশ। লোক দেখাতে আমি ব্র্যান্ডেড জিনিস কিনতে পারব না।” তিনি জানান, মা ছিলেন তাঁর কাছে সব থেকে বড় স্টাইলিশ। তাই তাঁর উপর মায়ের স্টাইল স্টেটমেন্টের প্রভাব খুব বেশি। সুচিত্রা কন্যা বলেন, “মা ছাড়াও গায়ত্রীদেবীকে খুব কাছ থেকে দেখেছি। এত ক্যাজুয়াল স্টাইল অন্য কাউকে করতে দেখিনি। একটা শিফন শাড়ি আর মিনিমাম গয়নাতেই গায়ত্রীদেবী ‘ওয়াজ আ হেড টার্নার’।

সেইসঙ্গে তিনি বলেন, গায়ত্রীদেবী বলতেন, স্কিন যদি ভাল থাকে তা হলে মেক আপ করার প্রয়োজন নেই। আজও ওঁর উপদেশ মেনে চলি।” প্রচার সভা থেকেই  আসানসোলের মহিলাদের তিনি রূপচর্চার টিপসও দেন। ত্বক ভাল রাখতে চন্দন মাখার পরামর্শও দেন  এই তারকা প্রার্থী।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement