BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘বোতাম টিপবেন এখানে, মোদির কোমর ভাঙবে ওখানে’, কড়া চ্যালেঞ্জ অভিষেকের

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: April 18, 2019 8:02 pm|    Updated: April 18, 2019 8:02 pm

An Images

পলাশ পাত্র, তেহট্ট:  ভোটপ্রচারে নরম-গরমে একে অন্যকে টেক্কা দেওয়ার চেষ্টায় কমতি নেই৷ সবমহলই একে অন্যের বিরুদ্ধে সরব৷ এবার মহুয়া মৈত্রর সমর্থনে নদিয়ায় ভোটপ্রচারে গিয়ে কড়া ভাষায় প্রতিপক্ষকে আক্রমণ করলেন বিদায়ী সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’, ‘আচ্ছে দিন’-সহ প্রধানমন্ত্রীর প্রতিটি প্রকল্পকেই ‘ব্যর্থ’ বলে দাবি করে করেছেন তিনি। সেইসঙ্গে সকলের উদ্দেশে তিনি আবেদন জানান, সিপিএম ও কংগ্রেস বা বিজেপিকে ভোট দিয়ে কেউ তাঁর মূল্যবান ভোট যেন নষ্ট করা না হয়।

[আরও পড়ুন: ভোটপ্রচারের মঞ্চে গান শোনালেন নুসরত, দেখুন ভিডিও]

বৃহ্স্পতিবার নদিয়ার কালীগঞ্জের কামারির মাঠে তৃণমূলের তরফে একটি জনসভার আয়োজন করা হয়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন ডায়মন্ড হাবরারের বিদায়ী সাংসদ তথা ডায়মন্ড হারবার লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়-সহ মন্ত্রী উজ্জ্বল বিশ্বাস, বিধায়ক গৌরীশংকর দত্ত, কল্লোল খাঁ, হাসানুজ্জামান, তাপস সাহা ও অন্যান্য নেতা কর্মীরা। এদিন সভা থেকে কৃষ্ণনগরের তৃণমূল প্রার্থীকে ভোট প্রদানের জন্য আবেদন করেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। মহুয়া মৈত্রকে ভোট দিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত শক্ত করার করার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

এই প্রসঙ্গের রেশ টেনে প্রধানমন্ত্রীকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, ‘২৩ মে মহুয়া মৈত্রর জয়ের ব্যাবধান বাড়বে আর দেখবেন নরেন্দ্র মোদির ইস্তফাপত্র রাষ্ট্রপতির কাছে চলে গিয়েছে। সেদিন অনুমান করতে পারবেন, একটা ভোটের শক্তি কতটা। বোতাম টিপবেন এখানে আর নরেন্দ্র মোদির কোমর ভাঙবে ওখানে।’ আর্থিক কেলেঙ্কারি প্রসঙ্গ টেনেও প্রধানমন্ত্রীকে আক্রমণ করেন তিনি। বলেন এ কেমন চৌকিদার? চৌকিদার থাকতে হাজার হাজার কোটি টাকা নিয়ে পালায় মেহুল চোকসি, বিজয় মালিয়া, নীরব মোদিরা।

[আরও পড়ুন: হাতির ভয়ে সকালেই বুথে, ভোটের পর চা-বিস্কুট-খিচুড়ি পেয়ে খুশি বনবসতিবাসী]

আক্রমণের ঝাঁজ আরও বাড়িয়ে অসমের নাগরিকপঞ্জি নিয়েও সরব হন অভিষেক৷ বাতিল প্রসঙ্গে তাঁর মন্তব্য,  ‘নোটবন্দি করে সকলের টাকা কেড়ে নিয়েছেন মোদি। একশো ত্রিশ কোটি মানুষকে লাইনে দাঁড় করিয়েছেন। আর নিজে বিদেশে ঘুরে বেরিয়েছেন। বিশালবহুল হোটেলে থেকেছেন। অতএব তাঁকে ভোট দেওয়া উচিৎ নয়।’  বাংলার প্রতি কেন্দ্রের বঞ্চনার কথা বোঝাতে বিদায়ী সাংসদ বলেন, ‘এ কেমন মেক ইন ইন্ডিয়া? যেখানে গাড়ি আসছে জার্মানি থেকে। বুলেট ট্রেন আসছে জাপান থেকে। কোথায় আচ্ছে দিন? ১২০০ কোটি টাকা দিয়ে দিল্লিতে দলীয় কার্যালয় তৈরি হচ্ছে। তিন হাজার কোটি টাকা দিয়ে গুজরাটে মূর্তি নির্মাণ হচ্ছে। অথচ বেটি বাচাও বেটি পড়াও প্রকল্পের টাকা নেই। প্রধানমন্ত্রী সড়ক যোজনার টাকা নেই।’

[আরও পড়ুন: বুথে গুলি চালিয়ে কাঠগড়ায় তৃণমূল নেতা, অভিযোগ অস্বীকার শাসকদলের]

সভামঞ্চ থেকেই মমতা বিরোধীদের উদ্দেশ্যে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেন তিনি। বলেন, ‘যারা বলছেন কাজ হয়নি, তাদের দায়িত্ব নিয়ে বলছি ক্ষমতা থাকলে মোদি বনাম মমতার পাঁচ বছরের কাজের হিসেবনিকেশ করা হোক। এখানে ক্যামেরা আছে দশ গোল দিয়ে মাঠের বাইরে বের করে দেব।’ তিনি বলেন, ‘আমাদের নেত্রী কথা দিয়ে অক্ষরে অক্ষরে তা রাখেন। এটাই মোদি আর মমতার পার্থক্য।’ পাশাপাশি কংগ্রেস, সিপিএমকে দুর্বল বলে কটাক্ষ করেন তিনি। বলেন, ওদের ভোট দেওয়া মানে একটি ভোট নষ্ট করা। সবমিলিয়ে নদিয়ার সভায় আক্রমণাত্মক মেজাজেই দেখা গেল অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে। 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement